Bangladesh Market List

মৌচাক মার্কেট

মেট্রোপলিটন ঢাকা শহরের একটি বিখ্যাত ও জনপ্রিয় মার্কেট হলো মৌচাক মার্কেট। ১৯৪০ সালে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। সুসজ্জিত মার্কেটটিতে ১০০০ টির অধিক দোকান রয়েছে।

লোকেশন = মালিবাগ ওভারব্রিজের সাথে। ওভারব্রিজের সাথে শপিংমলটির ৩য় তলার সরাসারি যোগাযোগ আছে।

পণ্যসামগ্রীর বিবরন

১ম তলা ফাস্টফুড ও কিছু জুয়েলারী সামগ্রী
২য় তলা জুয়েলারী সামগ্রী
৩য় তলা প্লাস্টিক সামগ্রী, কিছু রেডিমেড পোষাক
৪র্থ তলা মহিলাদের রেডিমেড বিভিন্ন রকমের পোষাক, শাড়ী, থ্রী-পিস, ওড়না, কসমেটিক্স, শাড়ীর জরি, চুমকি, লেইস, জুতো/স্যান্ডেল (মেয়েদের জন্য), ব্যাগ ইত্যাদি।
৫ম তলা মসজিদ এবং ইউরো গার্ডেন চাইনীজ রেষ্টুরেন্ট

পণ্যসামগ্রীর মান, মুল্য এবং ক্রেতা

  • এখানে প্রাপ্ত পন্য সামগ্রীর ভাল মানের।
  • পন্য সামগ্রী কোন কোন দোকানে একদরে বিক্রয় হয়। আবার কোন কোন দোকানে দর কষাকষি করে ক্রয় করতে হয়।
  • এখানে সাধারনত উচ্চবিত্ত, উচ্চ-মধ্যবিত্ত এবং মধ্যবিত্ত শ্রেনীর ক্রেতাগন কেনাকাটা করতে আসেন।
  • এখানে ক্যাশের সাথে সাথে ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমেও খরচ পরিশোধ করা যায়।

গাড়ী পার্কিং ব্যবস্থা

  • এখানে গাড়ী পার্কিং এর নিজস্ব ব্যবস্থা নেই। সামনের রাস্তায় ৮ টি গাড়ী পার্ক করা যায়।

টয়লেট ব্যবস্থা

  • টয়লেট সুবিধা রয়েছে।
  • এখানে প্রত্যেকটি ফ্লোরে পুরুষ এবং মহিলাদের পৃথক টয়লেট ব্যবস্থা রয়েছে।
  • সার্বক্ষনিক টয়লেট পরিচ্ছন্ন রাখা হয়।

নিরাপত্তা ব্যবস্থা

  • সিসিটিভি নেই। তবে এখানে নিজস্ব একদল প্রশিক্ষিত ও চৌকস সিকিউরিটি গার্ড রয়েছে, মার্কেটের সার্বিক নিরাপত্তার দায়িত্ব তারা খু্বই দক্ষতার সাথে পালন করে আসছে।

নামাজের ব্যবস্থা

  • এখানে নামাজের জন্য ৫ম তলায় মসজিদ রয়েছে।

খোলা/বন্ধের সময়

  • সপ্তাহের বৃহস্পতিবার সম্পূর্ণ এবং শুক্রবার অর্ধ দিবস বন্ধ থাকে। সকাল ৯.০০ টা থেকে রাত ৮.০০ টা পর্যন্ত খোলা থাকে।

ভিড় এড়াতে চান

  • প্রতিদিনই ভিড় হয়।  সাধারনত সকাল থেকে রাত পর্যন্ত একটু বেশী ভিড় থাকে।

কর্ণফুলী গার্ডেন সিটি, কাকরাইল

কাকরাইল রোড, ঢাকা।১৯৯৮ ইং সালে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। শপিং মলটি আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সম্পন্ন, ক্যাপসুল লিফট, নিজস্ব স্ট্যান্ডবাই জেনারেটর সুবিধাসহ শীতাতপ নিয়ন্ত্রীত এবং টাইলস সজ্জিত নতুন ভবনে অবস্থিত। এখানে মোট দোকান সংখ্যা ৩০০ টি। মালিক কর্তৃপক্ষ কর্তৃক শপিং মলটি পরিচালিত হয়।

লোকেশন

  • কাকরাইল রাজমনি সিনেমা হলের মোড় থেকে শান্তিনগর মোড়ে যেতে হাতের বাম পাশে এটি অবস্থিত।

 ভবনের বিবরন

  • ১৫ তম তলা বিশিষ্ট ভবনের প্রথম তলা থেকে পঞ্চম তলা পর্যন্ত শপিং মল এবং অবশিষ্ট তলাগুলো এ্যাপার্টমেন্ট।

 পণ্যসামগ্রীর বিবরন

প্রথম তলা গিফট আইটেম, কসমেটিক্স, বাচ্চাদের পন্য-সামগ্রী ইত্যাদি।
দ্বিতীয় তলা শাড়ি, সেলোয়ার কামিজ, প্যান্ট, শার্ট ইত্যাদি।
তৃতীয় তলা ছেলে মেয়েদের জুতো, প্যান্ট, শার্ট, পাঞ্জাবী, কামিজ ইত্যাদি।
চতূর্থ তলা জুয়েলারী, ফুড কোর্ট।
পঞ্চম তলা অফিস, এ্যাপার্টমেন্ট।

পণ্যসামগ্রীর মান, মুল্য এবং ক্রেতা

  • এখানে প্রাপ্ত পন্য সামগ্রীর মান ভাল।
  • পন্য সামগ্রী কোন কোন দোকানে একদরে বিক্রয় হয়। আবার কোন কোন দোকানে দর কষাকষি করে ক্রয় করতে হয়।
  • এখানে সাধারনত উচ্চ বিত্ত, মধ্যবিত্ত এবং নিম্ন মধ্যবিত্ত শ্রেনীর ক্রতাগন কেনাকাটা করতে আসেন।
  • এখানে ক্যাশের সাথে সাথে ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমেও খরচ পরিশোধ করা যায়।

 গাড়ী পার্কিং ব্যবস্থা

  • এখানে গাড়ী পার্কিং এর নিজস্ব ব্যবস্থা রয়েছে। নিজস্ব পার্কিং ব্যবস্থাপনায় ৪০ টি গাড়ী পার্ক করা যায়। সামনের রাস্তায় এবং ফুটপাতে আরো ২০ টি গাড়ী রাখার সুবিধা রয়েছে।

 টয়লেট ব্যবস্থা

  • টয়লেট সুবিধা রয়েছে।
  • এখানে প্রত্যেকটি ফ্লোরে পুরুষ এবং মহিলাদের পৃথক টয়লেট ব্যবস্থা রয়েছে।
  • সার্বক্ষনিক টয়লেট পরিচ্ছন্ন রাখা হয়।

 এক্সিলেটর সুবিধা

  • এখানে এক্সিলেটর সুবিধা রয়েছে। এক্সিলেটর এর সংখ্যা ২ টি।

নিরাপত্তা ব্যবস্থা

  • এখানে নিরাপত্তার জন্য সিসিটিভি বা সিকিউরিটির ব্যবস্থা রয়েছে। তবে এখানে নিজস্ব একদল প্রশিক্ষিত ও চৌকস সিকিউরিটি গার্ড রয়েছে, মার্কেটের সার্বিক নিরাপত্তার দায়িত্ব তারা খুবই দক্ষতার সাথে পালন করে আসছে।

ওযু এবং নামাজের ব্যবস্থা

  • এখানে ওযু এবং নামাজের ব্যবস্থা আছে।

খোলা/বন্ধের সময়

  • সকাল ৯.৩০ টা থেকে রাত ৮.৩০ টা পর্যন্ত খোলা থাকে।

ভিড় এড়াতে চান

  • প্রতিদিনই ভিড় হয়।  সকাল ১০.৩০ টা থেকে দুপুর ২.৩০ টা পর্যন্ত এবং সন্ধ্যা ৫.৩০ টা থেকে রাত ৭.৩০ টা পর্যন্ত একটু বেশী ভিড় থাকে।

গ্রীণ টাওয়ার শপিং কমপ্লেক্স

২০০৭ ইং সালে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। শপিং মলটি আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সম্পন্ন, নিজস্ব স্ট্যান্ডবাই জেনারেটর সুবিধাসহ শীতাতপ নিয়ন্ত্রীত ভবনে অবস্থিত। এখানে মোট দোকান সংখ্যা ৫৮ টি। দোকান মালিক সমিতি কর্তৃক শপিং মলটি পরিচালিত হয়।

লোকেশন

  • রামপুরা বিশ্বরোড সংলগ্ন ডি.আই.টি রোডে এই শপিং কমপ্লেক্সটি অবস্থিত।

যোগাযোগ

  • মোবাইল: ০১৭১৮-১৭৪৭৭১

পণ্যসামগ্রীর বিবরন

প্রথম তলা কসমেটিক্স, ফাষ্ট ফুড, ক্রোকারীজ, গিফট, গার্মেন্ট প্রভৃতি।
দ্বিতীয় তলা শাড়ী, থান কাপড়, মোবাইল, কম্পিউটার ইত্যাদি।

পণ্যসামগ্রীর মান, মুল্য এবং ক্রেতা

  • এখানে প্রাপ্ত পণ্য সামগ্রীর মান উত্তম।
  • পণ্য সামগ্রী কোন কোন দোকানে একদরে বিক্রয় হয়। আবার কোন কোন দোকানে দর কষাকষি করে ক্রয় করতে হয়।

গাড়ী পার্কিং ব্যবস্থা

  • এখানে গাড়ী পার্কিং এর নিজস্ব ব্যবস্থা নেই।

টয়লেট ব্যবস্থা

  • প্রত্যেক ফ্লোরে টয়লেট সুবিধা নেই।
  • মহিলাদের জন্য পৃথক টয়লেট ব্যবস্থা রয়েছে।
  • সার্বক্ষণিক টয়লেট পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখা হয়।

এস্কেলেটর সুবিধা

  • এখানে এস্কেলেটর সুবিধা নাই।

নিরাপত্তা ব্যবস্থা

  • মার্কেটটির নিরাপত্তার জন্য সিসিটিভি নেই। এছাড়া এখানে নিজস্ব একদল প্রশিক্ষিত ও চৌকস সিকিউরিটি গার্ড রয়েছে, মার্কেটের সার্বিক নিরাপত্তার দায়িত্ব তারা খু্বই দক্ষতার সাথে দায়িত্ব পালন করে আসছে।

নর্থ টাওয়ার

২০০২ সালে উত্তরা ৭ নম্বর সেক্টরে নর্থ টাওয়ার চালু হয়। ১৩ তলা ভবনের নিচের দিকে ছয় তলা জুড়ে কেন্দ্রীয়ভাবে শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত এই মার্কেটটি পরিচালিত হচ্ছে। ওপরের দিকে বিভিন্ন অফিসের অবস্থান। মার্কেটটিতে ঢোকা এবং বের হওয়ার জন্য আলাদা আলাদা পথ রয়েছে।

অবস্থান ঠিকানা

উত্তরার হাউজ বিল্ডিং বাস স্টপেজ চৌরাস্তার পশ্চিম দিকে রাস্তা সংলগ্ন স্থানে মার্কেটটির অবস্থান।

ঠিকানা-১০৭, সেক্টর# ৭, উত্তরা, ঢাকা।

সাপ্তাহিক ছুটি = বুধবার এই মার্কেটের সাপ্তাহিক ছুটি।

এখানে যেসব পণ্য পাওয়া যায় ঘড়ি, কসমেটিকস, খেলনা, শিশু পোষাক, শাড়ি, থ্রি পিস, জুতা, প্যান্ট, শার্ট, পাঞ্জাবি, জুয়েলারি, মোবাইল ফোন, সিডি প্রভৃতি পাওয়া যায়। বিদেশে তৈরি অনেক পণ্যও এই মার্কেটে পাওয়া যায়। এগুলো প্রধানত চীন, ভারত, থাইল্যান্ড, মালেয়েশিয়া প্রভৃতি দেশের পণ্য সামগ্রী। ভালো পরিবেশ ও গুণগত মানের জন্য প্রধানত উচ্চমধ্যবিত্ত ও উচ্চবিত্ত শ্রেণীর ক্রেতারা  এখানে কেনাকাটা করতে আসেন।

বিভিন্ন পণ্যের মূল্য

কাজ চালিয়ে নেবার মত ঘড়িগুলো ৫০০ থেকে ১০০০ টাকায় পাওয়া যায়। আর দামী সৌখিন ঘড়িও পাওয়া যায় এখানে। সেগুলোর দাম এক লাখও পেরোতে পারে। একতালায় Time Zone এর দোকান আছে, এটি একদরের দোকান। থ্রি-পিসের দাম ৩,০০০ টাকা। তবে দামী থ্রী পিসের মধ্যে ১৮,০০০ টাকার থ্রী পিসও আছে।

চতুর্থ তলায় Rich man, Dargi Bari, CATS EYE প্রভৃতি ফ্যাশন হাউজ আছে। কম দামী চাইনীজ মোবাইল ফোন সেটও পাওয়া যায়। এছাড়া সুপরিচিত ব্রান্ডের মোবাইল ফোনও পাওয়া যায়। ৬ষ্ঠ তলায় স্যামসাং ও নকিয়ার শো রুম আছে। মাঝেমধ্যে বিদেশী ক্রেতাদের আগমনও ঘটে এই মার্কেটে।

এই মার্কেটে কেবল খুচরা পণ্য বিক্রি হয়। পাইকারী ক্রেতারা এখানে আসেন না।

মৌসুমভেদে অন্যান্য মার্কেটের মত এই মার্কেটেও পণ্যের ধরণে পরিবরর্তন আসে। যেমন শীতকালে শীতবস্ত্র আর গরমকালে ঢিলেঢালা পোশাকের আধিক্য থাকে। আবার ঈদ, পূঁজা, বর্ষবরণ, বিজয় দিবস, বন্ধু দিবস প্রভৃতি উসৎবে ৫% থেকে ২০% পর্যন্ত ছাড় দেয়া হয়। আবার একটি পণ্য কিনলে আরেকটি পণ্য ফ্রি দেয়া সহ বিভিন্ন ধরনের অফার দেয়া হয়।

অন্যান্য সুবিধাদি

  • মার্কেটটির আন্ডারগ্রাউন্ডে গাড়ি পার্কিং সুবিধা আছে। সেখানে প্রায় ১০০ টি গাড়ি পার্ক করা যায়। সারাদিনের জন্য ২০ টাকা দিতে হয় পার্কিং চার্জ হিসেবে।
  • সপ্তম তলায় খাবারের জন্য ফুড কোর্ট আছে।
  • পুরুষ ও মহিলাদের জন্য আলাদা টয়লেট আছে।
  • ক্রেতাদের জন্য সিঁড়ির পাশাপাশি লিফটএর ব্যবস্থা আছে।
  • মার্কেটের প্রতিটি ফ্লোরে একাধিক অগ্নি নির্বাপণ যন্ত্র রয়েছে।
  • ক্রয়কৃত পণ্য ফেরত নেওয়া হয় না। তবে পণ্যটি অক্ষত থাকলে ৭ দিনের মধ্যে রশিদ দেখিয়ে বদল করে নেয়া যায়।

ইষ্টার্ণ প্লাজা

১৯৯২ সালের জানুয়ারী মাসে ইস্টার্ন প্লাজা যাত্রা শুরু করে। ঢাকা শহরের উন্নত মানের মার্কেটগুলোর মধ্যে ইস্টার্ন প্লাজা অন্যতম। শপিং মলটি আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সম্পন্ন, এস্কেলেটর সুবিধা, নিজস্ব স্ট্যান্ডবাই জেনারেটর সুবিধাসহ শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত এবং টাইলসে সজ্জিত ভবনে অবস্থিত।

ঠিকানা:

৭০ বীর উত্তম, সি আর দত্ত রোড ( সোনার গাঁও রোড) হাতিরপুল, ঢাকা ১২০৫।

ফোন নম্বর- ৮৬১৩৮৫২, ৯৬৭০৩৪৫, ৯৬৭০৩৪৬।

মোবাইল নম্বর- ০১৯১১২৮২৬৩৭

ওয়েবসাইট- www.easternplaza.com

অবস্থান:

  • শপিং মল মোতালেব প্লাজার উত্তর দিকের রাস্তা দিয়ে ১০০ গজ হাতের বাম পাশে এবং নাহার কম্পিউটার মার্কেটের বিপরীতে ইস্টার্ন প্লাজা শপিং সেন্টার অবস্থিত।

মার্কেট খোলার  সময় সুচি:

  • এই শপিং মলটি সকাল ৯.৩০ মিনিট থেকে রাত ৮ টা পর্যন্ত খোলা থাকে।
  • তবে ফাস্টফুড, ডাক্তার চেম্বারগুলো এবং মার্কেটের অফিস রাত ১০ টা পর্যন্ত খোলা থাকে ।
  • শপিং মলটির সপ্তাহের মঙ্গলবার পূর্ন দিবস বন্ধ থাকে।
  • এই শপিং মলের ৯নং ফ্লোরে ঘটক পাখি ভাই বসেন ।

শপিং মল ভবনের বর্ণনা:

  • মার্কেটটি ৯ তলা বিশিষ্ট এবং ৫ম তলা পর্যন্ত দোকান রয়েছে।

মার্কেটটির…..

  • ১ম তলা –  প্রসাধনী, ইলেকট্রনিক, থালা বাসন ইত্যাদির দোকান।
  • ২য় তলা –  শাড়ী, সেলয়ার কামিজ, টি-র্শাট, টেইলার্স ইত্যাদির দোকান।
  • ৩য় তলা – গয়না, সোনা, রূপা, ছোট বাচ্চাদের খেলনার দোকান।
  • ৪র্থ তলা – জুতার দোকান, বিভিন্ন ব্রান্ডের জুতার দোকান।
  • ৫ম তলা – মোবাইলের দোকান, এবং মোবাইল সার্ভিসিং করার দোকান।
  • ৬ষ্ট তলা – মার্কেট মালিক সমিতি অফিস।
  • ৭ম তলা – ডাক্তার চেম্বার।
  • ৮ম তলা – ডাক্তার চেম্বার, অফিস।
  • ৯ম তলা – ঘটক পাখি ভাই।

শপিং মলের প্রবেশ পথ:

  • এই শপিং মলের গ্রাউন্ড ফ্লোরের পুর্ব পাশে প্রবেশের মোট ৩টি গেইট রয়েছে। এছাড়াও আন্ডার গ্রাউন্ডের নিচে একটি প্রবেশ গেইট রয়েছে উত্তর-দক্ষিনে।
  • শপিং মলের প্রবেশপথের হাতের বামে দুটি লিফটের সাহায্যে যে কোন ফ্লেরে যাওয়া যায়।
  • তাছাড়াও শপিং মলের ১ম তলা থেকে ৫ম তলা পর্যন্ত চলন্ত সিঁড়ি রয়েছে।

অনুসন্ধান কেন্দ্র:

  • এই শপিং মলের অনুসন্ধান কেন্দ্রটি গ্রাউন্ড ফ্লোরের উত্তর-পূর্ব পাশে অবস্থিত। যোগাযোগ:  ফোন নম্বর: ৮৬১০২৫৯, মোবাইল; ০১৯১১২৮২৬৩৭
  • এছাড়াও শপিং মলটির ৫ম তলায় মার্কেট সর্ম্পকে বিভিন্ন তথ্য বা অভিযোগ দেওয়ার জন্য একটি কাস্টমার কেয়ার রয়েছে।

গাড়ী পাকিং ব্যবস্থা:

  • গাড়ী পাকিংয়ের জন্য শপিং মলটির আন্ডার গ্রাউন্ডে ব্যবস্থা রয়েছে। এখানে গাড়ী পাকিংয়ের জন্য খরচ দিতে হয়।
  • প্রাইভেটকার প্রতি ঘন্টা -৩০টাকা।
  • মোটর সাইকেল -১০টাকা।
  • প্রায় ২০০ গাড়ী র্পাকিং করা যায়।

ব্যাংক বুথ:

  • শপিং মলের প্রবেশপথের হাতের বামে ডাচ-বাংলা ব্যাংক বুথ অবস্থিত এবং ৩য় তলায় উত্তরা ব্যাংকের শাখা সহ মানি এক্সচেঞ্জ ব্যবস্থা রয়েছে। মার্কেটটির পূর্ব পাশের রাস্তা দিয়ে ১০ গজ হাতের ডানে পূবালী ব্যাংকের শাখা অবস্থিত।

নামাজের স্থান:

  • শপিং মলটির ৫ তলায় নামাজের জায়গা রয়েছে। মোটামুটি ১০০ জন একসাথে নামাজ পড়তে পারে। অজু ও টয়লেটের  সু-ব্যবস্থা রয়েছে।

ব্রান্ডের দোকান:

  • মার্কেটটিতে দেশী বিদেশী সকল প্রকার ব্রান্ডের দোকান ও শো-রুম রয়েছে।

লিফট ব্যবস্থা:

  • মার্কেটটিতে ২টি  বড় লিফট রয়েছে। লিফটগুলো মার্কেটের প্রবেশপথের দক্ষিন পাশের হাতের বামে অবস্থিত। লিফটগুলোর ধারণ ক্ষমতা ২০ জন। মার্কেটের মাঝখানে দুটি চলন্ত সিড়ি রয়েছে।  যা দিয়ে ১ম তলা থেকে ৫ম তলা পর্যন্ত উঠা নামা করা যায়।

টয়লেট ব্যবস্থা:

  • শপিং মলের প্রত্যেক ফ্লোরে পুরুষের জন্য তিনটি এবং মহিলাদের জন্য ৩টি, মোট ৬টি করে টয়লেট রয়েছে। টয়লেট টিস্যু এবং হ্যান্ড ওয়াশ দেওয়া হয়। সার্ভিস চার্জ ৫ টাকা।

অগ্নি নির্বাপন ব্যবস্থা:

  • শপিং মলটিতে ৫০ জন প্রশিক্ষিত লোকের একটি ফায়ার ফাইটিং টিম আছে। পর্যাপ্ত পরিমান অগ্নি নির্বাপন সরঞ্জাম আছে। এছাড়াও এর্মাজেন্সি এক্সিটের ব্যবস্থা রয়েছে।

নিরাপত্তা ব্যবস্থা:

  • নিরাপত্তার জন্য শপিং  মলটিতে ১২০ জনের নিরাপত্তা কর্মী রয়েছে। প্রতি ফ্লোরে সি. সি. ক্যামেরা রয়েছে। শপিং মলে মেটাল রানওয়ে ডিটেক্টর এবং হ্যান্ড ডিটেক্টর ব্যবহার করা হয়।

অন্যান্য:

  • শপিং মলটি সম্পূর্ণ শীততাপ নিয়ন্ত্রিত, পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতার কাজে নিয়মিত ৫০ জন লোক কাজ করে।

বিদ্যুৎ ব্যবস্থা:

  • শপিং মলটিতে নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ ব্যবস্থা রয়েছে। নিরবিচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সরবসাহের জন্য জেনারেটর ব্যবহার করা হয়।

পণ্য সামগ্রীর মান মূল্য:

  • এই শপিং মলটিতে উন্নতমানের পন্য পাওয়া যায়। এখানে ধনী, মধ্যবিত্ত এবং স্বল্প আয়ের সকল শ্রেনীর মানুষজন কেনাকাটা করতে আসে।

যোগাযোগ ব্যবস্থা:

  • মার্কেটটির যোগাযোগ ব্যবস্থা বেশ ভাল। যে কোন পরিবহনে আসা-যাওয়া করা যায়।

ইস্টার্ন প্লাজার দোকান সমুহের নাম ফোন নম্বর:

ইস্টার্ন প্লাজা

৭০ বীর উত্তম, সি আর দত্ত রোড(সোনার গাঁও রোড)

হাতিরপুল,ঢাকা ১২০৫

ফোন:৮৬১৩৮৫২, ৯৬৭০৩৪৫, ৯৬৭০৩৪৬।

মোবাইল:০১৯১১২৮২৬৩৭

ওয়েব সাইট: www.Eastern Plaza. com

১ম তলা:

দোকানের নাম ঠিকানা মোবাইল নম্বর
শেফা গার্ডেন দোকান: ১/৩৬, মোবা: ০১৮১৭০৬৬৯৮১, ফোন: ৮৬১৮৪২২
রূপাঙ্গন দোকান: ১/২২, মোবা: ০১৮১৮৯৯০৩২১
অপরূপা দোকান: ১/১০, ফোন: ৯৬৬২৭৮১
তাজমহল দোকান: ১/৬২, মোবা: ০১৭১৫০০৯১৪৯
কাশফুল দোকান: ১/৮৮, মোবা: ০১৮১৮০৩০১৯৫
জোত্যিস দোকান: ১/৩৪, মোবা:০১৮১৭৬০৭১৭৩
ইমাজিনেশন দোকান: ১/৭৮, মোবা: ০১৬৭৫৩০৩১৮৬
টয়র্মাট দোকান: ১/৯০, মোবা: ০১৭২৭২১৪৯৭৯ ফোন: ৯৬১৫৩১৬,
হ্যাপি দোকান: ১/৭৯, মোবা: ০১৯১২৮০৭০৯
পারফেক্ট চয়েস ভ্যারাইটিজ শপ দোকান: ১/২৮, মোবা: ০১৭১২২৪২২৪২
ছোঁয়া মনি বেবী কর্ণার দোকান: ১/৭৬, মোবা: ০১৭১৭৫৭১৪৩১
জোয়া মনি বেবী কর্ণার দোকান: ১/৭০, মোবা: ০১৯১১২১৫৪৬২
এশিয়া পাঞ্জাবী এবং স্লিপার দোকান: ১/২১, মোবা: ০১৭২৮৯৮২৩৩০, ফোন: ৯৬৭৬৮৫৮
নিউ কচি কর্ণার দোকান: ১/৭৫, মোবা: ০১৯১৪২১৯৭১৬
চঞ্চল এক্সক্লুসিভ পাঞ্জাবী ওয়ার দোকান: ১/১৫, মোবা:
মেলা দোকান: ১/৭৭, মোবা: ০১৯১১৫৮৪৮২৬, ফোন: ৮৬২৯৫৬৮
হামিদ এন্ড কোং *দোকান: ১/৬০, মোবা: ০১৯১৪৪৮৭৪০, ফোন: ৮৬৩১৯৭২
আহেলী বিবাহের পাঞ্জাবী সংগ্রহ শালা দোকান: ১/২০, ফোন: ৮৬২১৮৫২
ইব্রাহীম এন্টার প্রাইজ দোকান: ১/৩৪, মোবা: ০১৮১৭৬০৭১৭৩
সজীব গিফ্ট্স কর্ণার দোকান: ১/৫৬, মোবা: ০১৭১৫০০৯১৪৯
তাজ রূপাঙ্গন দোকান: ১/২২-A, মোবা: ০১৮১৮৯৯০৩২১
টি মার্ট গ্রুপ দোকান: ১/২৯, মোবা: ০১১৯০৭২৬৭০৩
জারদা এন্টার প্রইজ দোকান: ১/২৯-B,মোবা: ০১১৯০৭২৬৭০৩

২য় তলা:

দোকানের নাম ঠিকানা মোবাইল নম্বর
মায়ের আচল দোকান: ২/১০, ফোন: ৮৬৫২৬৫২
এস কে টাঙ্গাইল শাড়ি কুটির দোকান: ২/২৩ ফোন:  ৯৬৬০১৩৭
দোয়েল সিরিজ দোকান: ২/৪২-৪৩, মোবা: ০১৭৩১৭৪৩৩৩১
নিউ লুক ফ্যাশান টেইলার্স দোকান: ২/৬০, মোবা: ০১৯২২৪৫৮৪৪, ফোন: ৮৬২৮৪৫৯
নারী ভূশন দোকান: ২/৫১, মোবা: ০১৭৪৫৬৬১৮৮৮
মাহতাব ফেব্রিক্স দোকান: ২/৬৭, ফোন: ৯৬৭৬০৮১
বৈশাখী শাড়ী দোকান: ২/৯,   ফোন:  ৮৬১৫৭২৭
নারী বরন দোকান: ২/৩৪, মোবা: ০১৭১৫৮৬৩৯৩৩
মেধা ফেব্রিকস্ দোকান: ২/৬৯, মোবা: ০১৯২৯৩৫২২৬২
বর্ণলী শাড়ী বিপনী দোকান: ২/৩৫, মোবা: ০১৮১৭০৭৮১৫৬
কনক দোকান: ২/৭০, ফোন:  ৮৬১১২৬৭
নেক্সট ফ্যাশন দোকান: ২/৬২, মোবা: ০১৯১১৫৪৪৫৭৭
সুবর্ন লেডিস টেইলার্স দোকান: ২/৬১, মোবা: ০১৭১৬৫৫২৪৩৭
সিয়াম শাড়ি দোকান: ২/৪৪, মোবা: ০১৯২৪৭৭৭৯২৭
ইত্যাদি ফেব্রিকস্ দোকান: ২/৫৭, মোবা: ০১৭১৮৫২০০০৬
নুসরাত শাড়ী দোকান: ২/৩৩, মোবা: ০১৭১৬৯৩৪০২৫
সিদ্দিক শাড়ী বিতান দোকান: ২/২৪, মোবা: ০১৭১৩০২৫৫৪৯
নীলা আচল শাড়ীজ দোকান: ২/২৫,২৬,২৭,২৮, মোবা: ৯৬১৩৮৭১,
রূপসি শাড়ী দোকান: ২/৬, ফোন:  ৮৬৫১৪৫২
অঞ্জন দোকান: ২/৮, ফোন:  ৮৬৫২৬৫২
নববধু শাড়ী দোকান: ২/৭, ফোন:  ৮৬৫১৪৫২
জ্যোতি দোকান: ২/১৮,১৯, ফোন: ৮৬১৪২৬৭
রংগুলি সিল্ক হাউজ দোকান: ২/৩২, মোবা: ০১৮৩৫৫৩৩০০৬
নীল আচল শাড়ীজ দোকান: ২/২৮, ফোন:  ৯৬১৬৮৭৩
নীল আচল শাড়ীজ দোকান: ২/২৬, ফোন:  ৯৬১৬৮৭১
জামান শাড়ী দোকান: ২/১০-B ফোন:  ০৮৬৫২৬৫২
জাহাঙ্গীর শাড়ীজ দোকান: ২/৩৩-B, মোবা: ০১৭১৬৯৩৪০২৫
তৌহিদ ফ্যাশন দোকান: ২/৬৫-B,মোবা: ০১৭১৪৮২২৩৭০
মিজান ফ্যাশন দোকান: ২/২, মোবা: ০১৯১৬৫৮০৩৮৬
ঈশা টেইলার্স দোকান: ২/৬০, মোবা: ০১৯২২৪৫৫৮৪৪
মনেরেখ দোকান: ২/১৭, ফোন:  ৮৬১৩০৬৫
মারুফ ফ্যাশন দোকান: ২/৩১-B, মোবা: ০১৬৭৪৩৩৪৪৬৯
মাসুদ ফেব্রিক্স দোকান: ২/৫৭-B, মোবা: ০১৬৭৩২০৪৩৫৬
ইসরাফিল টেইলার্স দোকান: ২/৬২-A , মোবা: ০১৯১১৫৪৪৫৭৭
আধুনিক শাড়ি বিপনী দোকান: ২/৪১, ফোন:  ৮৬১০২৫৯
জামাল ফেব্রিক্স দোকান: ২/৬৯-B, মোবা: ০১৭১১১০৭৬৭০
সাজি দোকান: ২/৪৭, ফোন: ৮৬২২১৪৮
মাসুদ ফ্যাশন দোকান: ২/১, মোবা: ০১৬৭৩২০৪৩৫৬
মনেরেখ দোকান: ২/১৫,১৭, ফোন: ৮৬১৩০৬৫
দীন সিল্ক হাউজ দোকান: ২/৩২-A, মোবা: ০১৮২৫৫৩৩০০৬
সিল্ক হাউজ দোকান: ২/৫০, ফোন: ৯৬৭৬১৯৮
ঘোমটা দোকান: ২/৪৮, মোবা: ০১৭১৫০৭৩৩৫২
অঞ্জলী দোকান: ২/৪৯, মোবা: ০১৭১৫০৭৩৩৫২
মাহি ফেব্রিক্স দোকান: ২/৬৮, মোবা: ০১৭১৮৫২০০০৬
পায়েল ফ্যাশন দোকান: ২/৩১, ফোন: ০১৬৭৪৩৩৪৪৬৯
নিউ এঞ্জেল ২/৪৫, দোকান: ২/৪৫, ফোন: ৮৬৫২০৬৩
স্টার ম্যাচিং সেন্টার দোকান:  ২/৫৬, মোবা: ০১৭১৫৪২৭৮২১
চন্দরিকা শাড়ী দোকান: ২/৫৫, মোবা: ০১৯১৩২২২৭৪৮
আলাউদ্দিন টেইর্লাস দোকান: ২/৬১-B, মোবা: ০১১৯০৬৫৩৫৪৭
ফাল্গুনী দোকান: ২/৬৩,৬৬,৭৩,৭৬, মোবা: ০১৭৬৬৯৬২১৩৪
মবারাহ শাড়ী বিপনী দোকান: ২/৩৫, মোবা: ০১৮১৭০৭৮১৫৬
ইলিয়াস ফেব্রিক্স দোকান: ২/৬৭-A, ফোন: ৯৬৭৬০৮১
লামিহা শাড়ীজ দোকান: ২/১৩, ফোন: ৮৬২২৫৭৪
ঘোমটা দোকান: ২/৪৮, মোবা: ০১৭১৫০৭৩৩৫২

৩য় তলা:

দোকানের নাম ঠিকানা মোবাইল নম্বর
তন্ময় দোকান: ৩/৫৯, মোবা: ০১৭৩২০৬৮৮৪৭
মাহমুদ দোকান: ৩/১৬, মোবা: ০১৭১১০৫৬৫৯৯
অরিন ফ্যাশন দোকান: ৩/৩৭, মোবা: ০১৬৭১৪০৬৭৩৪
সানডে ফ্যাশন দোকান: ৩/১১, মোবা: ০১৭১১৯৭৪১০৬
অরনিমা ফ্যাশন দোকান: ৩/৩২, মোবা: ০১৬১১৭০৪০৪০
মারভেলাস দোকান: ৩/৪৫, ফোন: ০১৭১৭৮৮২২৩৩
মেলা দোকান: ৩/৩৫, ফোন: ৯৬৬৩৬৩০
ফাল্গুনী দোকান: ২/৬৩,৬৬,৭৩,৭৬, মোবা: ০১৭৬৬৯৬২১৩৪
তনিমা ফ্যাশন দোকান:৩/১২, ফোন: ৯৬৬২০০৬
দ্যা রেইন দোকান: ৩/৫৪, ফোন: ৯৬৬৬৩২১
মেরী কুইন দোকান: ৩/৪, ফোন: ৮৬১৪৬৩৭
নূর ফ্যাশন দোকান: ৩/৪৬, মোবা: ০১৯১২১৩৩৩৬৯
এমি ফ্যাশন দোকান: ৩/৮৯, মোবা: ০১১৯৩১১৭০৮৬
বেটার চয়েজ দোকান: ৩/১,২, মোবা: ০১৭২০৩৪৩৬২৪
তুহিন প্লাজা দোকান: ৩/১০, মোবা: ০১৭১৫০২৩৫৩৪
আফরিন ফ্যাশন দোকান: ৩/৭, মোবা: ০১৬৭৬২৪২৭৫৪
পরিধান দোকান: ৩/৫২, ফোন: ৮৬২৭৪৩৮
মি: এবং মিসে: দোকান: ৩/৩, মোবা: ০১৮১৬৫৬৪৬২৩
বর্ণালী দোকান: ৩/২২, ফোন: ৮৬১৪৬৩৭
নিহারিকা দোকান: ৩/৩০, ফোন: ৯৬৬৮১০৬
ইমরান ফ্যাশন দোকান: ৩/৫০, ফোন: ৯৬৬৫৯৯০
রেইনবো দোকান: ৩/৪৯, ফোন: ৯৬৭২৭০১
টম এবং জেরি দোকান; ৩/৫৫, ফোন: ৯৬৭৩৪৭৪
ফাইজা ফ্যাশন দোকান: ৩/৬১, মোবা: ০১৭১০৮৮২৮৫৯
চাইল্ড জোন দোকান: ৩/৫৮, মোবা:
এ্যাচিভ পয়েন্ট দোকান: ৩/৬০, মোবা:০১৯১৪৮০৮৫০২
ইখতা ফ্যাশন দোকান: ৩/৬,৩/৩২, মোবা: ০১৭১৫০২৩৭৬০
ওমেন্স ওয়ার্ল্ড দোকান: ৩/৬, ৩/৩২, মোবা: ০১৭১৫০২৩৭৬০, ফোন: ৯৬৭৭০১৪
মেমরী দোকান: ৩/৯৪, মোবা: ০১৭১১৫৬৮০৮৩
তামীম ফ্যাশন দোকান: ৩/৯৫, মোবা: ০১৭৩২৪৩৮৭৭৭
নিশাত ফ্যাশন দোকান: ৩/৮৮, মোবা: ০১৯১১২১২৯২৫
পিংকি ফ্যাশন দোকান:  ৩/৫৭, মোবা: ০১৯১১৯৮১৯৩১
রিভঅলি দোকান: ৩/৭৯, মোবা: ০১৭১১৫৬৮০৮৩
আফরিন কালেকশন দোকান; ৩/৭৩, মোবা:: ০১৭৩১৫১১৬২২
চমক দোকান: ৩/৭১, মোবা:
ফেয়ার এবং কেয়ার দোকান: ৩/২৫,মোবা:
ফ্যাশন ওয়ার্ল্ড দোকান: ৩/৪৩, ফোন: ৯৬৭১৬৬১
ফ্রেশিয়া মেনস ওয়ার দোকন: ৩/২৪, মোবা:
মুন ইমু দোকান: ৩/১৯, মোবা:
জারা দোকান: ৩/৩৬, মোবা: ০১৯১১১০৩৭৫৬
কিমিয়া দোকান: ৩/১৭, ফোন: ৯৬৭০৫৩৩
দারুন কালেকশন দোকান: ৩/৩৪, ফোন: ৯৬১২৩৬৪
লিন হারা দোকান: ৩/১৫, মোবা:০১৭৬৫৫৪৫১৬০
জান্নাত কালেকশন দোকান: ৩/৯৮, ফোন: ৯৬১২৩৬৪
ওয়াল মার্ট দোকান: ৩/৩৮,৩৯, মোবা: ০১৭২০৫৪৫৫০৭, ০১৮১৮৯৯৯৩৫৭
সিমা ফ্যাশন দোকান: ৩/৪১, ফোন: ৮৬১৩৮৬৯
নেয়াজ ফ্যাশন দোকান: ৩/৯২, ফোন: ৮৬২১৪৮১
ডিসকভারী দোকান: ৩/৯৩, মোবা: ০১৭১১৫৬৮০৮৩
জান্নাত ফ্যাশন ওয়ার্ল্ড দোকান: ৩/৮৬, ফোন: ৯৬৭০৪৫০,০৪৬৮৬০৯৭৩০৪
সামিহা ফ্যাশন দোকান: ৩/৭২, মোবা: ০১৬৭৬৮২৭২৫৬
স্টার ওয়ার্ল্ড দোকান: ৩/৯৭, ফোন: ৯৬৬৩৬৩০
মারভেলাস দোকান: ৩/৪৫, মোবা: ০১৭১৭৮৮২২৩৩
রবিন ফ্যাশন দোকান: ৩/৭৪,৭৫, ফোন: ৯৬৬৮৫৯৭

৪র্থ তলা:

দোকানের নাম ঠিকানা মোবাইল নম্বর
সোহানা জুয়েলার্স দোকান: ৪/৪৭, মোবা: ০১৭২৭০১১৮১৫, ফোন: ৮৬৩১৭৬৪
নিপুণ জুয়েলার্স দোকান: ৪/১৯, মোবা: ০১৮১৯৪৬৯২৬৩, ফোন:  ৯৬৭২৬৭৫
সিমেক্স লেদার হাউজ দোকান; ৪/৭৯, মোবা: ০১৭১২৬১৬৩৫৮
ক্লাসিক ভিশন দোকান: ৪/৬৬, মোবা: ০১৭১৩০৩৩৯৬১
ডায়মন্ড বেল সুজ দোকান: ৪/৬৭, মোবা: ০১৯১২৬০৪৬২৬, ০১৯১৮৯৫৯৫০২
এম এম লেদার দোকান: ৪/৬৮, মোবা: ০১৯১২২৬৫৫২২, ফোন: ৮৬৫১২০২
আশিক লেদার দোকান: ৪/৮৮, মোবা: ০১৭১১৯৫৫২৩১, ০১৬১১৯৫৫২৩১
লেদার কটেজ দোকান: ৪/৮৬, মোবা: ০১৭১৫১১০৯৪৬, ফোন: ৭১৬৩২০৮
এ টি এস লেদার কমপ্লেক্স দোকান: ৪/৩৯, মোবা:
ইভা সুজ দোকান: ৪/৮৪, মোবা: ০১৭৬৩৭০১৭৮৮
মাদরাজ ট্রেনিং লেদার এবং লেদার গুডস দোকান: ৪/৮০, মোবা: ০১৮২৯০২৫০৩০, ফোন: ৮৬১৬৯৬৫
সুকন্যা জুয়েলার্স দোকান: ৪/৫৬, মোবা: ০১৬৮৩৬৪৪৪৩১
শাওন লেদার দোকান: ৪/৭১, মোবা: ০১৭১২৭২৩৭৫৫
লেদার গুড ইনভেটিভ বুটিকস দোকান: ৪/৮৯, মোবা: ০১৭৪৮৮৩৭৪৩০
আলিফ লেদার গুডস দোকান: ৪/৯৫, মোবা: ০১৯১৩১৩২৪১৪
হিমালায়া সুজ দোকান: ৪/৭০, ফোন: ৯৬৭৭২২২৩
তিশা জুয়েলার্স দোকান: ৪/১৭, মোবা: ০১৭১২৩৮২৬৬৭, ০১৭৫৭৪৮৫৪৬৫
নিটন জুয়েলার্স দোকান: ৪/২৫, ফোন: ৯৬৬৯২২৬
ফ্লেক্স সুজ দোকান: ৪/৩৭, মোবা: ০১৯১১১১৯৬১৬, ফোন: ০২৯৬৬৪২৫৫
গোলাপ সুজ দোকান: ৪/৯৭, মোবা: ০১৯১৪৯২৮৩৯৭
ফারিয়া লেদার দোকান: ৪/৯৩, মোবা: ০১৭২৭৫২২০৬১

৫ম তলা:

দোকানের নাম ঠিকানা মোবাইল নম্বর
টোকিও টেলিকম দোকান: ৫/৩,   মোবা: ০১৭১৮৩৪২০৬৩
নোকিয়া দোকান: ৫/৫,   মোবা: ০১৭৭১৭৭৭৭০৩, ফোন: ৯৬৭৪৭৫২
সনি এরিক্সন দোকান: ৫/৩২, মোবা: ০১৯১২৬৮৪৭১১
এইচ আর টেলিকম দোকান: ৫/৫৯, মোবা: ০১৭১৪০১৭৫৭৭
গ্লোবাল মিডিয়া দোকান: ৫/২৯, মোবা: ০১৭৫৪৫৯৮২২৫
অপটিক্যাল পেলেস দোকান: ৫/৮০, মোবা: ০১৭১৬৯০২৯৯৯
মা ইলেকট্রনিক্স দোকান: ৫/৫৬, মোবা: ০১৭১২১৭৫৮৯৮, ০১৭১৮৯০২৯৭৫
নোকিয়া দোকান: ৫/৫৮, মোবা: ০১৬৮৩২১৪১৮১, ০১৮১৩১৯৫৩৯২
শাহেদ ইলেকট্রনিক্স(বাংলা লিংক পয়েন্ট) দোকান: ৫/১৭, মোবা: ০১৭১৩০৬৮৮৫০
সনি ইলেকট্রনিক্স দোকান: ৫/১৪, মোবা: ০১৭১৪২৬৩২৬৩
পিকু মোবাইল দোকান: ৫/৯৩, মোবা: ০১৭১২২৯২২৪২
অনামিকা ইলেকট্রনিক্স দোকান: ৫/৯৫, মোবা: ০১৭১৮৫৫৬৭৩৭
কালাম ইন্টার ন্যাশানাল টেলিকম দোকান: ৫/৭৫, মোবা: ০১৭১৯৫২২৫২২
নাজির টেলিকম দোকান: ৫/৪৫, মোবা: ০১৭১০৮২৮১০৯
আলম ইলেকট্রনিক্স দোকান: ৫/৮১, মোবা: ০১৯৪৭১১৭৫২০
শোভা ইলেকট্রনিক্স দোকান: ৫/১৯, মোবা: ০১৭১১৯৭৮২১৪
আলভি টেলিকম দোকান: ৫/১৫, মোবা: ০১৯১৭৭৫২০০৮
টাচ ইলেকট্রনিক্স দোকান: ৫/৩১, মোবা:০১৭১২২৯২২৪২
সেজান ইলেকট্রনিক্স দোকান: ৫/৮,   মোবা: ০১৯১১৩৫৭০৪২
নূর টেলিলিংক দোকান: ৫/৭৭, মোবা: ০১৯১৩১৩০৫০৫
এন টেলিকম দোকান: ৫/৮৩, মোবা: ০১৭৩১৬৬২২২২
ইর্স্টাণ মোবাইল দোকান: ৫/৫৩, মোবা: ০১৬৮৩২২৫২৪৩, ০১৯৪৯০৯৯৮৭৮
আল ইসলাম মোবাইল দোকান: ৫/২৭/A, মোবা: ০১৮৩৩০৫৫৭৭৭
রাইহান ইন্টারপ্রাইজ দোকান: ৫/১৮,    মোবা: ০১৭১৬২৩০৩৯৪
সামিহা ইন্টারপ্রাইজ দোকান: ৫/২৫,    মোবা: ০১৭১১৬৮৬০০০
প্রিন্স ওয়াচ দোকান: ৫/৭৯,    ফোন: ৯৬১২৩৯০
নোভা টেল দোকান: ৫/৩০,    মোবা: ০১৮১৮২০১৫৯০, ০১৮৩২২৭৪৭৪৭
ইওর ফ্যাশন দোকান: ৫/৭০,    মোবা: ০১৮১৯২৯১৫৭৬
নোকিয়া টেলিকম দোকান: ৫/৯,      মোবা: ০১৭৩২৫২৫০৬২
আর কে ইলেকট্রনিক্স দোকান: ৫/৫৪,    মোবা: ০১৭১২৬৬৬৬৬১
এস এস টেলিকম দোকান: ৫/১২,    মোবা: ০১৯২৬২৬৬৩০০

এলিফ্যান্ট রোড বিয়ের মার্কেট

মানবজীবনের প্রধান তিনটি অধ্যায় হল জন্ম, মৃত্যু ও বিয়ে। বিয়ে মানেই একটি আনন্দঘন মুহুর্ত। বিয়ের প্রধান কেন্দ্রবিন্দু বর ও কনে। বিয়ের অনুষ্ঠানিকতা নিয়ে আত্মীয় স্বজনদের মধ্যেও থাকে ব্যাপক পস্তুতি। কেনাকাটা বিয়ের অনুষ্ঠান সম্পাদন জন্য অত্যান্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। আমরা যারা ঢাকাবাসী অনেকেই বিয়ের কেনাকাটার জন্য সঠিক স্থানের সন্ধান না পাওয়ার কারণে, বেশিদামে কিংবা অনেক আইটেম সম্পর্কে না জানার জন্য কেনাকাটা সঠিক হয়ে ওঠেনা। বিয়ের কেনাকাটা সম্পর্কে কিছু তথ্য তুলে ধরা হল।

ঢাকা শহরে বিভিন্ন মার্কেট ও পাড়া মহল্লায় অল্প কিছু বিয়ের দোকান বিদ্যমান। এলিফ্যান্ট রোডে ৩০টির অধিক বিয়ের দোকান আছে। আর হিন্দুদের বিয়ের জন্য শাঁখারী পট্টির প্রায় পুরোটা জুড়ে রয়েছে অগনিত দোকান। আর পাইকারী কেনার জন্য ঢাকার চক বাজারে বেশ কতগুলো দোকান রয়েছে।

একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে সাধারণত যে সব পন্যের দরকার হয় এবং দাম কেমন সে সম্পর্কে জেনে নেয়া যাক-

আইটেম মূল্য
বরের শেরওয়ানি ১০০০০/- থেকে ৩০০০০/- টাকা
পাজামা ৫০০/- থেকে ১০০০/- টাকা
ওড়না ৭০০/- থেকে ১৫০০/- টাকা
পাগরী ১৫০০/- থেকে ৩০০০/-টাকা
নাগরজুতা ১৫০০/- থেকে ৬০০০/- টাকা
ডালা ২২০/- থেকে ৭০০/- টাকা
কুলা ১২০/- থেকে ৬০০/- টাকা
বাটি/প্রদীপ ১০/- থেকে ৫০/- টাকা
রাখী ৬০/- থেকে ১২০০/- টাকা
উপটান ৯০/- থেকে ১২০/- টাকা
সোন্দা ৯০/- থেকে ১২০/- টাকা
চন্দন ১২০/- থেকে ২০০/- টাকা
হলুদ ৯০/- থেকে ১২০/- টাকা
চন্দন তেল ১৫০/- থেকে ৩০০/- টাকা
সোহাগপুরী ৩৫০/- থেকে ৯৫০/- টাকা
আলতা ৩০/- থেকে ৬০/- টাকা
মেহেদী ৪০/- থেকে ১২০/- টাকা
পাটি ১৫০/- থেকে ১৬০০/- টাকা
হলুদ তোয়ালে ১২০/- থেকে ৪৫০/- টাকা
আফসান ২০/- থেকে ৩০/- টাকা
রুমাল ৫০/- থেকে ৩৫০/- টাকা
পালকি ১৫০/- থেকে ৬০০/- টাকা
ঝুড়ি ১০০/- থেকে ৭৫০ টাকা
মাছ ডালা ২৫০/-  থেকে ১২০০/- টাকা
টুথ পিক ২০/- থেকে ৫০/- টাকা
তাজা গোলাপ ফুল প্রতি হাজার পিস ৩০০০ টাকা প্রতি পিস ৫ থেক ১০ টাকা
সাদা ফুল প্রতি হাজার পিস ১২০০ টাকা প্রতি পিস ৪ থেক ৬ টাকা
রজনী গন্ধা প্রতি হাজার ২২০০ টাকাপ্রতি পিস ৫ থেকে ১০ টাকা।

হিন্দু বিয়ের যাবতীয় কেনা কাটা করা যাবে শাঁখারী পট্টিতে। এখানে দেশী পাশাপাশি ভারতীয় পণ্যের পণ্যের ব্যাপক প্রতাপ। মূল্যও তুলনামূলকভাবে কম। শাঁখারী পট্টিতে শোলার তৈরি পাগড়ি সহ বিভিন্ন আইটেম অর্ডার মাফিক বানানো ব্যবস্থা আছে।

বিয়ের পাইকারি বাজার

বিয়ের আইটেম সস্তায় কেনার জন্য চকবাজার পাইকারি মার্কেট একমাত্র উপায়। এখান থেকে সারা বাংলাদেশে পাইকারি বিক্রি হয়।

পাইকারী দরদাম

ডালা ও কুলা পাইকারি কেনা এবং বিক্রি হয় সেট হিসেবে (প্রতি সেটে থাকে তিনটি আইটেম)। পিস হিসেবেও বিক্রি হয়। ছোট সেট ৪০০-৫০০, মাঝারি ৮০০-১০০০ ও বড় সাইজের দাম ১২০০-১৫০০ টাকা। আজকাল রঙিন কাপড়ে মোড়ানো কারুকার্যখচিত ডালা ও কুলার চাহিদা বেশি। পাইকারি হিসাবে প্রতি পাটির দাম কারুকার্যখচিত ৫০০-৫৫০, সাধারণ ২২০-২৫০ টাকা।

নাগরা জুতার মধ্যে পাকিস্তানি মাথা কাটা নাগরার দাম ৮০০ এবং মাথা বাঁকা নাগরার দাম ১১০০-১২০০ টাকা। দেশি নাগরার দাম সাধারণ মানের ৩০০ এবং কারুকার্যখচিতগুলো ৪০০-৫০০ টাকা। রাজস্থানী পাগড়ি ভারত থেকে কেনার সময় পাইকারি দাম সর্বনিম্ন ১০০০ এবং সর্বোচ্চ ২৫০০ টাকা। পাগড়ির মালামাল অনেক সময় ভারত থেকে এনে দেশে ফিটিং করা হয়, এতে রেট অনেক কম পড়ে।

শেরওয়ানি পাইকারি কেনার সময় ভারতে দম সাধরণ মানেরগুলো ৪০০০-৫০০০ এবং ভালো মানের ১০০০০-১২০০০ টাকা।

ভাড়া

বিয়ের সাজ-পোষাকের কিছু কিছু আইটেম ভাড়া দেয়া হয়।

আইটেম ভাড়া
শেরওয়ানী ৩০০০ থেকে ৮০০০/-
পাগড়ী  ৩০০ থেকে ৮০০/-

উল্লেখ্য

  • আমদানী ব্যয় কিংবা বিশেষ বিশেষ কারণে উল্লেখিত দামের হের ফের হতে পারে।
  • ভাড়া নেয়া শেরওয়ানী ওয়াশ করে ফেরত দিতে হয়।
  • পোষাক জাতীয় পন্য ক্রয়ের আগে ট্রায়াল দেবার ব্যবস্থা আছে।
  • ভিডিও, স্টিল ফটোগ্রাফি ও সাজসজ্জার দরকার হলে দোকানগুলোর মাধ্যমে যোগাযোগের ব্যবস্থা আছে।
  • ক্রয়কৃত পন্য ফেরৎ নেয়া হয় না।
  • নগদ টাকার মাধ্যমে ক্রয় করতে হয়।

কয়েকটি দোকানের নাম নিম্নরুপ

  • সানি জরি হাউজ-২, ২২৯, নিউ এ্যালিফ্যান্ট রোড, ফোন- ৮৬২৬৩৫৮, ৮৬২৩২৭২, মোবাইল- ০১৯২৩-৩৬৯৩৪২, ০১৭১০-৮২৬২৪৩, ০১৭৪১-৬৯২৭৪৯।
  • নবরুপ জরি হাউজ, ২২০ নিউ এ্যালিফ্যান্ট রোড (পেট্রোল পাম্পের বিপরীতে), মোবাইল- ০১৭১২-৬৫০১৬৯, ০১৬৭৩৪৯৬৯৮৪। সোনালী জরি হাউজ, ২২০, নিউ এ্যালিফ্যান্ট রোড, ফোন- ৮৬২৫৩৮৪।
  • বিয়ে শাদী, ২৩৪/১, নিউ এ্যলিফ্যান্ট রোড, মোবাইল- ০১৭১৫-৬৫৭৪৭০।
  • লগন-১, ২১৮/এ, নিউ এ্যালিফ্যান্ট রোড (বাটার মোড়), শেলটেক শিয়েরার বিপরীতে, মোবাইল- ০১৭১৫-৪২১৬৮৭।
  • রিলেশন, ২১৮/১ নিউ এ্যালিফ্যান্ট রোড ফোরাম মার্কেট (বাটার মোড়), মোবাইল- ০১৯২৩-২৮৯১৩৪, ০১৭৪৯-৫০৪৮০৬।
  • পাইকারির জন্য চকের খান মার্কেট, মরিয়ম প্লাজা সহ বেশ কয়েকটি মার্কেটে শত শত দোকান বিদ্যমান।

ইষ্টার্ণ মল্লিকা, এলিফ্যান্ট রোড

লোকেশন: ৩৪৬ এলিফ্যান্ট রোড,(এলিফ্যান্ট রোড থেকে বাটা সিগন্যাল এর বিপরীত দিক দিয় গাউসিয়া যাওয়ার পথে এটি অবস্থিত) ঢাকা।

শপিং মলটি আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সম্পন্ন, এস্কেলেটর সুবিধা, নিজস্ব স্ট্যান্ডবাই জেনারেটর সুবিধাসহ শীতাতপ নিয়ন্ত্রীত এবং টাইলস সজ্জিত নতুন ভবনে অবস্থিত। এখানে মোট দোকান সংখ্যা ১০৪০ টি। মালিক সমিতি কর্তৃক শপিং মলটি পরিচালিত হয়।

পণ্যসামগ্রীর বিবরন

প্রথম তলা কসমেটিক্স, ক্রোকারিজ, গিফট শপ, এশিয়ান স্কাই শপ এবং খাবারের দোকান ইত্যাদি।
দ্বিতীয় তলা মহিলাদের শাড়ী, লেডিস টেইলার্স ও থ্রী পিছ ইত্যাদি।
তৃতীয় তলা মহিলাদের শাড়ী, লেডিস টেইলার্স ও থ্রী পিছ ইত্যাদি।
চতূর্থ তলা পাইকারী শাড়ী, লেডিস টেইলার্স ও থ্রী পিছ ইত্যাদি।
পঞ্চম তলা মোবাইল শপ, এক্সেসরিজ ইত্যাদি।

পণ্যসামগ্রীর মান, মুল্য এবং ক্রেতা

  • এখানে প্রাপ্ত পন্য সামগ্রীর মান ভাল।
  • পন্য সামগ্রী কোন কোন দোকানে একদরে বিক্রয় হয়। আবার কোন কোন দোকানে দর কষাকষি করে ক্রয় করতে হয়।
  • এখানে সাধারনত উচ্চবিত্ত, উচ্চ-মধ্যবিত্ত এবং মধ্যবিত্ত শ্রেনীর ক্রেতাগন কেনাকাটা করতে আসেন।
  • এখানে ক্যাশের সাথে সাথে ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমেও খরচ পরিশোধ করা যায়।

গাড়ী পার্কিং ব্যবস্থা

  • এখানে গাড়ী পার্কিং এর নিজস্ব ব্যবস্থা রয়েছে। নিজস্ব পার্কিং ব্যবস্থাপনায় ৫০ টি এবং সামনের রাস্তায় এবং ফুটপাতে ৫ টি  গাড়ী পার্কিং করা যায়।  পার্কিং এর জন্য কোন চার্জ দিতে হয় ।

 টয়লেট ব্যবস্থা

  • টয়লেট সুবিধা রয়েছে।
  • এখানে প্রত্যেকটি ফ্লোরে পুরুষ এবং মহিলাদের পৃথক টয়লেট ব্যবস্থা রয়েছে।
  • সার্বক্ষনিক টয়লেট পরিচ্ছন্ন রাখা হয়।

 নিরাপত্তা ব্যবস্থা = সিসিটিভি নেই। তবে এখানে নিজস্ব একদল প্রশিক্ষিত ও চৌকস সিকিউরিটি গার্ড রয়েছে, মার্কেটের সার্বিক নিরাপত্তার দায়িত্ব তারা খু্বই দক্ষতার সাথে পালন করে আসছে।

 ওযু এবং নামাজের ব্যবস্থা = এখানে ওযু এবং নামাজের ব্যবস্থা আছে।

 খোলা/বন্ধের সময় = সপ্তাহের মঙ্গলবার বন্ধ থাকে। সকাল ১০.০০ টা থেকে রাত ৮.০০ টা পর্যন্ত খোলা থাকে।

ভিড় এড়াতে চান = শুক্রবার ভিড় হয়।

গাউসিয়া মার্কেট, ঢাকা

শপিং মলটি আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সম্পন্ন, নিজস্ব স্ট্যান্ডবাই জেনারেটর সুবিধাসহ শীতাতপ নিয়ন্ত্রীত এবং টাইলস সজ্জিত নতুন ভবনে অবস্থিত। এখানে মোট দোকান সংখ্যা ১০০০ (+) টি। মালিক সমিতি কর্তৃক শপিং মলটি পরিচালিত হয়।

 লোকেশন

  • নিউ মার্কেট এর বিপরীত দিকে এটি অবস্থিত।

পণ্যসামগ্রীর বিবরন

প্রথম তলা মহিলাদের রেডিমেড বিভিন্ন রকমের পোষাক, শাড়ী, থ্রী-পিস, ওড়না, কসমেটিক্স, শাড়ীর জরি, চুমকি, লেইস, জুতো/স্যান্ডেল (মেয়েদের জন্য), ব্যাগ ইত্যাদি।
দ্বিতীয় তলা মহিলাদের রেডিমেড বিভিন্ন রকমের পোষাক, শাড়ী, থ্রী-পিস, ওড়না, কসমেটিক্স, শাড়ীর জরি, চুমকি, লেইস, জুতো/স্যান্ডেল (মেয়েদের জন্য), ব্যাগ, লেডিস টেইলার্স, বুটিক শপ ইত্যাদি।
তৃতীয় তলা শাড়ী এবং থ্রী পিসের পাইকারী দোকান ইত্যাদি।
চতূর্থ তলা বিবাহের সামগ্রী, বুটিক এবং এম্ব্রোয়ডারী শপ ইত্যাদি।

 পণ্যসামগ্রীর মান, মুল্য এবং ক্রেতা

  • এখানে প্রাপ্ত পন্য সামগ্রীর মান ভাল।
  • পন্য সামগ্রী কোন কোন দোকানে একদরে বিক্রয় হয়। আবার কোন কোন দোকানে দর কষাকষি করে ক্রয় করতে হয়।
  • এখানে সাধারনত উচ্চবিত্ত, উচ্চ-মধ্যবিত্ত এবং মধ্যবিত্ত শ্রেনীর ক্রেতাগন কেনাকাটা করতে আসেন।
  • এখানে ক্যাশের সাথে সাথে ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমেও খরচ পরিশোধ করা যায়।

 গাড়ী পার্কিং ব্যবস্থা = এখানে গাড়ী পার্কিং এর নিজস্ব ব্যবস্থা নেই। সামনের রাস্তায় ৪০ টি গাড়ী পার্ক করা যায়।

টয়লেট ব্যবস্থা

  • টয়লেট সুবিধা রয়েছে।
  • এখানে প্রত্যেকটি ফ্লোরে পুরুষ এবং মহিলাদের পৃথক টয়লেট ব্যবস্থা রয়েছে।
  • সার্বক্ষনিক টয়লেট পরিচ্ছন্ন রাখা হয়।

 নিরাপত্তা ব্যবস্থা

  • সিসিটিভি নেই। তবে এখানে নিজস্ব একদল প্রশিক্ষিত ও চৌকস সিকিউরিটি গার্ড রয়েছে, মার্কেটের সার্বিক নিরাপত্তার দায়িত্ব তারা খু্বই দক্ষতার সাথে পালন করে আসছে।

ওযু এবং নামাজের ব্যবস্থা = এখানে ওযু এবং নামাজের ব্যবস্থা আছে।

 খোলা/বন্ধের সময় = সপ্তাহের মঙ্গলবার বন্ধ থাকে। সকাল ১০.০০ টা থেকে রাত ৮.০০ টা পর্যন্ত খোলা থাকে।

ভিড় এড়াতে চান = প্রতিদিনই ভিড় হয়।  সাধারনত সকাল থেকে রাত পর্যন্ত একটু বেশী ভিড় থাকে।

গুলশান ফ্লাওয়ার শপ

গুলশানের ফুলের দোকনগুলোর মধ্যে গুলশান ফ্লাওয়ার শপ একটি।

অবস্থান= গুলশান ২ নম্বর মোড় থেকে ২০০ গজ পশ্চিমে গুলশান ফ্লাওয়ার শপ দোকানটি অবস্থিত।

০২। ঠিকানা = ১৩/১/এ, কামাল আতাতুর্ক এভিনিউ, গুলশান- ২ , ফোন- ০২-৮৮১৬০৫৪ , মোবাইল- ০১৭১৫-২৮৩৮৪৫

সেবা (সার্ভিস)

  • গাড়ি, বাড়ি অফিস, গেট ও বাসর ঘর সাজানোর কাজগুলো বাসায় গিয়ে করে দেওয়া হয়।
  • ঢাকার যেকোন প্রান্তে এই সার্ভিস পাওয়া যায়।
  • বেশি ফুল ক্রয় করলে অগ্রিম ৫০% দিতে হয়।
  • বেশি পরিমাণ ফুল ক্রয়ে প্যাকেজিং করার ব্যবস্থা রয়েছে।
  • বাসা ও অফিসে চাহিদা মাফিক ফুল পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা আছে। তবে শর্তহল যাতায়াত খরচ দিতে হবে।
  • কোন প্রতিষ্ঠানে প্রতিদিন নির্দিষ্ট পরিমাণ ফুল প্রয়োজন হলে সেক্ষেত্রে ঢাকার শাহবাগে যোগাযোগ করতে হবে।
  • সভা, সেমিনার এবং গায়ে হলুদ ও বিভিন্ন অনুষ্ঠানে ফুলের অর্ডার নেওয়া হয়।
  • ক্যাশের মাধ্যমে বিল পরিশোধ করতে হয়।

প্রাপ্ত ফুলের মূল্য তালিকা

ফুলের নাম মূল্য (টাকা)
গোলাপ (১ পিস) ১০
গোলাপ (২ পিস) ২০
গোলাপ (১০০ পিস) ৮০০
কিচেন থিমাস (ফারষ্টিক) ১০০
লিলি (ফারষ্টিক) ২০০
গাদা (১ চেইন) ৩০
রজনীগন্ধা (১ ফারষ্টিক) ৩০
গাজরা (১ চেইন) ৩০
চামনা গোলাপ (১ পিস) ৭০
জীপচি (১ ব্যান্টি) ৭০০
গোলাপের তোড়া (ছোট) ২৫০
গোলাপের তোড়া (বড়) ২০০
গোলাপের তোড়া (মাঝারী) ১,২০০
রজনীগন্ধা (ছোট) ৭০০
রজনীগন্ধা (মাঝারী) ১,৮০০
রজনীগন্ধা (বড়) ২,২০০
আইটেম সংখ্যা/ ধরণ/ সাইজ অর্ডার দেয়ার সময় খরচ (টাকা)
ফুলের তোড়া ১০০ গোলাপ ১ দিন ১,০০০
ফুলের ব্যানার ১০০০ গোলাপ ১ দিন ৫,৫০০
ফুল দিয়ে গাড়ি সাজানো ১০০ গোলাপ ১ দিন ৫,০০০
ফুল দিয়ে গেট সাজানো বিভিন্ন ফুল ১ দিন ১০,০০০
বাসর ঘর সাজানো গাদা, গোলাপ ১০০+১০০ ১ দিন ৫,০০০
মঞ্চ সাজানো বিভিন্ন ফুল ১ দিন ১০,০০০

তোড়া ব্যানার তৈরীর সরঞ্জামের দাম

  • ঝুঁড়ি- ১০০ টাকা
  • রেপিং- (১ পিস)- ১০ টাকা
  • পেপার- (১ পিস)- ২০ টাকা
  • নেট (১ পিস)- ১০০ টাকা

বিবিধ

  • নিজস্ব পার্কিং এলাকা নেই। রোডের পাশে গাড়ি পার্কিং করতে হয়।
  • টয়লেট ব্যবস্থা নেই।
  • দোকানটি সকাল ৬ টা থেকে রাত ১০ টা পর্যন্ত খোলা থাকে।

বুথের লোকেশন

এই প্রতিষ্ঠান থেকে ১০০ গজ পূর্ব-উত্তর কোণে সোস্যাল ইসলামী ব্যাংকের একটি বুথ রয়েছে।

যমুনা ফিউচার পার্ক

বিশ্বের তৃতীয় এবং এশিয়ার সর্ববৃহৎ শপিংমল হিসেবে পরিচিত “যমুনা ফিউচার পার্ক”। রাজধানীর কুড়িলে অবস্থিত এই শপিং কমপ্লেক্সটিতে সকল ধরনের কেনাকাটা ও বিনোদন সুবিধা রয়েছে।

ঠিকানা যোগাযোগ:

ক-২৪৪, কুড়িল, প্রগতি সরণি, বারিধারা, ঢাকা। ফোন: ৮৪১৬০৫১-২ , মোবাইল: ০১৯৩৭-৪০০২০৫-২২ , ফ্যাক্স: ০২-৮৪১৬০৫০ , ওয়েবসাইট: www.jamunafuturepark.com

মার্কেটের বিস্তৃতি:

প্রগতি সরণি থেকে ফিউচার পার্ক প্রাঙ্গণে প্রবেশ করলে প্রথমেই পড়ে আউটডোর রাইডস। সারা পৃথিবীতে তোলপাড় করা ছয়টি রোমাঞ্চকর রাইড রয়েছে এখানে। বর্ণিল আলোকছটায় উদ্ভাসিত ফিউচার পার্কের এই আউটডোর রাইডসের রোলার কোস্টার, স্কাইড্রপ, ম্যাজিক উইন্ডমিল, পাইরেট শিপ, ফ্লাইং ডিসকো ও টাওয়ার চ্যালেঞ্জার রীতিমতো শিহরণ জাগানিয়া। প্রথম তলার পুরোটাই গাড়ি পার্কিং এর জন্য নির্ধারিত। অন্যান্য ফ্লোরগুলো পণ্যের ক্যাটাগরী ভিত্তিক বিন্যাস করা হয়েছে। প্রতিটি ফ্লোরকে “দক্ষিণ-পশ্চিম”, “উত্তর-পশ্চিম”, “দক্ষিণ-পূর্ব” ও “উত্তর-পূর্ব” অংশে ভাগ করা হয়েছে। প্রতিটি ভাগে নির্দিষ্ট ক্যাটাগরীর পণ্য ও সেবা পাওয়া যাবে। এই শপিংমলের ষষ্ঠ তলার সম্পূর্ণটাই বিনোদন জোন হিসেবে গড়ে তোলা হয়েছে। ষষ্ঠ তলায় রয়েছে ফুডকোর্ট, রেষ্টুরেন্ট, প্লেয়ারস জোন, ব্লকবাস্টার সিনেমাস প্রভৃতি।

ব্লকবাস্টার সিনেমাস:

সর্বাধুনিক প্রযুক্তির সাতটি সিনেমা হলের সমন্বয়ে ‘ব্লকবাস্টার সিনেমাস’। ডিজিটাল সাউন্ড সিস্টেম, থ্রিডি সিনেমার আয়োজন, চিত্তাকর্ষক ও বিলাসবহুল কফি লাউঞ্জ, অতিথিদের আরামদায়ক বসার জায়গা, ভিআইপি লাউঞ্জ, অনলাইন টিকিটিং, সাতটি হলের সাত ধরনের আকর্ষণীয় ইন্টেরিয়র ডিজাইন, মনোমুগ্ধকর লবি ডিজাইনসহ ‘ব্লকবাস্টার সিনেমাস’-এর অভিনব সব আয়োজন সাজানো হয়েছে দেশের মানুষের বিনোদন ও প্রত্যাশা মেটানোর প্রত্যয়ে।

খোলা-বন্ধের সময়সূচী:

বিলাসবহুল এই মার্কেটটি সপ্তাহের রবিবার বন্ধ থাকে। আর মার্কেট অফিস শুক্রবার বন্ধ থাকে। এছাড়া সপ্তাহের অন্যান্য দিন সকাল ১১ টা থেকে রাত ১০ টা পর্যন্ত খোলা থাকে। বি:দ্র: এই সময়সূচী পরিবর্তনযোগ্য

টুইন টাওয়ার্স শপিং কমপ্লেক্স

চামেলিবাগ, শান্তিনগর, ঢাকা – ১০০০। ১৯৯৮ ইং সালে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। শপিং মলটি আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সম্পন্ন, নিজস্ব স্ট্যান্ডবাই জেনারেটর সুবিধাসহ শীতাতপ নিয়ন্ত্রীত এবং টাইলস সজ্জিত নতুন ভবনে অবস্থিত। এখানে মোট দোকান সংখ্যা ১৬০ – ২০০ টি। মালিক কর্তৃপক্ষ কর্তৃক শপিং মলটি পরিচালিত হয়।

লোকেশন

  • শান্তিনগর মোড় থেকে মালিবাগ মোড়ের দিকে যাওয়ার পথে সড়কের ডান পাশে এই মার্কেটটি অবস্থিত।

ভবনের বিবরন

  • ২০ (বিশ) তলা ভবনের প্রথম ৫ (পাঁচ) তলা মার্কেট এবং উপরের বাকিটুকু এ্যাপার্টমেন্ট হিসেবে ব্যবহৃত হয়।

পণ্যসামগ্রীর বিবরন

প্রথম তলা কসমেটিক্স, ক্রোকারিজ, শিশুদের খেলনা সামগ্রী।
দ্বিতীয় তলা রেডিমেট আইটেম, ছেলে-মেয়েদের শার্ট, প্যান্ট প্রভৃতি।
তৃতীয় তলা শাড়ি ও জুয়েলারী সামগ্রী।
চতূর্থ তলা মোবাইল সেট ও মোবাইল সামগ্রী।

পণ্যসামগ্রীর মান, মুল্য এবং ক্রেতা

  • এখানে প্রাপ্ত পণ্য সামগ্রীর মান ভাল।
  • পণ্য সামগ্রী কোন কোন দোকানে একদরে বিক্রয় হয়। আবার কোন কোন দোকানে দর কষাকষি করে ক্রয় করতে হয়।
  • এখানে সাধারণত উচ্চ বিত্ত ও মধ্যবিত্তসহ প্রায় সকল শ্রেণীর ক্রেতাগণ কেনাকাটা করতে আসেন।
  • এখানে ক্যাশের সাথে সাথে ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমেও দোকান ভেদে বিল পরিশোধ করা যায়।

গাড়ী পার্কিং ব্যবস্থা

  • এখানে নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় ১৫০ (একশত পঞ্চাশ) টি গাড়ী পার্কিং এর ব্যবস্থা রয়েছে।  এছাড়া সামনের রাস্তা ও ফুটপাতে ২০ (বিশ) টি গাড়ী পার্ক করা যায়। গাড়ী পার্কিং এর জন্য কোন চার্জ দিতে হয় না।

টয়লেট ব্যবস্থা

  • প্রত্যেক ফ্লোরে টয়লেট সুবিধা রয়েছে।
  • মহিলাদের জন্য পৃথক টয়লেট ব্যবস্থা রয়েছে।
  • সার্বক্ষণিক টয়লেট পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখা হয়।

এস্কেলেটর সুবিধা

  • এখানে এস্কেলেটর সুবিধা রয়েছে। এস্কেলেটর এর সংখ্যা ০২ (দুই) টি।

নিরাপত্তা ব্যবস্থা

  • মার্কেটটির নিরাপত্তার জন্য সিসিটিভি রয়েছে। এছাড়া এখানে নিজস্ব একদল প্রশিক্ষিত ও চৌকস সিকিউরিটি গার্ড রয়েছে, মার্কেটের সার্বিক নিরাপত্তার দায়িত্ব তারা খু্বই দক্ষতার সাথে দায়িত্ব পালন করে আসছে।

খোলা/বন্ধের সময়

  • বৃহস্পতিবার সাপ্তাহিক ছুটির জন্য শপিং মলটি বন্ধ থাকে। আর অবশিষ্ট ০৬ (ছয়) দিন সকাল ৯.০০ টা থেকে রাত ৯.০০ টা পর্যন্ত খোলা থাকে।

 ভিড় এড়াতে চান

  • প্রতিদিনই ভিড় হয়। তবে শুক্রবার ও শনিবার দুপুর ১২.০০ টা থেকে বিকাল ৩.০০ টা বিকাল ৫.০০ টা থেকে রাত ৮.০০ টা পর্যন্ত একটু বেশী ভিড় থাকে।

বঙ্গবাজার

ঢাকায় বসবাস করে অথচ বঙ্গবাজারের নাম শুনেনি বা বঙ্গবাজারে পদধুলি পড়েনি এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া কষ্টসাধ্য। কেননা এই বঙ্গবাজারকে আবর্তিত করে রয়েছে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠান। যেমন – পুলিশ হেডকোয়াটার্স, নগর ভবন, ফায়ার সার্ভিস হেড কোয়াটার্স, কেন্দ্রীয় পশু হাসপাতাল ও ঐতিহ্যবাহী কার্জন হল। এই মার্কেটটির বদৌলতে এই এলাকা ঢাকার আশপাশ সহ দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চল থেকে শুরু করে দেশের সীমানা অতিক্রম করে বিদেশী পর্যটকদের পদচিহ্নে মুখরিত থাকে। এটি একটি পরিপূর্ণ তৈরী পোশাক মার্কেট। ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের সার্বিক তত্ত্বাবধানে এই মার্কেটটি পরিচালিত হয়।

খোলাবন্ধের সময়সূচী

এই মার্কেটটি শনিবার থেকে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত খোলা থাকে। শুক্রবার সাপ্তাহিক বন্ধ থাকে। শনিবার দিনের প্রথম অর্ধ দিবস বন্ধ থাকে। এছাড়া অন্যান্য দিন সকাল ৮.০০ টা থেকে রাত ৮.০০ টা পর্যন্ত খোলা থাকে।

কিভাবে আসবেন

পূর্ব দিক হতে – হযরত গোলাপ শাহ মাজার থেকে পূর্ব দিকে নগর ভবনের পাশ দিয়ে পুলিশ হেড কোয়াটার্সের সাথে, পশ্চিম দিক হতে – পলাশী বা চানখার পুল মোড়ে এসে রিক্সা বা অন্য কোন পরিবহন যোগে সোজা পশ্চিম দিকে নগর ভবন সংলগ্ন অবস্থিত, উত্তর দিক হতে – ঢাকা প্রেস ক্লাব বা হাইকোর্ট হয়ে কার্জন হলের পাশ দিয়ে কার্জন হল সংলগ্ন মোড়ের দক্ষিণ-পূর্ব কোণে অবস্থিত এনেক্সকো টাওয়ারের সাথে এবং দক্ষিণ দিক হতে – নাজিরা বাজার চৌরাস্তা থেকে দক্ষিণ দিকে ৫ মিনিটের হাঁটা দূরত্বে ফায়ার সার্ভিস হেড কোয়ার্টার্সের বিপরীত পাশে এই মার্কেটটি অবস্থিত।

মার্কেটের প্রবেশ পথ

মার্কেটে প্রবেশের জন্য মার্কেটটির পশ্চিম, উত্তর ও দক্ষিণ দিকে নিকটতম দূরত্বে বেশ কিছু সরু গলিপথ রয়েছে। পূর্ব দিকের অংশটুকু পুলিশ হেড কোয়াটার্সের সীমানা প্রাচীর দ্বারা ঢাকা পড়ার কারণে এই দিক দিয়ে মার্কেটে প্রবেশের কোন পথ নেই। আর মার্কেটের দ্বিতীয় ও তৃতীয় তলায় উঠার জন্য মার্কেটের পশ্চিম ও দক্ষিণ পাশে বেশ কিছু কাঠের সিঁড়ি রয়েছে।

মার্কেটের গঠন স্তরবিন্যাস

এটি কাঠের তৈরী তিনতলা বিশিষ্ট মার্কেট। কাঠের পাটাতনের মাধ্যমে এক ফ্লোর থেকে অন্য ফ্লোরকে পৃথক করা হয়েছে। প্রথম তলায় রয়েছে পাইকারী ও খুচরা রেডিমেড পোশাক, দ্বিতীয় তলায় রয়েছে পাইকারী ও খুচরা শাড়ি কাপড়ের দোকান, গার্মেন্টস এক্সেসরীজ এবং তৃতীয় তলায় রয়েছে গার্মেন্টস কারখানা। তবে মার্কেটের প্রথম তলায় মার্কেটের কোন নির্দিষ্ট স্তর বিন্যাস নেই। একই ধরনের পণ্যের দোকান দেখা যায় সারা মার্কেট জুড়েই বিক্ষিপ্ত ভাবে অবস্থিত। তবে কিছু কিছু অংশে উল্লেখযোগ্য সংখ্যক দোকানের অবস্থান লক্ষ্য করা যায়।  যেমন দক্ষিণ দিক দিয়ে প্রবেশ করার পূর্বেই মার্কেটের বাইরের দিকে অবস্থিত ব্যাগের দোকানগুলোতে প্রদর্শনীকৃত ঝুলানো ব্যাগগুলোর সাথে মাথা ঠুকিয়ে ফুটপাতকে পাশ কাটিয়ে মার্কেটে প্রবেশ করে প্রথমেই পাঞ্জাবী, শিশু ও মহিলাদের পোশাক বিক্রেতারা আপনাকে স্বাগত জানাবে। কেননা এই দিকটাতেই মার্কেটের পাঞ্জাবীর দোকানগুলো অবস্থিত। তাই পাঞ্জাবী ক্রেতারা মার্কেটের দক্ষিণ দিকে প্রবেশ পথের সাথে অবস্থিত পাঞ্জাবীর দোকানগুলোতে ঢুঁ মারতে পারেন। আর মার্কেটের পশ্চিম দিকের প্রবেশ পথগুলো দিয়ে মার্কেটে ঢোকার সময় প্রথমেই চোখে পড়বে লুঙ্গি, মেয়েদের ওড়না, রেডিমেড সালোয়ার কামিজ, ছোটদের পোশাকের ছোটছোট বেশ কিছু দোকান। মার্কেটের উত্তর দিকের পুলিশ হেড কোয়াটার্সের পাশ দিয়ে প্রবেশ করার সময় প্রথমেই রয়েছে সারি সারি জিন্স প্যান্টের দোকান। মার্কেটের পূর্ব প্রান্তের অংশে পাইকারী রেডিমেট গার্মেন্টস পোশাকের দোকানগুলো অবস্থিত। উত্তর পাশে শেষ প্রান্তে বেশ কিছু পাইকারী জুতার দোকান ও গার্মেন্টস এক্সেসরীজ এর দোকান রয়েছে।

মার্কেটের বাইরের পরিবেশ

মার্কেটের বাইরের ফুটপাত অস্থায়ী হকারদের দখলে রয়েছে। যা ক্রেতাদের হাটাঁচলায় প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করেছে। এই মার্কেটটিকে বাইরে থেকে দেখে কোনভাবেই মার্কেটের ভিতরের তাৎপর্য বা গুরুত্ব উপলব্ধি অনুধাবন করার কোন উপায় নেই।

আসুন মার্কেটের অভ্যন্তরে প্রবেশ করি

বাইরের যানজট ও কোলাহল ভেদ করে মার্কেটে প্রবেশ করে কিছুটা হলেও অস্বস্তি বোধ হতে পারে। কেননা মার্কেটটিতে পর্যাপ্ত আলো-বাতাস চলাচলের ব্যবস্থা নেই। তবে পূর্বের তুলনায় বর্তমানে কৃত্রিমভাবে আলো-বাতাসের পর্যাপ্ত ব্যবস্থা করা হয়েছে। মার্কেটটিতে চলাচলের জন্য নির্দিষ্ট দূরত্ব অন্তর অন্তর বেশ কিছু গলিপথ রয়েছে। পথগুলোর দুই পাশে রয়েছে সারি সারি কাপড়ের দোকান। বর্ষাকালে মার্কেটের অভ্যন্তরে পানি পড়ে না। রয়েছে পানি নিষ্কাশনের সুব্যবস্থা।

যে সকল পণ্য পাওয়া যায়

এই মার্কেটটিতে শিশু-তরুন-বৃদ্ধ সকল বয়সের নারী-পুরুষের সকল ধরনের পোশাক পাওয়া যায়। ছেলেদের – লুঙ্গি, প্যান্ট, শার্ট, গেঞ্জি, পাঞ্জাবী, ফতুয়া, নাইট ড্রেস সহ বিভিন্ন ধরনের পোশাক পাওয়া যায়। মেয়েদের – শাড়ি, সালোয়ার কামিজ, জিন্স প্যান্ট, ফতুয়া, ওড়না সহ বিভিন্ন ধরনের পোশাক পাওয়া যায়। ছোটদের –  ফ্রক, শার্ট, গেঞ্জি, প্যান্ট, পাঞ্জাবী, বেবী সেট – ১ পিস, ২পিস ও ৩ পিসের বিভিন্ন ধরনের কাপড়ের সেট পাওয়া যায়। অর্ডার বাতিল এক্সপোর্ট পণ্য, নিম্ন মানের কারণে বাতিলকৃত এক্সপোর্ট পণ্য ও শীতের পোশাক পাওয়া যায়।

প্রাপ্ত পণ্যের গুণগত মান

এই মার্কেটে স্থানীয়ভাবে তৈরীকৃত ডিসপুটেড এক্সপোর্ট কোয়ালিটির তৈরীকৃত পণ্যের পাশাপাশি চীন, থাইল্যান্ড, ভারত প্রভৃতি দেশে থেকে আমদানি কৃত পোশাক পাওয়া যায়। এছাড়া স্থানীয় লোকাল গার্মেন্টস পণ্যও পাওয়া যায়।

বিক্রয়ের ধরন

এই মার্কেটিতে খুচরা বিক্রয়ের সাথে পাল্লা দিয়ে সমানতালে পাইকারী হারে পোশাক বিক্রয় করা হয়। সারা মার্কেট জুড়েই খুচরা দোকানগুলোর অবস্থান হলেও পাইকারী দোকানগুলো মার্কেটের পূর্ব পাশের  গলিগুলোতে অবস্থিত।

পণ্যের মূল্য

এই মার্কেটটিতে প্রাপ্ত পণ্য সামগ্রীর মূল্য অত্যন্ত সহনীয়। পণ্যের গুণগত মানের উপর ভিত্তি করে পণ্যের মূল্য নির্ধারণ করা হয়। পাইকারী মূল্যের চেয়ে খুচরা মূল্য কিছুটা বেশি হয়ে থাকে। পাইকারী ক্রয়ের ক্ষেত্রে কমপক্ষে একই ডিজাইনের ১২ পিস ক্রয় করতে হবে।

ক্রেতাদের ধরন

এই মার্কেটে আগত ক্রেতাদের বেশিরভাগই নিম্নবিত্ত বা স্বল্প আয়ের মানুষ। এছাড়া এদের পাশাপাশি মধ্যবিত্ত শ্রেণীর লোকজনেরও কম বেশি আনাগোনা লক্ষ্য করা যায়। তবে সবচেয়ে বেশি যে বিষয়টি লক্ষ্য করা যায় তা হল মার্কেটে প্রতিদিনই উল্লেখযোগ্য সংখ্যক বিদেশী পর্যটকের আগমন ঘটে। কারণ এই মার্কেটে তুলনামূলক কম দামে নমিনাল ডিসপুটেড এক্সপোর্ট কোয়ালিটির কাপড় পাওয়া যায়।

পার্কিং ব্যবস্থা

মার্কেটটির নিজস্ব কোন গাড়ি পার্কিং ব্যবস্থা নেই। তবে মার্কেটের পশ্চিম পাশের সড়কে ১০টির মত গাড়ি পার্কিং এর ব্যবস্থা রয়েছে। তবে এর জন্য নির্ধারিত হারে চার্জ প্রদান করতে হয়। আর মার্কেটের ব্যবসায়ীদের গাড়ি পার্কিংয়ের জন্য পার্শ্ববর্তী এনেক্সকো টাওয়ারের আন্ডারগ্রাউন্ডে গাড়ি পার্কিং এর ব্যবস্থা রয়েছে।

খাবার ব্যবস্থা

মার্কেটের অভ্যন্তরে উত্তর-পূর্ব কোণে শেষ প্রান্তে খাবারের দোকান রয়েছে। এছাড়া মার্কেটের বাইরে বেশ কিছু উন্নতমানের খাবারের হোটেল রয়েছে। আর আপনি যদি ভোজন রসিক হয়ে থাকেন তাহলে কেনাকাটার শেষে ঢু মারতে পারেন ‘খাবারের গলি’ হিসাবে খ্যাত নাজিরাবাজারে।

বিবিধ

  • মার্কেটে কোন প্রকার Raffle Draw আয়োজন করা হয় না এবং বিশেষ উৎসব বা দিবস উপলক্ষ্যে মূল্য ছাড় দেয়া হয় না।
  • মার্কেটের তৃতীয় তলায় একটি মসজিদ আছে।
  • দোকান মালিক সমিতি অফিস মার্কেটের তৃতীয় তলায় অবস্থিত।
  • এছাড়া মার্কেটের তৃতীয় তলাতে অর্থের বিনিময়ে পাবলিক টয়লেট ব্যবহারের সুযোগ রয়েছে।

বায়তুল মোকাররম মার্কেট

১৯৫৯ সালে বায়তুল মোকাররম মসজিদ প্রতিষ্ঠার জন্য ৮.৩০ একর ভূমি অধিগ্রহণ করা হয়। এই ভূমির কিছু অংশে মসজিদের পাশাপাশি মার্কেট পরিচালনা করছে ইসলামিক ফাউন্ডেশন। বর্তমানে এটি ঢাকার অন্যতম একটি অভিজাত মার্কেট।

মার্কেটটি ঢাকা জিপিওর পূর্ব পাশে অবস্থিত।

মার্কেটের আয়তন

ক) একতলায় এর আয়তন (দৈর্ঘ্য  ৩৫৪.৬ x প্রস্থ ১৩৩.০) ৪,৬১৪৮.৫ বর্গফুট। মূল মসজিদ ভবনের পুরো একতলা জুড়ে মার্কেট তৈরী করা হয়েছে।

খ) উত্তর-দক্ষিণে লম্বালম্বি দ্বিতল মার্কেটের আয়তন (৫৬৮.৬ x ৬০.৬) ৩৪,৩৯৪,২৫ বর্গফুট।

মার্কেট কর্তৃপক্ষ

ইসলামিক ফাউন্ডেশন মার্কেটটির দেখভাল করে থাকে।

যোগাযোগ-

বায়তুল মোকাররম মার্কেট, ৬৭ পুরানা পল্টন, ঢাকা- ১০০০, বাংলাদেশ।

ই-মেইল- info@islamicfoundation.bd.org

ওয়েব সাইট- www.islamicfoundation.bd.org

বার্ষিক আয়

দোকান ভাড়া থেকে বার্ষিক ১ কোটি টাকার বেশি আয় করে থাকে ইসলামিক ফাউন্ডেশন। দক্ষিন দিকে সাহানের নিচে ১,৩৪,৩৮৩ বর্গফুট জায়গায় দোকান নির্মাণের কথা রয়েছে এবং এটি সম্পন্ন হলে আয় কয়েকগুণ বৃদ্ধি পাবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

গাড়ি পার্কিং

মসজিদের সাহানের সোজাসোজি উত্তর পার্শ্বে ৭৫৩০ বর্গফুট এবং দক্ষিণ-পশ্চিম কোনে ১৪,০৪৯.৭৫ বর্গফুট গাড়ি পার্কি এর জায়গা আছে।

যেসব পণ্য পাওয়া যায়

এ মার্কেটে বিভিন্ন পণ্য পাওয়া যায় বলে কোন বিশেষায়িত মার্কেট বলার সুযোগ নেই। দোতলায় দেশের প্রসিদ্ধ বিভিন্ন জুয়েলারী দোকান রয়েছে। ক্যামেরা, সিডি, ডিভিডি প্লেয়ার, টিভিসহ বিভিন্ন ইলেক্ট্রনিক্স পণ্য পাওয়া যায় এখানে।

ব্যাগ, ল্যাগেজ, ঘড়ি, চশমা, ক্রোকারিজ, জামা-কাপড়, জুতা, খেলনা ইত্যাদির দোকানও রয়েছে। নিচতলায় নেমপ্লেট লেখার ব্যবস্থা রয়েছে। এই মার্কেটে ইসলামী ফাউন্ডেশন এর বই বিক্রয় কেন্দ্রসহ কয়েকটি আতর, টুপি, পাঞ্জাবী, বোরকা, জায়নামাজ প্রভৃতির দোকানও রয়েছে। এছাড়া মসজিদ প্রাঙ্গণে ইসলামী বই, সিডি, ডিভিডি প্রকৃতিও বিক্রি হয়।

ব্যাংক অন্যান্য

বায়তুল মোকাররম মার্কেটের ভেতরে সোনালী ব্যাংকের কার্যালয় আছে। এছাড়া মানি চেঞ্জার ও ফাইন্যান্স কোম্পানী আছে।

বিবিধ

মার্কেটের ভেতর ও বাইরে টয়লেটের ব্যবস্থা রয়েছে। আর মার্কেটটির জুয়েলারী দোকানগুলো শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত হলেও অন্যগুলোর মধ্যে নন এসি দোকানই বেশি। বিভিন্ন দিক থেকে মার্কেটটিতে প্রবেশের সুযোগ রয়েছে।

সুবাস্তু নজর ভ্যালী

প্রগতি স্মরনী, শাহজাদপুর, বাড্ডা, ঢাকা-১২২৯।

শপিং মলটি আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সম্পন্ন, এস্কেলেটর সুবিধা, নিজস্ব স্ট্যান্ডবাই জেনারেটর সুবিধাসহ শীতাতপ নিয়ন্ত্রীত এবং টাইলস সজ্জিত নতুন ভবনে অবস্থিত। এখানে মোট দোকান সংখ্যা ৫০০ টি। মালিক কর্তৃপক্ষ কর্তৃক শপিং মলটি পরিচালিত হয়।

লোকেশন

  • গুলশান শাহজাদপুর বাসস্ট্যান্ড থেকে ৫০ গজ দক্ষিনে গিয়ে রাস্তার পূর্ব পাশে এটি অবস্থিত।

পণ্যসামগ্রীর বিবরন

প্রথম তলা ইলেক্ট্রিনক্স সামগ্রী, ঘড়ি, টিভি, ফ্রিজ এবং ক্রোকারীজ পন্য ইত্যাদি।
দ্বিতীয় তলা জুয়েলারী ইত্যাদি।
তৃতীয় তলা পুরুষ, মহিলা এবং শিশু সহ সকল বয়সের রেডিমেড পোষাক ইত্যাদি।
চতূর্থ তলা মোবাইল শো-রুম, ফুড কোর্ট ইত্যাদি।

পণ্যসামগ্রীর মান, মুল্য এবং ক্রেতা

  • এখানে প্রাপ্ত পন্য সামগ্রীর মান ভাল।
  • পন্য সামগ্রী কোন কোন দোকানে একদরে বিক্রয় হয়। আবার কোন কোন দোকানে দর কষাকষি করে ক্রয় করতে হয়।
  • এখানে সাধারনত উচ্চবিত্ত, উচ্চ-মধ্যবিত্ত এবং মধ্যবিত্ত শ্রেনীর ক্রেতাগন কেনাকাটা করতে আসেন।
  • এখানে ক্যাশের সাথে সাথে ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমেও খরচ পরিশোধ করা যায়।

গাড়ী পার্কিং ব্যবস্থা

  • এখানে গাড়ী পার্কিং এর নিজস্ব ব্যবস্থা রয়েছে। নিজস্ব পার্কিং ব্যবস্থাপনায় ৩৫ টি এবং সামনের রাস্তায় এবং ফুটপাতে ১ টি  গাড়ী পার্কিং করা যায়।  পার্কিং এর জন্য কোন চার্জ দিতে হয় না।

টয়লেট ব্যবস্থা

  • টয়লেট সুবিধা রয়েছে।
  • এখানে প্রত্যেকটি ফ্লোরে পুরুষ এবং মহিলাদের পৃথক টয়লেট ব্যবস্থা রয়েছে।
  • সার্বক্ষনিক টয়লেট পরিচ্ছন্ন রাখা হয়।

নিরাপত্তা ব্যবস্থা

  • সিসিটিভি নেই। তবে এখানে নিজস্ব একদল প্রশিক্ষিত ও চৌকস সিকিউরিটি গার্ড রয়েছে, মার্কেটের সার্বিক নিরাপত্তার দায়িত্ব তারা খু্বই দক্ষতার সাথে পালন করে আসছে।

ওযু এবং নামাজের ব্যবস্থা

  • এখানে ওযু এবং নামাজের ব্যবস্থা আছে।

খোলা/বন্ধের সময়

  • সকাল ৯.০০ টা থেকে রাত ৮.০০ টা পর্যন্ত খোলা থাকে।

ভিড় এড়াতে চান

  • শুক্রবার এবং শনিবার ভিড় হয়।  সাধারনত বেলা ১২.০০ টা থেকে বেলা ১.০০ টা পর্যন্ত এবং বিকাল ৫.০০ টা থেকে রাত ৮.০০ টা পর্যন্ত একটু বেশী ভিড় থাকে।

ডিসিসি মার্কেট গুলশান

ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের অধীন এই মার্কেটটি প্রতিষ্ঠিত হয় ১৯৬৮ সালে। এটি গুলশান এলাকার একটি প্রখ্যাত মার্কেট।

ঠিকানা অবস্থান = গুলশান-১, ঢাকা-১২১২। মহাখালি থেকে গুলশান- ১ গোলচত্ত্বরের দিকে যাওয়ার পথে হাতের ডানে অবস্থিত।

ভবন দোকান  = মার্কেটটি দ্বি-তল ভবনে অবস্থিত। দু’টি তলাতেই দোকান রয়েছে। দোকানের সংখ্যা ২৫০ টি।

প্রধান প্রধান পণ্য সামগ্রী

দোকানের অবস্থান প্রাপ্ত পণ্য
নিচতলায় ক) ফার্নিচার (অফিস, বাসা ইত্যাদি)।খ) জুয়েলার্স।

গ) বাইসাইকেল।

ঘ) প্রসাধনী।

ঙ) বাচ্চাদের খেলনা গাড়ি।

চ) শোবিজ।

ছ) লাইট ফিটিংসের দোকান।

জ) কাঁচামাল।

২য় তলায় ক) ইলেক্ট্রনিক্স  (শার্প এর শোরুম)।খ) বাচ্চাদের খেলনা গাড়ি।

গ) টেইলার্স এন্ড ফেব্রিকস (মহিলা, পুরুষ)।

ঘ) সাউন্ড সিস্টেম।

ঙ) স্পোর্টস আইটেম।

চ) সানগ্লানের দোকান।

ছ) জুয়েলারী।

মার্কেটে প্রাপ্ত বিদেশি পণ্য

বিদেশি পণ্যগুলো নানা দেশের হয়ে থাকে। তবে, বাচ্চাদের পোশাক খেলনা সামগ্রীগুলো সাধারণত থাইল্যান্ড, তাইওয়ান, ইংল্যান্ড, চীন, ইন্ডিয়া থেকে এবং স্পোর্টস আইটেমগুলো সাধারণত পাকিস্তান, চীন ও থাইল্যান্ড থেকে আমদানি করা হয়।

প্রধান পাইকারি পণ্য

ক) প্রধান প্রধান পাইকারি পণ্য সামগ্রীগুলো হল-

  • কসমেটিকস।
  • পারকিউম।
  • আন্ডারগার্মেন্টস।
  • বাচ্চাদের খেলনা।
  • শোবিজ।
  • স্টেশনারীজ।
  • ফুড আইটেম (বিস্কুট, চকলেট, জুস, জেলি, মধু, সস, মেকারনি, ড্রিংকস ইত্যাদি)।
  • নিচতলায় তোয়ালে, মসলা, ক্রোকারিজ, চাইনিজ আইটেম ইত্যাদি পাইকারি পাওয়া যায়।

খ) এই মার্কেটের পাইকারি অংশের দোকানগুলোতে পাওয়া পণ্য সংখ্যায় ন্যূনতম একটি অথবা পরিমানে অল্প ক্রয় করলেও পাইকারি দামেই ক্রয় করা যায়।

ছাড় = বছরে কোন ধরনে ছাড় বা পুরস্কারের ব্যবস্থা থাকে না।

বিবিধ

  • এই মার্কেটটি সাধারণত ফার্নিচার ও বাচ্চাদের যাবতীয় পণ্য (পোষাক, খেলনা, দোলনা, ক্যারিয়ার) এর জন্য বিখ্যাত এবং নিচ তলায় কাঁচা বাজারের অবস্থান হওয়ায় এখানে ক্রেতাদের সমাগম বেশি।
  • এখানে খাবারের দোকান ২ টি।
  • একটি দোকান মার্কেটের দোতলায় বামপাশের সিঁড়ি সংলগ্ন এবং অপর খাবারের দোকানটি  মার্কেটের ডান পাশের সিঁড়ির ডান পাশে নিচতলায়।
  • এই মার্কেটের ২য় তলার ডানপাশের সিঁড়ির কর্নারে ‘মাল্টি কেবল নেটওয়ার্ক’ নামে একটি সেবা প্রতিষ্ঠান রয়েছে, যেখান থেকে এই এলাকায় ডিসের সংযোগ দেয়া হয় এবং এর ঠিক পেছনেই মার্কেটের মসজিদ অবস্থিত।
  • এই মার্কেটের ২য় তলার দোকানগুলোর পণ্যগুলো হল-
  • মেয়েদের- জুতা, সেন্ডেল, পার্টস, কসমেটিকস, আন্ডার গার্মেন্টস।
  • ছেলেদের- জুতা, সেন্ডেল, শার্ট, প্যান্ট, ট্রাভেল ব্যাগ, কলেজ ব্যাগ, সিডি ক্যাসেট।
  • মার্কেটের ২য় তলায় একটি মানি এক্সচেঞ্জে দোকান রয়েছে।

একদরের দোকান

একদরের দোকান মোট দু’টি। এদের একটির নাম ব্রাদার ফার্নিচার ও অন্যটি মুন্নু সিরামিকস।

নাম ঠিকানা
ব্রাদার ফার্নিচার ই ১২, ১৪, ডি সি সি মার্কেট।মোবাইল- ০১৭১১-৪৩৩৪৮৬।

ফ্যাক্স- ৯৮৯৫২৮৯।

মুন্নু সিরামিকস ও শাইনপুকুর সিরামিকস, বি-১৩, ডি সি সি মার্কেট, গুলশান-১।মোবাইল- ০১৯১১০৪০৫০১,

ফ্যাক্স- ৯৮৯৭০৬১।

মার্কেটের ভেতরের পরিবেশ

ক) মার্কেটের ভেতরের পরিবেশ পরিস্কার পরিচ্ছন্ন।

খ) মার্কেটের অভ্যন্তরে পর্যাপ্ত আলো বাতাসের ব্যবস্থা রয়েছে।

ঘ) অগ্নি নির্বাপন ব্যবস্থা হিসেবে মার্কেটের দেয়ালে দেয়ালে ফায়ার ডিসটিংগুইসার রয়েছে।

টয়লেট ব্যবস্থা

মার্কেটের ভেতরে টয়লেট ব্যবস্থা রয়েছে। নারী ও পুরুষদের জন্য আলাদা টয়লেট রয়েছে।

গাড়ি পার্কিং ব্যবস্থা

ক) নিজস্ব গাড়ি পার্কিং ব্যবস্থা হিসেবে মার্কেট ভবনের সামনে বেশ প্রশস্ত জায়গায় গাড়ি পার্কিয়ের ব্যবস্থা রয়েছে।

খ) গাড়ি পার্কিংয়ের জন্য কোন প্রকার চার্জ দিতে হয় না।

খোলাবন্ধের সময়সূচী

এটি সকাল ১০ টা থেকে রাত ৮ টা পর্যন্ত খোলা থাকে এবং সাপ্তাহিক রবিবার।

আজিজ সুপার মার্কেট, শাহাবাগ

শাহাবাগ, ঢাকা।

শপিং মলটি আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সম্পন্ন এবং টাইলস সজ্জিত নতুন ভবনে অবস্থিত। এখানে মোট দোকান সংখ্যা ৪১৪ টি। মালিক সমিতি এবং মালিক কর্তৃপক্ষ উভয় কর্তৃক মার্কেটটি পরিচালিত হয়।

লোকেশন

  • শাহাবাগ থেকে কাঁটাবন যেতে হাতের বাম দিকে এটি অবস্থিত।

পণ্যসামগ্রীর বিবরন

প্রথম তলা ছেলেদের টি শার্ট, ফতুয়া, পাঞ্জাবী, মেয়েদের টু পিছ. থ্রী পিছ, ডাক্তার, সিডি/ডিভিডি, ফটোকপি, বই ইত্যাদি।
দ্বিতীয় তলা ছেলেদের টি শার্ট, ফতুয়া, পাঞ্জাবী, মেয়েদের টু পিছ. থ্রী পিছ, ডাক্তার, সিডি/ডিভিডি, ফটোকপি, বই, ফটোকপি, সার্জারী ইকুইপমেন্ট, ডাক্তারী জিনিষপত্র ইত্যাদি।
তৃতীয় তলা ছেলেদের টি শার্ট, ফতুয়া, পাঞ্জাবী, মেয়েদের টু পিছ. থ্রী পিছ ইত্যাদি।
  • মার্কেটটি দেশীয় বিভিন্ন চারু ও কারু পণ্য, দেশীয় ফ্যাশন হাউজ এর জন্য বিখ্যাত।
  • মার্কেটটিতে বই এর বিশাল মার্কেট রয়েছে।

পণ্যসামগ্রীর মান, মুল্য এবং ক্রেতা

  • এখানে প্রাপ্ত পন্য সামগ্রীর মান ভাল।
  • পন্য সামগ্রী কোন কোন দোকানে একদরে বিক্রয় হয়। আবার কোন কোন দোকানে দর কষাকষি করে ক্রয় করতে হয়।
  • এখানে সাধারনত উচ্চবিত্ত, উচ্চ-মধ্যবিত্ত এবং মধ্যবিত্ত শ্রেনীর ক্রেতাগন কেনাকাটা করতে আসেন।
  • এখানে ক্যাশের মাধ্যমে বিল পরিশোধ করতে হয়। ক্রেডিট কার্ডের কোন ব্যবস্থা নেই।

গাড়ী পার্কিং ব্যবস্থা

  • এখানে গাড়ী পার্কিং এর নিজস্ব ব্যবস্থা রয়েছে। নিজস্ব পার্কিং ব্যবস্থাপনায় ৫০ টি এবং সামনের রাস্তায় এবং ফুটপাতে ১০ টি  গাড়ী পার্কিং করা যায়।  পার্কিং এর জন্য কোন চার্জ দিতে হয়।

টয়লেট ব্যবস্থা

  • টয়লেট সুবিধা রয়েছে।
  • এখানে প্রত্যেকটি ফ্লোরে পুরুষ এবং মহিলাদের পৃথক টয়লেট ব্যবস্থা রয়েছে।
  • সার্বক্ষনিক টয়লেট পরিচ্ছন্ন রাখা হয়।

নিরাপত্তা ব্যবস্থা

  • সিসিটিভি নেই। তবে এখানে নিজস্ব একদল প্রশিক্ষিত ও চৌকস সিকিউরিটি গার্ড রয়েছে, মার্কেটের সার্বিক নিরাপত্তার দায়িত্ব তারা খু্বই দক্ষতার সাথে পালন করে আসছে।

ওযু এবং নামাজের ব্যবস্থা

  • এখানে ওযু এবং নামাজের ব্যবস্থা আছে।

খোলা/বন্ধের সময়

  • সপ্তাহের মঙ্গলবার বন্ধ থাকে। সকাল ১০.০০ টা থেকে রাত ৮.০০ টা পর্যন্ত খোলা থাকে।

ভিড় এড়াতে চান

  • শুক্রবার ভিড় হয়।  সাধারনত বিকাল থেকে রাত পর্যন্ত একটু বেশী ভিড় থাকে।

আনারকলি সুপার মার্কেট

সিদ্ধেশ্বরী রোড, ঢাকা-১২১৭।

১৯৯০ ইং সালে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। সুপার মার্কেটটি আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সম্পন্ন, এস্কেলেটর সুবিধা এবং টাইলস সজ্জিত নতুন ভবনে অবস্থিত। এখানে মোট দোকান সংখ্যা ৪০০ টি। মালিক সমিতি কর্তৃক শপিং মলটি পরিচালিত হয়।

লোকেশন

  • মৌচাক মার্কেটের পেছনে। মৌচাক থেকে সিদ্ধেশ্বরী ঢুকতে ৫০ গজ দুরে হাতের বামের গলিতে এটি অবস্থিত।

পণ্যসামগ্রীর বিবরন

প্রথম তলা কসমেটিক্স, ক্রোকারীজ, শো-পিছ, গিফট আইটেম ইত্যাদি।
দ্বিতীয় তলা মহিলাদের শাড়ী, থ্রীপিছ, ওড়না, গহনা/জুয়েলারী, শিশুদের নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রী এবং জামা কাপড় ইত্যাদি।
তৃতীয় তলা মহিলাদের শাড়ী, থ্রীপিছ, ওড়না, গহনা/জুয়েলারী, শিশুদের নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রী এবং জামা কাপড় ইত্যাদি।
চতূর্থ তলা মোবাইল শো-রুম, খাবারের দোকান ইত্যাদি।
পঞ্চম তলা বিভিন্ন অফিস ইত্যাদি।

পণ্যসামগ্রীর মান, মুল্য এবং ক্রেতা

  • এখানে প্রাপ্ত পন্য সামগ্রীর মান ভাল।
  • পন্য সামগ্রী কোন কোন দোকানে একদরে বিক্রয় হয়। আবার কোন কোন দোকানে দর কষাকষি করে ক্রয় করতে হয়।
  • এখানে সাধারনত উচ্চবিত্ত, উচ্চ-মধ্যবিত্ত এবং মধ্যবিত্ত শ্রেনীর ক্রেতাগন কেনাকাটা করতে আসেন।
  • এখানে ক্যাশের মাধ্যমে বিল পরিশোধ করতে হয়। ক্রেডিট কার্ডের কোন ব্যবস্থা নেই।

গাড়ী পার্কিং ব্যবস্থা

  • এখানে গাড়ী পার্কিং এর নিজস্ব ব্যবস্থা নেই। সামনের রাস্তায় ৩০ টি গাড়ী পার্ক করা যায়।

টয়লেট ব্যবস্থা

  • টয়লেট সুবিধা রয়েছে।
  • এখানে প্রত্যেকটি ফ্লোরে পুরুষ এবং মহিলাদের পৃথক টয়লেট ব্যবস্থা রয়েছে।
  • সার্বক্ষনিক টয়লেট পরিচ্ছন্ন রাখা হয়।

নিরাপত্তা ব্যবস্থা

  • সিসিটিভি নেই। তবে এখানে নিজস্ব একদল প্রশিক্ষিত ও চৌকস সিকিউরিটি গার্ড রয়েছে, মার্কেটের সার্বিক নিরাপত্তার দায়িত্ব তারা খু্বই দক্ষতার সাথে পালন করে আসছে।

ওযু এবং নামাজের ব্যবস্থা

  • এখানে ওযু এবং নামাজের ব্যবস্থা আছে।

খোলা/বন্ধের সময়

  • সকাল ৯.০০ টা থেকে রাত ৮.০০ টা পর্যন্ত খোলা থাকে।

ভিড় এড়াতে চান

  • শুক্রবার এবং ঈদের পূর্ব মুহুর্তে ভিড় হয়।  সাধারনত সকাল ১১.৩০ টা থেকে বেলা ৩.৩০ টা পর্যন্ত এবং সন্ধ্যা ৬.০০ টা থেকে রাত ৮.০০ টা পর্যন্ত একটু বেশী ভিড় থাকে।

আনারকলি সুপার মার্কেট এর দোকান সমূহের নাম, ঠিকানা মোবাইল নম্বর:

অরবিন্দ-রুবিয়া ফেবিক্স দোকান-১৩২ (নীচ তলা), মোবা: ০১৯২৬-৭৪৫৭৯০।
ম্যাচিং ওয়ার্ল্ড দোকান-১১৯ (নীচ তলা), মোবা: ০১৯৩২-০৮৫৬১১।
ঢালী ফেব্রিক্স দোকান-১৯০ (নীচ তলা), মোবা: ০১৯১৪-২০৬৯৩১।
খান ফেব্রিক্স দোকান-১৩৮ (নীচ তলা), মোবা: ০১৮১৩-৯৩৩০৮০।
মুন্নি জুয়েলার্স দোকান-১৪১ (২য় তলা), মোবা: ০১৮১৯-৯৯৮০৫৯।
নিউ চয়েজ বোরকা হাউজ দোকানা-১০০ (২য় তলা), মোবা: ০১৭৭৭-৬৮৪৫৯৬।
আজিজুল ফ্যাশন এফ/১২-১৪ (২য় তলা), মোবা: ০১৯৩৭-০৮৩৮৪০।
উর্মি জুয়েলার্স এফ-১৫ (২য় তলা), ফোন: ৯৩৩০১৬৮।
তাঁত বস্ত্র এফ-১১ (২য় তলা), মোবা: ০১৯২৩-৫১১৮৩৭।
টেন্ট শাড়ি বিতান এফ-৯ (২য় তলা), মোবা: ০১৭১৫-৭৬৩৪১৯।
তাঁত ঘর এফ-৪/৭ (২য় তলা), মোবা: ০১৮১৩-১০৩৫২৭।
ওয়ার্ল্ড হোম টেক্সটাইল এফ-৩,৮,৯ (২য় তলা), ফোন: ০২-৯৩৪৪৭২৯।
লিরা কালেকশন এফ-৩৯/এ,বি (২য় তলা), ফোন: ০১৭১১-৬৮৪৯৯০।
জেনারেল জুয়েলার্স লি. এফ-৩৭,৩৮ (২য় তলা), ফোন: ৮৩২২৩১৪।
মুন্নি জুয়েলার্স এফ-৪১ (২য় তলা), মোবা: ০১৮১৯-৯৯৮০৫৯।
জেমস্ জুয়েলার্স লি. এফ-৪০-৪২ (২য় তলা), মোবা: ০১৭১১-১৩৫৬১৭।
ম্যাসিং ফেয়ার এফ-৪৪ (২য় তলা), মোবা:০১৮২১-৪৫৩৩৪৬।
আকিক জুয়েলার্স এফ-৭৬ (২য় তলা), মোবা: ০১৭২৬-০৭৭৩৩৩।
ড্রিমস কসমেটিকস এফ-৭৮ (২য় তলা), মোবা: ০১৭১১-২০৫০০৫।
সিকো ভ্যারাইটিজ এফ-৮০ (২য় তলা), মোবা: ০১৭১৬-৪৫১১৫৯।
ঐশী ফ্যাশন এফ-৮১ (২য় তলা), মোবা: ০১৭১১-১৬৫৯৫৫।
স্টাইল কর্নার এফ-৮২ (২য় তলা), মোবা: ০১৭২০-০৩০৭৫৮।
টেইলার্স এণ্ড ফেব্রিক্স এফ-৮৩ (২য় তলা), ফোন: ৯৩৪৫৫৩৮।
আয়মা ফেব্রিক্স এফ-৮৪ (২য় তলা), মোবা: ০১৭১৫-১৬০৫৭১।
ভি.আই.পি কালেকশন এফ-৯০ (২য় তলা), মোবা: ০১১২-৬৯০১১৭।
চৈতী ফ্যাশন এফ-৯৫ (২য় তলা), মোবা: ০১৮১৮-৯৩৩৩২৬।
চুমকি জরি হাউজ এফ-১০১ (২য় তলা), মোবা: ০১৭১১-০৫৬২৭০।
ইরিণা জুয়েলার্স এফ-৪২ (২য় তলা), মোবা: ০১৭৭৭-৮১৫১৮০।
হামজা শাড়ী বিতান এফ-৭৫ (২য় তলা), মোবা: ০১৮১৩-০৫৬৯০৩।
স্টার ওয়ান টেইলার্স এণ্ড ফেব্রিক্স এফ-৭৭ (২য় তলা), মোবা: ০১৭১৬-৭৫৬৯৮৩।
নিউ ইভা জুয়েলার্স এফ-৭৯ (২য় তলা), মোবা: ০১৭২৭-৬৭৭৭৯৯।
নিউ রয়েল ফেব্রিক্স এফ-৪৫ (২য় তলা), মোবা: ০১৮১৯-৪৩৩৪৪৬।
মেলোডী ওয়্যার গ্যালারী এফ-৩৫/৪৬ (২য় তলা), মোবা: ০১৭২৬-৬৮১৪১২।
নিউ শশী জুয়েলার্স এফ-৪৭ (২য় তলা), মোবা: ০১৮১৯-১৯২৬৮৭।
পরাগ শাড়ী বাউজ এফ-১২ (২য় তলা), মোবা: ০১৭১১-১৯২৪৪৭।
টাঙ্গাইল শাড়ী মেলা এফ-৩ (২য় তলা), মোবা: ০১৭১৬-১১২৭১৪।
মল্লিকা শাড়ী বিতান এফ-৪৯ (২য় তলা), মোবা: ০১৭১৫-০৭৯৭৪৮।
নুশিন ফ্যাশন এফ-৯৮ (২য় তলা), মোবা: ০১৮১৬-৫৬১৮০১।
প্যারাডাইস জুয়েলার্স এফ-৯৬ (২য় তলা), মোবা: ০১৮১২-৪৬১৪৩৯।
নিউ রাজকণ্যা শাড়ী এফ-৯২ (২য় তলা), মোবা: ০১৭১৬-৭০৮০৫৯।
মারিয়া জুয়েলার্স এফ-৫ (২য় তলা), মোবা: ০১৭১২-২৩৫৪৩২।
নিউ খাঁন জুয়েলার্স এফ-২৬ (২য় তলা), মোবা: ০১৯১৩-১২৮৪৪৪।
মিরাজ জুয়েলার্স এফ-১২৪ (২য় তলা), মোবা: ০১৭৩২-২৬৮৫০৩।
নিউ মুন জুয়েলার্স এফ-১৩ (২য় তলা), মোবা: ০১৭৪৩-১৮৩৪৬৯।
রূপমা জুয়েলার্স এফ-১২০ (২য় তলা), মোবা: ০১৮৪৩-৩৩৪১৮৮।
আখি ফ্যাশন এফ-১১৪ (২য় তলা), মোবা: ০১৯২৩-৬১৯৮২৭।
আলিফ গার্মেন্টস এফ-১১১ (২য় তলা), মোবা: ০১৯১২-৪৯৪৭১১।
দি ফেমাস্ জুয়েলার্স এফ-১১৫ (২য় তলা), মোবা: ০১৯৩০-৫৬৪৬৫০।
দি কনফিডেন্স জুয়েলার্স এফ-১২১ (২য় তলা), মোবা: ০১৭১৬-৪৭৯০১৫।
স্বর্ণালী জুয়েলার্স এফ-১২৭ (২য় তলা), মোবা: ০১৯৩৭-০৬৩৫০৬।
পার্টেক্স টেক্সটাইল লি. এফ-১/২ (২য় তলা), মোবা: ০১৭২৪-২৮৯৬৬৫।
জেনুইন জুয়েলার্স লি. এফ-৫/৬ (২য় তলা), মোবা: ০১৭১১-৮০৮২৯২।
আলী সিলভার হাউজ এফ-১২৮ (২য় তলা), মোবা: ০১৭২৪-১৪৬৭০১।
নূর জাহান শপিং সেন্টার এফ-৭৩/৭৪ (২য় তলা), মোবা: ০১৭১৮-১৪৪৯১০।
মেক্স টেইলার্স এণ্ড ফেব্রিক্স এফ-১০১ (৩য় তলা), মোবা: ০১৯১৭-৩৭২০২০।
নাদের ফেব্রিক্স এফ-১০০ (৩য় তলা), মোবা: ০১৭১১-১০৪৫০৩।
তাঁত মেলা এফ-৭৪ (৩য় তলা), মোবা: ০১৭১৮-৫১৪৪৪৬।
চন্দ্র মূখী লেডিস টেইলার্স দোকান- ১০২ (৩য় তলা), মোবা: ০১৭১২-৯৭২০৮২।
ডালাস হ্যাণ্ডি ক্র্যাফট এণ্ড সুতাঘর দোকান- ১০৫/১০৭ (৩য় তলা), মোবা: ০১৭৩১-০৫৬৭৬৩।
আঁখি মনি লেডিস টেইলার্স দোকান- ১০৩ (৩য় তলা), মোবা:০১৭১৫-৪২৮৫৪৪।
জননী টেইলার্স ডি-২০৩ (৩য় তলা), মোবা: ০১৫৫৩৫৩৭৭৯০।
নিউ বোরকা হাউজ দোকান- ৯০ (৩য় তলা), মোবা: ০১৮১৯-৯০২২৫৪।
ত্ব-সীন ফ্যাশন দোকান- ৯৪ (৩য় তলা), মোবা: ০১৯১১-০৩০৭১৮।
মীম বোরকা হাউজ দোকান- ৬ (৩য় তলা), মোবা: ০১৭১১-১৭৯৯৮৯।
মক্কা মদিনা বোরকা হাউজ দোকান- ৮৬ (৩য় তলা), মোবা: ০১৭৩০-৯৪৩৯৯৬।
স্বর্ণা মনি ফ্যাশন দোকান- ৮৪ (৩য় তলা), মোবা: ০১৯২২-৪২২৯৭৯।
আমিন বোরকা হাউজ দোকান- ৯১ (৩য় তলা), মোবা: ০১৭৩৫-৯৪৪০৭২।
সুবর্ণা টেইলার্স এণ্ড বোরকা হাউজ দোকান- ৯৩/৯৫ (৩য় তলা), মোবা: ০১৭১৬-৮৬৫৭৭০।
রুবাব ফ্যাশন দোকান- ৭৬ (৩য় তলা), মোবা: ০১৭১৯-৫২৪১২৭।
নিউ মায়ের আঁচল দোকান- ৭৮ (৩য় তলা), মোবা: ০১৭১৫-৮৮৫৭৯২।
টপ ফেয়ার টেইলার্স দোকান- ৮০/৮১ (৩য় তলা), মোবা: ০১৯১৩-৪৭৩৭৪৫।
ফেরদৌসী ফ্যাশন দোকান- ৮২ (৩য় তলা), মোবা: ০১৮১৯-৫১৯৫৭৮।
নিউ সানমুন টেইলার্স এণ্ড ফেব্রিক্স দোকান- ৩৫/এ/৪৪ (৩য় তলা), মোবা: ০১৬৭৪-০৯২৭১৮।
লিভ্যাস ফেব্রিক্স দোকান- ৪৫/এ (৩য় তলা), মোবা: ০১৭১৫-১০৩৬৮৬।
অরিচ কালেকশন দোকান- ৭৯/৪৫ (৩য় তলা), মোবা: ০১৯১১-০৯৯৭৭৫।
নাসিমা ফ্যাশন দোকান- ৩/৪৬ (৩য় তলা), মোবা: ০১৭১৫-৪১৩৪৭৭।
সুলতানা ফ্যাশন দোকান- ১২০ (৩য় তলা), মোবা: ০১৮১৯-৫০৬৮৫৮।
আল-মদিনা বোরকা হাউজ দোকান- ১২৭ (৩য় তলা), মোবা: ০১৭৭৭-৯২৪৯৪৯।
নুসরাত বোরকা হাউজ দোকান- ১২৮ (৩য় তলা), মোবা: ০১৯২০-৯৯১৮৮৫।
বিসমিল্লাহ বোরকা হাউজ দোকান- ৮৯ (৩য় তলা), মোবা: ০১৭১৯-০০৪০৮৬।
লিমা ফেব্রিক্স দোকান- ৮৮ (৩য় তলা), মোবা: ০১৯২৯-২০৫৯২১।
সোহেলী বোরকা হাউজ দোকান- ৮৭ (৩য় তলা), মোবা: ০১৮৩২-৭৭৫৩৪২।
কলকাতা ফ্যাশন দোকান- ৮৯/এ (৩য় তলা), মোবা: ০১৭১৫-২৫৩৫৬৫।
ইরানী বোরকা হাউজ দোকান- ১৪৬/এ (৩য় তলা), মোবা: ০১৯১২-৯৮৮৯৮৯।
টেল নেট দোকান- ১৪৭ (৩য় তলা), মোবা: ০১৭১৬-৬৪৮৮৫৯।
জননী জুয়েলার্স এফ-১২৩ (৩য় তলা), মোবা: ০১৯২৯-৭৩০২১৬।
তাঁত বুনোন দোকান- ৫৫ (৩য় তলা), মোবা: ০১৯২৯-৩৯৭২২৭।
রিতু এন্টারপ্রাইজ দোকান- ৭৩/৭৪ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৭১৬-৫৯৫২৮২।
জেরিন টেলিকম দোকান- ৮১ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৭১৮-৭৪৫৩৫৩।
মা টেলিকম এণ্ড মোবাইল সার্ভিসিং দোকান- ১০১/এ (৪র্থ তলা) মোবা: ০১৯২৪-৯০১৫৮১।
সরকার এন্টারপ্রাইজ দোকান- ৮৬ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৭৪৯-৫১১৭৫৫।
রিয়ান টেলিকম দোকান- ৫ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৯১১-৮৮৯৯২০।
রায়েশা নুর টেলিকম দোকান- ৯০ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১১৯৮-১৮১৪১৬।
হেলাল টেলিকম দোকান- ৪/১১ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৯২৩-২২০২২১।
মাসাকী এন্টারপ্রাইজ দোকান- ১৩৯-১৪১ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৯২০-৩০০৩৭৫।
এ এন টেলিকম দোকান- ১৩৪ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৮১৮-৮০৬০০০।
পাপিয়া টেলিকম এণ্ড সার্ভিসিং সেন্টার দোকান- ১২১ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৭৬৩-৬৭৫২৩০।
উজ্জ্বল টেলিকম দোকান- ১১৭ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৯২৬-৬২২২১১।
বিজয় টেলিকম দোকান- ১১৬ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৮১৫-০২৪৮৭৫।
রাহুলস মোবাইল কেয়ার দোকান- ১০০ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৯২০-৩০০৩৭৫।
মোবাইল ফ্যাশন দোকান- ৯৮ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৯৭৮-৬৬৩৩৬৬।
আজিজ টেলিকম দোকান- ৯৭ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৭১২-৩৮৭৮৪৫।
ম্যাক এন্টারপ্রাইজ দোকান- ৯৫ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৯২৮-৬১৯৫৬১।
জেরিন টেলিকম দোকান- ৯৪ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৭২৪-৮৪৯৬২৩।
রিতু  সার্ভিসিং সেন্টার দোকান- ৯১ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৮১৩-৬৮৮৯৯৬।
মুহিন টেলিকম দোকান- ৮১ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৭১৮-৭৪৫৩৫৩।
তাসমিহা-সিয়াম মোবাইল পার্ক দোকান- ৮৩ (৫ম তলা), মোবা: ০১৭১৫-৮৯০৫০৯।
শিরোপা বস্ত্রালয় দোকান- ১৩৪, মোবা: ০১৮১১-১১৮১৭৪।

গ্রেটওয়াল শপিং সেন্টার

গ্রেটওয়াল শপিং সেন্টারটি ২০০৩ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় রাজধানীর সদরঘাটে। রাজধানীর সদরঘাট এলাকাসহ পুরানো ঢাকা এলাকার বাসিন্দাদের নিকট এ শপিং সেন্টারটি বেশ প্রিয়।

ঠিকানা , গ্রেটওয়াল শপিং সেন্টার, চিত্তরঞ্জন এভিনিউ, সদরঘাট, ঢাকা- ১১০০।

মার্কেটের বর্ণনা

ঢাকা সদরঘাট রোডের পূর্ব পাশে এ মার্কেটটি অবস্থিত। এ মার্কেট ভবনটি মোট ১১ তলা বিশিষ্ট। তবে ৪র্থ তলা পর্যন্ত মার্কেট। বাকী তলাগুলো ব্যাংক, বীমা ও গোডাউন। এ মার্কেটের আন্ডাগ্রাউন্ডে থ্রি-পিছ, শাড়ীর দোকান রয়েছে।

১ম তলায়- পাঞ্জাবী, থ্রি-পিছ, রেডিমেড গার্মেন্টস ইত্যাদি।

২য় তলায়- প্যান্ট, শার্ট, ফ্রক ও বাচ্চাদের জামা-কাপড় কিনতে পাওয়া যায়।

৩য় তলায়- মোবাইল ফোন মার্কেট এখানে মোবাইল বিক্রি ও মেরামত, মোবাইলের পার্টস, ব্যাটারী, চার্জার, হেডফোন ইত্যাদি সামগ্রী বিক্রি হয়।

৪র্থ তলায়- শুধু মাত্র জুতার দোকান।

সিঁড়ি লিফট

এই মার্কেটে সিঁড়ি ছাড়াও দুটি লিফট ও চলন্ত সিঁড়ি রয়েছে।

প্রাপ্ত কয়েকটি পণ্য সামগ্রী

এ মার্কেটে যেসকল পণ্য সামগ্রী পাওয়া যায় তার তালিকা ও মূল্যসহ দেওয়া হল-

গ্রেটওয়াল শপিং সেন্টারে মূলত খুচরা হিসাবে কাপড় বিক্রি করা হয়।

পণ্যের নাম সর্বনিম্ন দাম সর্বোচ্চ দাম
প্যান্ট ৪০০ টাকা ১,২০০ টাকা
শার্ট ২৫০ টাকা ৮০০ টাকা
বাচ্চাদের শার্ট-প্যান্ট সেট ৩০০ টাকা ৬০০ টাকা
শাড়ী ৪০০ টাকা ১,২০০ টাকা
থ্রি-পিস ৫০০ টাকা ১,০০০ টাকা
পাঞ্জাবী ৩০০ টাকা ১,২০০ টাকা
জুতা ২৫০ টাকা ১,৮০০ টাকা
মোবাইল ২,০০০ টাকা ১‌২,০০০ টাকা

এখানে সাধারণত বিদেশী পণ্য সামগ্রী পাওয়া যায় না।

একদরের দোকান

এখানে একদরের দোকানগুলোর মধ্যে রয়েছে প্রাইড শাড়ী, গ্যালারী এ্যাপ্রেক্স ও বাটার শো-রুম।

পণ্য ক্রয়ে ওয়ারেন্টি পণ্য ফেরত

পণ্য সামগ্রী ভেদে এখানে ওয়ারেন্টি দেওয়া হয়। এক্ষেত্রে শর্ত হচ্ছে পণ্য নেওয়ার পর ধোয়া যাবেনা, পণ্য ময়লা করা যাবেনা অথবা

ছেঁড়া যাবেনা এবং ২ থেকে ৩ দিনের মধ্যে পণ্য পরিবর্তন করে নিতে হবে। পণ্য পরিবর্তন করতে হলে একই মানের পণ্য নিতে হবে, কোন অবস্থাতেই টাকা ফেরত দেওয়া হয় না।

বিভিন্ন উৎসবে বিভিন্ন আয়োজন

ক) এ মার্কেটে সারা বছরই ক্রেতা আসেন। তবে বিভিন্ন উৎসব যেমন- ঈদ, পূজা ইত্যাদি উপলক্ষ্যে ক্রেতার আগমন বেশি হয়। ঋতুভেদে পোশাকের যেমন  পরিবতর্ন হয় তেমনি চাহিদার সঙ্গে মানিয়ে এখানে পোশাক পাওয় যায়। যেমন-

গরমকালে- হাফ হাতা শার্ট, গ্যাবার্ডিন প্যান্ট, পাতলা সুতি কাপড়ের ফতুয়া ইত্যাদি।

শীতকালে- মোটা কাপড়, জ্যাকেট, চাদর, মাথা ঢাকার টুপি, সোয়েটার ইত্যাদি পাওয়া যায়।

খ) মুসলামদের ধর্মীয় উৎসব বছরের দুই বার আসে। এর আগে মার্কেট কর্তৃপক্ষ ক্রেতাদের জন্য বিশেষ আকর্ষন হিসেবে লটারী  কুপনের ব্যবস্থা করে থাকে। যেমন- অন্তত ৫০০ টাকা পণ্য কিনলে একটি লটারী কুপন দেওয়া হয়। ঈদের পরবর্তী সময়ে এর ড্র ঘোষনা করা হয় এতে পুরস্কার হিসাবে থাকে টিভি, ফ্রিজ, মোটর-সাইকেলসহ আরও অনেক পুরস্কার।

খাবার দোকান

এখানে উল্লেখযোগ্য তেমন খাবারের দোকান নেই তবে, দোতলায় একটি কনফেকশনারী রয়েছে। যা মার্কেটের একেবারে পূর্ব প্রান্তে অবস্থিত।

খোলাবন্ধের সময়সূচী

এটি শুক্রাবার পূর্ণ দিবস ও শনিবার অর্ধদিবস বন্ধ থাকে এ মার্কেট। বাকী পাঁচ দিন সকাল ১০ থেকে রাত ৮ টা পর্যন্ত খোলা থাকে।

গাড়ি পার্কিং

এখানে গাড়ি পার্কিং এর জন্য তেমন কোন সু-ব্যবস্থা নেই।

টয়লেট ব্যবস্থা

গ্রেট ওয়াল শপিং সেন্টারে দোকান মালিক ও ক্রেতা সাধারণের সুবিধার্থে পুরুষ ও মহিলাদের জন্য আলাদা টয়লেটের ব্যবস্থা আছে। টয়লেট ব্যবহারের জন্য ৩ টাকা ও ৫ টাকা হারে চার্জ প্রদান করতে হয়। এ টয়লেটটি মার্কেটের দক্ষিণ-পূর্ব প্রান্তে অবস্থিত।

নাভানা শপিং কমপ্লেক্স

তিলোত্তমা ঢাকা মহানগরীর অভিজাত গুলশান ১ নং গোলচত্ত্বরের সন্নিকটে ২০০১ সালে যাত্রা শুরু করে নাভানা শপিংমল। প্রবেশের জন্য মার্কেটের উত্তর ও দক্ষিণ দিক দিয়ে দুটি প্রবেশ পথ রয়েছে।

অবস্থান ঠিকানা = গুলশান ১ নং গোলচত্ত্বরের উত্তর পশ্চিম কোনায় নাভানা শপিং কমপ্লেক্স অবস্থিত। এর ঠিকানা ৪৫, গুলশান এভিনিউ, গুলশান-১, ঢাকা।

সময়সূচী = রবিবার ছাড়া সপ্তাহের বাকী দিন সকাল ১০ টা থেকে রাত ৮ টা পর্যন্ত মার্কেট খোলা থাকে।

অভ্যন্তরীণ পরিবেশ

  • মার্কেটটি কেন্দ্রীয়ভাবে শীতাতাপ নিয়ন্ত্রিত।
  • অগ্নি নির্বাপণের জন্য মার্কেটের প্রত্যেক তলার কোনায় কোনায় ছোট ছোট অগ্নি নির্বাপণ যন্ত্র রয়েছে।
  • মার্কেটটিতে উঠানামা করার জন্য দুটি চলন্ত সিঁড়ির ব্যবস্থা রয়েছে। এটি মার্কেটের দক্ষিণ দিকে অবস্থিত।

যেসব পণ্য সামগ্রী পাওয়া যায়

সাধারণত চীন, মালয়েশিয়া, থাইল্যান্ড, বৃটেন, আমেরিকা থেকে আমদানী করা সানগ্লাস, এসি, ফ্রিজ, কসমেটিক্স, শাড়ি, খেলনা, গার্মেন্টস পণ্য, শিশু পোষাক, স্বর্ন, হীরা এবং ইমিটেশন পাওয়া যায়। মার্কেটের নিচতলাতে ইলেক্ট্রনিক্স পণ্যের দোকান ও রেন্ট-এ-কারের অফিস, ২য় তলাতে পারফিউম কসমেটিক্স, ৩য় তলাতে শিশুদের পোষাক খেলনা, ৪র্থ তলাতে জুয়েলারী ও শাড়ীর দোকান এবং ৫ম তলাতে সম্পূর্ণ ফুড জোন রয়েছে। এছাড়া গ্রীষ্মকাল ও শীতকালে আলাদা আলাদা কসমেটিকস ও পোষাক পাওয়া যায়। এখানে পাইকারী সামগ্রী বিক্রির কোন ব্যবস্থা নেই।

প্রাপ্ত পণ্যের মান

এসি ফ্রিজ টিভির ক্ষেত্রে ৫ বছরের ওয়ারেন্টি দেওয়া হয়ে থাকে। এখানে সঠিক মাপে ও ভালো মানের স্বর্ণ পাওয়া যায়। পোশাকের ক্ষেত্রে ৬ মাসের রং এর গ্যারান্টি দেওয়া হয়।

ক্রেতা সাধারণ

এই মার্কেটে বাংলাদেশে বসবাসরত বিদেশী নাগরিক এবং দেশের উচ্চবিত্ত শ্রেণীর লোকেরা কেনাকাটা করতে আসে।

ছাড়ের ব্যবস্থা

ঈদ, পূজা, বর্ষবরণ  উৎসবের সময় ইলেক্ট্রনিক্স পণ্য, শাড়ী, কসমেটিক্স ও শিশু সামগ্রীর দোকানে ১০ % মূল্য ছাড় দিয়ে থাকে দোকানীরা।

টয়লেটের ব্যবস্থা

এই মার্কেটের প্রত্যেক তলার উত্তর পাশে টয়লেটের ব্যবস্থা রয়েছে। মহিলাদের জন্য ২টি এবং পুরুষদের জন্য ৪ টি টয়লেট রয়েছে। বিনা পয়সায় টয়লেট ব্যবহার করা যায়।

গাড়ি পার্কিং

নাভানা টাওয়ার শপিং কমপ্লেক্সের আন্ডারগ্রাউন্ডে ১০০ টি গাড়ি পার্ক করা যায়। পার্কিং এ আলাদা কোন চার্জ দিতে হয় না। তবে গার্ডদের কিছু বকশিস দিতে হয়। গাড়ি পার্কিং এর জন্য নির্দিষ্ট সময়সীমা নেই।

বিবিধ

  • এই মার্কেটে লিফটের কোন ব্যবস্থা নেই।
  • প্রবেশপথে মেটাল ডিটেক্টর দিয়ে প্রত্যেককে পরীক্ষা করে প্রবেশ করতে দেওয়া হয়।
  • মার্কেটের অভ্যন্তরে কোন ব্যাংকের এটিএম বুথ নেই।

মোল্লা টাওয়ার শপিং কমপ্লেক্স

৪৬৪, পশ্চিম রামপুরা, রামপুরা, ঢাকা। ২০০১ ইং সালে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। শপিং মলটি আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সম্পন্ন, নিজস্ব স্ট্যান্ডবাই জেনারেটর সুবিধাসহ  লিফট সম্বলিত এবং টাইলস সজ্জিত নতুন ভবনে অবস্থিত। এখানে মোট দোকান সংখ্যা ২০২ টি। মালিক কর্তৃপক্ষ কর্তৃক শপিং মলটি পরিচালিত হয়।

লোকেশন = রামপুরা টিভি সেন্টারের বিপরীত পাশে এই শপিং কমপ্লেক্সটি অবস্থিত।

যোগাযোগ = ফোন: ০২-৭২৮১০২৯ , মোবাইল: ০১৭২৭-২০৯৬৯৮

ভবনের বিবরন = দশতলা বিশিষ্ট ভবনের ১ম ৪ (চার) তলা মার্কেট।

পণ্যসামগ্রীর বিবরন

প্রথম তলা কসমেটিক্স, ক্রোকারিজ, গিফট, সুতা, বোতাম, পার্লার, ফাষ্ট ফুড সপ ইত্যাদি।
দ্বিতীয় তলা রেডিমেট পোষাক, শার্ট, প্যান্ট, বেডিং, থ্রিপিস ইত্যাদি।
তৃতীয় তলা জুয়েলারী, মোবাইল, জুতা, টেইলার্স ইত্যাদি।
চতূর্থ তলা মোবাইল, ইলেকট্রনিক্স, ফুড কোর্ট, চশমা, ঘড়ি ইত্যাদি।

পণ্যসামগ্রীর মান, মুল্য এবং ক্রেতা

  • এখানে প্রাপ্ত পণ্য সামগ্রীর মান ভাল।
  • পণ্য সামগ্রী কোন কোন দোকানে একদরে বিক্রয় হয়। আবার কোন কোন দোকানে দর কষাকষি করে ক্রয় করতে হয়।
  • এখানে সাধারণত মধ্যবিত্ত এবং নিম্ন মধ্যবিত্ত সহ প্রায় সকল শ্রেণীর ক্রেতাগণ কেনাকাটা করতে আসেন।

গাড়ী পার্কিং ব্যবস্থা

  • এখানে নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় ১২০ (একশত বিশ) টি গাড়ী পার্কিং এর ব্যবস্থা রয়েছে।

টয়লেট ব্যবস্থা

  • প্রত্যেক ফ্লোরে টয়লেট সুবিধা রয়েছে।
  • মহিলাদের জন্য পৃথক টয়লেট ব্যবস্থা রয়েছে।
  • সার্বক্ষণিক টয়লেট পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখা হয়।

এস্কেলেটর সুবিধা = এখানে এস্কেলেটর সুবিধা নাই।

নিরাপত্তা ব্যবস্থা = মার্কেটটির নিরাপত্তার জন্য সিসিটিভি নেই। এছাড়া এখানে নিজস্ব একদল প্রশিক্ষিত ও চৌকস সিকিউরিটি গার্ড রয়েছে, মার্কেটের সার্বিক নিরাপত্তার দায়িত্ব তারা খু্বই দক্ষতার সাথে দায়িত্ব পালন করে আসছে।

মেট্রো শপিং মল, ধানমন্ডি

ধানমন্ডি ৩২ নং সড়ক।

শপিং মলটি আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সম্পন্ন, এস্কেলেটর সুবিধা, নিজস্ব স্ট্যান্ডবাই জেনারেটর সুবিধাসহ শীতাতপ নিয়ন্ত্রীত এবং টাইলস সজ্জিত নতুন ভবনে অবস্থিত। এখানে মোট দোকান সংখ্যা ৪০০ টি। মালিক সমিতি কর্তৃক শপিং মলটি পরিচালিত হয়।

লোকেশন

কলাবাগান বাসস্ট্যান্ড থেকে রাসেল স্কয়ার হয়ে রোড ১১ এর মোড় পেরিয়ে শুক্রবাদ রোড মুখী রাস্তার বিপরীত পাশে মাস্টার মাইন্ড স্কুলের পাশে এটি অবস্থিত।

পণ্যসামগ্রীর বিবরণ

প্রথম তলা প্রসাধনী সামগ্রী, স্বর্ণের দোকান, জুতা, ফ্যাশন হাউজ (ছেলে/মেয়ে) ইত্যাদি।
দ্বিতীয় তলা শিশুদের খেলা, হাতের ব্যাগ, স্বর্ণের দোকান ইত্যাদি।
তৃতীয় তলা মহিলাদের পোষাক, থ্রীপিছ, শাড়ি, এপেক্স গ্যালারী ইত্যাদি।
চতূর্থ তলা স্বর্নের দোকান, ফ্যাশন হাউজ (ছেলে/মেয়ে), পাঞ্জাবী, ফুড কোর্ট ইত্যাদি।
পঞ্চম তলা বিভিন্ন অফিস।
ষষ্ঠ তলা মোবাইল শপ, সিডি/ডিভিডি শপ।

পণ্যসামগ্রীর মান, মুল্য এবং ক্রেতা

  • এখানে প্রাপ্ত পন্য সামগ্রীর মান ভাল।
  • পন্য সামগ্রী কোন কোন দোকানে একদরে বিক্রয় হয়। আবার কোন কোন দোকানে দর কষাকষি করে ক্রয় করতে হয়।
  • এখানে সাধারনত উচ্চবিত্ত, উচ্চ-মধ্যবিত্ত এবং মধ্যবিত্ত শ্রেনীর ক্রতাগন কেনাকাটা করতে আসেন।
  • এখানে ক্যাশের সাথে সাথে ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমেও খরচ পরিশোধ করা যায়।

গাড়ী পার্কিং ব্যবস্থা

  • এখানে গাড়ী পার্কিং এর নিজস্ব ব্যবস্থা রয়েছে। নিজস্ব পার্কিং ব্যবস্থাপনয় ২৫ টি গাড়ী পার্ক করা যায়। গাড়ী পার্কিং এর জন্য চার্জ দিতে হয়।

টয়লেট ব্যবস্থা

  • টয়লেট সুবিধা রয়েছে।
  • এখানে প্রত্যেকটি ফ্লোরে পুরুষ এবং মহিলাদের পৃথক টয়লেট ব্যবস্থা রয়েছে।
  • সার্বক্ষনিক টয়লেট পরিচ্ছন্ন রাখা হয়।

নিরাপত্তা ব্যবস্থা

  • সিসিটিভি নেই। তবে এখানে নিজস্ব একদল প্রশিক্ষিত ও চৌকস সিকিউরিটি গার্ড রয়েছে, মার্কেটের সার্বিক নিরাপত্তার দায়িত্ব তারা খু্বই দক্ষতার সাথে পালন করে আসছে।

ওযু এবং নামাজের ব্যবস্থা

  • এখানে ওযু এবং নামাজের ব্যবস্থা আছে।

খোলা/বন্ধের সময়

  • সপ্তাহের মঙ্গলবার বন্ধ থাকে। সকাল ৯.০০ টা থেকে রাত ৮.০০ টা পর্যন্ত খোলা থাকে।

ভিড় এড়াতে চান

  • শুক্রবার এবং শনিবার ভিড় হয়।  সাধারনত দুপুর এবং রাতের বেলা একটু বেশী ভিড় থাকে।

মেট্টো শপিং মল এর দোকাকানের নাম, ঠিকানা মোবাইল নম্বর:    

দোকানের নাম দোকানের ঠিকানা ও মোবাইল নম্বর
মীম কালেকশন দোকান- ১০৮ (নীচ তলা), মোবা: ০১৭২৮-৮০৩০৭৩।
রিচম্যান দোকান- ১০৫ (নীচ তলা), ফোন: ৯১১১৩২৭।
ম্যাকয়্ দোকান- ১০৯ (নীচ তলা), মোবা: ০১৭৩১-৯১১১২৯।
মেসিন ফেয়ার ফ্যাশন ওয়ার্ল্ড দোকান- ১৩৮ (নীচ তলা), ফোন: ৯১১৯১৫৬।
আজমির জেনারেল স্টোর দোকান- ২০৮ (২য় তলা), মোবা: ০১৯৩৬-১০২৯৮৪।
নামিরা কালেকশন দোকান- ২০৯ (২য় তলা), মোবা: ০১৮১৯-২০০১১৪।
পপুলার সুজ দোকান- ২১১ (২য় তলা), মোবা: ০১৭১২-২২৩৬১৭।
কে. জেট. ফ্যাশন জুয়েলারী দোকান- ২৫২ (২য় তলা), ফোন: ০২-৯১০৪৮৮০।
পরমা জুয়েরারী দোকান- ২০১ (২য় তলা), মোবা: ০১৭১২-০০৪৩৮২।
প্যানথার দোকান- ২০৩ (২য় তলা), মোবা: ০১৮১৯-১৮৭০৭০।
ম্যান ওয়ান দোকান- ২০৫ (২য় তলা), ফোন: ৯১০২১৪৬।
হি এণ্ড শি দোকান- ২৩৯ (২য় তলা), মোবা: ০১৭২০-৯৫৮৮৪২।
ব্যাগ কালেকশন দোকান- ২৩৮/বি (২য় তলা), মোবা: ০১৬৭৫-৭২২৭৭৫।
নিক নেক দোকান- ২৩৭ (২য় তলা), মোবা: ০১৯১১-৩৪১১৯৬।
অর্নামেন্ট ফেয়ার জুয়েলারী দোকান- ২৩৫ (২য় তলা), মোবা: ০১৭১০-৭৬৮৪০৮।
স্বর্ণা স্টাইল দোকান- ২৪০ (২য় তলা), ফোন: ৮১৫৬২৩৭।
মম হোলসেলার দোকান- ২৪০ (২য় তলা), মোবা: ০১৭১৮-৩৭০৪৬০।
সুমন’স গ্যালারী দোকান- ২২৪ (২য় তলা), মোবা: ০১৮৩১-৩৩১১৬৪।
শপিং ফেস্টিভেল দোকান- ২২২ (২য় তলা), ফোন: ৯১৪৩৫৯৫।
ওয়েস্টাইল লিভিং দোকান- ২২০ (২য় তলা), মোবা: ০১৭১৫-৬৩৮৭০৫।
বিগ বেল ম্যানস উইয়ার দোকান- ২১৯ (২য় তলা), ফোন: ৯১৩২৮৫৪।
সুজ এন সুজ দোকান- ২১৮ (২য় তলা), ফোন: ৯১২৫০৮০।
ডিং ডং ফ্যাশন উইয়ার দোকান- ২১৫ (২য় তলা), ফোন: ৯১০২০২৪।
রিসেন্ট সুজ দোকান- ২১২ (২য় তলা), মোবা: ০১৭৪০-৯০৩১৫৫।
মামনী দোকান- ৩৩৭ (৩য় তলা), মোবা: ০১৯১৫-১৬১০৮২।
জয়যাত্রা দোকান- ৩২২ (৩য় তলা), মোবা: ০১৯৪৯-৩০৯৭২৮।
তারাজ দোকান- ৩২১ (৩য় তলা), মোবা: ০১৯১১-৭৯২৫৬৫।
দি এ্যাকটিভ গ্যালারী ফ্যাশন উইয়ার দোকান- ৩২৯ (৩য় তলা), মোবা: ০১৯১৩-২৬১৯৬৬।
ম্যান হুড  ফ্যাশন উইয়ার দোকান- ৩৩০ (৩য় তলা), মোবা: ০১৬৭৬-২৪৬৪২৬।
এ্যারাবিয়ান জুয়েলার্স দোকান- ৩৩৪ (৩য় তলা), মোবা: ০১৭১১-০৩৩৮৭৯।
অর্চিতা বুটিক ঘর দোকান- ৩২০ (৩য় তলা), মোবা: ০১৯১৩-০৬৬৬৪৫।
ফ্রেন্স ক্রিয়েটিভ ফ্যাশন হাউজ দোকান- ৩০২ (৩য় তলা), মোবা: ০১৭১১-৫৮০০৮৩।
ক্যানভাজ দোকান- ৩৪০ (৩য় তলা), মোবা: ০১৬৭৮-০৪৭৬০১।
এ্যাপেক্স গ্যালারী দোকান- ৩০৬ (৩য় তলা), মোবা: ০১৭৩৩-২৪৯০৬৭।
ওপেন বাইসকপ দোকান- ৩৩৮ (৩য় তলা), মোবা: ০১৭৪১-৩৬২৭৭৪।
সারদা বুটিক দোকান- ৩৩৯ (৩য় তলা), মোবা: ০১৭২০-৫৩৬০৫৪।
ক্যাটহাই র‌্যাডিম্যাড  গার্মেন্টস দোকান- ৩০৯ (৩য় তলা), ফোন: ৮১১৪৬৬২।
দিগন্ত চাইল্ড উইয়ার দোকান- ৩১১ (৩য় তলা), মোবা: ০১৭১১-৩৬৭৮১৯।
নীলমনি শাড়ী এণ্ড জুয়েরার্স দোকান- ৩১২ (৩য় তলা), মোবা: ০১৭৩৮-৩০০৯৫৭।
 ভিক্টরিয়া জুয়েলার্স দোকান- ৩১৪ (৩য় তলা), মোবা: ০১৭১৭-৬৪৭৪৬৩।
সোপার স্টোর দোকান- ৩১৫ (৩য় তলা), মোবা: ০১৭১১-৬৩৮০৬২।
আর্টোনিজ দোকান- ৩২৪ (৩য় তলা), মোবা: ৯১০১৭৯৫।
ম্যাঠো পথ দোকান- ৩৪১ (৩য় তলা), মোবা: ০১৯৬৩-০৯৮২৪২।
নক্ষত্র দোকান- ৪২৬  (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৭১১-০১৭৪২০।
নিশা টেকনোলজি দোকান- ৪৫০ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৬৭৬-৯৮৬৪২৭।
এস.এম. টেলিকম দোকান- ৪৪৮ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৭২৮-৫৮২০৮০।
মোবাইল জোন দোকান- ৪৪৪ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৯১৯-৪১৩০০০।
ফাহিম টেল দোকান- ৪৪০ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৭১২-৮০৫২৬৩।
এ কম্প্লিট মোবাইল শপ দোকান- ৪৪৩ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৬৭০-৬৭৮১৭১।
এন. ইসলাম টেলিকম দোকান- ৪৪৫ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৭১১-২৪৮২৭৬।
এস.কে. টেলিকম দোকান- ৪৪৭ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৭১৭-৭২৮৮৯৯।
ইনটেক্স মোবাইল জোনগ দোকান- ৪৪৯ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৭২৯৩৩৫৫৫৮।
উয়ু হু দোকান- ৪১৯ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৭১৭-৬০২০৮০।
পি. ডি. পপস স্টাইলিশ দোকান- ৪১৮ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৭৪২-১৪২২৪৫।
আনন অর্নামেন্ট দোকান- ৪২৯ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৮৪৩-৫৯০২৭২।
জজ কম্পিউটার দোকান- ৪১২ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৮১৯-১৬৯১০৩।
মেঘ দোকান- ৪৩০ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১১৯৭-২৬০৩৯২।
দেশাল দোকান- ৪৪০ (৪র্থ তলা), মোবা: ০২-৮০৫৩১৭২।
জুক বক্স দোকান- ৪০৯ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৯৩৮-০১৬৪১৮।
ক্রেজি মার্ট দোকান- ৪২৫ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৬৭৫-৩২৫১৮৪।
তিশা টেলিকম দোকান- ৪০১ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৭৩৫-০০০০৪১।
অডিট টেলিকম দোকান- ৪০২ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৭২০-০৩৮৯০৬।
ওয়েস্টার্ন পিজা ফাস্ট ফুড জুস দোকান- ৪০৪ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৭১২-২০০৪৪৪।
সীম টেলিকম মোবাইল সার্ভিস দোকান- ৪৫১ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৭১৫-৭৫১০৪৩।
সিংগস দোকান- ৬১৪ (৬ষ্ঠ তলা), মোবা: ০১৭১২-০৯৩১২৩।
নিলয় টেলিকম দোকান- ৬৪৬ (৬ষ্ঠ তলা), মোবা: ০১৮১৯-৪৬১৮০০।
মিলিনিয়াম দোকান- ৬৩০ (৬ষ্ঠ তলা), মোবা: ০১৭১১-৬৯২২২৮।
প্যারিশ টেলিকম দোকান- ৬১১ (৬ষ্ঠ তলা), মোবা: ০১৯২২-৫৯৯৯৩৩।
ফোর জি ফিল দি ইজ দোকান- ৬০৮ (৬ষ্ঠ তলা), মোবা: ০১৯১১-৫৮৩১১০।
আই.টি. নেক্সট কম্পিউটার প্লাজ দোকান- ৬৩৮ (৬ষ্ঠ তলা), মোবা: ০১৯১১-৭৮৯৩৫৪।

বিসিএস কম্পিউটার সিটি

বেগম রোকেয়া স্বরণী, আগারগাঁও, শেরে বাংলা নগর, ঢাকা – ১২০৭। ২০০০ ইং সালে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়। শপিং মলটি আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সম্পন্ন, নিজস্ব স্ট্যান্ডবাই জেনারেটর সুবিধাসহ শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত এবং টাইলস সজ্জিত নতুন ভবনে অবস্থিত। মার্কেটটিতে মোট দোকানের সংখ্যা ৩৫০ টি। মার্কেট মালিক কর্তৃপক্ষ কর্তৃক শপিং মলটি পরিচালিত হয়। এটি দেশের বৃহত্তম কম্পিউটার মার্কেট।

লোকেশন = আগারগাঁওয়ে বাংলাদেশ পার্লামেন্ট বিল্ডিং এর সন্নিকটে এই কম্পিউটার মার্কেটটি অবস্থিত।

ভবনের বিবরন = ৪ তলা বিশিষ্ট ভবনের পুরোটাই কম্পিউটার মার্কেট।

পণ্যসামগ্রীর বিবরন

প্রথম তলা কম্পিউটার যন্ত্রাংশ ও কম্পিউটার সার্ভিসিং এর দোকান।
দ্বিতীয় তলা কম্পিউটার যন্ত্রাংশ, সার্ভিসিং, ক্যামেরা, মোবাইল এবং ল্যাপটপ এর দোকান।
তৃতীয় তলা বিভিন্ন ধরনের সিডির দোকান, ল্যাপটপ এবং আইপডের দোকান।
চতুর্থ তলা খাবারের দোকান, নামাজের জায়গা এবং কম্পিউটার সামগ্রীর দোকান।

পণ্যসামগ্রীর মান, মূল্য এবং ক্রেতা

  • এখানে প্রাপ্ত পণ্য সামগ্রীর মান অতি উত্তম।
  • পণ্য সামগ্রী কোন কোন দোকানে একদরে বিক্রয় হয়। আবার কোন কোন দোকানে দর কষাকষি করে ক্রয় করতে হয়।
  • এখানে সাধারণত উচ্চ বিত্ত এবং মধ্যবিত্ত শ্রেণীর ক্রেতাগণ কেনাকাটা করতে আসেন।
  • এখানে ক্যাশের সাথে সাথে ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমেও দোকান ভেদে বিল পরিশোধ করা যায়।

গাড়ী পার্কিং ব্যবস্থা

  • এখানে নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় ১০০ (একশত) টি গাড়ী পার্কিং এর ব্যবস্থা রয়েছে।  এছাড়া সামনের রাস্তা ও ফুটপাতে ১০০ (একশত) টি গাড়ী পার্ক করা যায়। গাড়ী পার্কিং এর জন্য নির্দিষ্ট হারে চার্জ প্রদান করতে হয়।

টয়লেট ব্যবস্থা

  • প্রত্যেক ফ্লোরে টয়লেট সুবিধা রয়েছে।
  • মহিলাদের জন্য পৃথক টয়লেট ব্যবস্থা রয়েছে।
  • সার্বক্ষণিক টয়লেট পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখা হয়।

এস্কেলেটর সুবিধা = এখানে এস্কেলেটর সুবিধা রয়েছে। এস্কেলেটর এর সংখ্যা ০৪ (চার) টি।

নিরাপত্তা ব্যবস্থা = মার্কেটটির নিরাপত্তার জন্য সিসিটিভি রয়েছে। এছাড়া এখানে নিজস্ব একদল প্রশিক্ষিত ও চৌকস সিকিউরিটি গার্ড রয়েছে, মার্কেটের সার্বিক নিরাপত্তার দায়িত্ব তারা খু্বই দক্ষতার সাথে পালন করে আসছে।

খোলা/বন্ধের সময়

  • মার্কেটটি প্রতি সপ্তাহের রবিবার বন্ধ থাকে। ছুটির দিন ব্যতীত প্রতিদিন সকাল ১০.০০ টা থেকে সন্ধ্যা ০৬.০০ টা পর্যন্ত খোলা থাকে।

ভিড় এড়াতে চান

  • শুক্রবার, শনিবার, বুধবার, বৃহস্পতিবার ক্রেতা সমাগম বেশি লক্ষ্য করা যায়। অন্যান্য দিনে সকাল ১০.০০ টা থেকে বিকাল ০৪.০০ টা পর্যন্ত এবং সচরাচর সন্ধ্যে বেলা ক্রেতাদের পদচারণা বেশি থাকে।

অর্চার্ড প্লাজা

শপিং মলটি আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সম্পন্ন, এস্কেলেটর সুবিধা, নিজস্ব স্ট্যান্ডবাই জেনারেটর সুবিধাসহ শীতাতপ নিয়ন্ত্রীত এবং টাইলস সজ্জিত নতুন ভবনে অবস্থিত। এখানে মোট দোকান সংখ্যা ২০০ টি। মালিক সমিতি কর্তৃক শপিং মলটি পরিচালিত হয়।

ঠিকানা অবস্থান

  • বাড়ী-১৭, সড়ক-৭, ধানমন্ডি, ঢাকা।
  • ল্যাব এইড মোড় থেকে কলাবাগান যেতে রাস্তার ডান দিকে এটি অবস্থিত।

পণ্যসামগ্রীর বিবরণ

প্রথম তলা ফ্যাশন হাউজ, শিশুদের রেডিমেড গার্মেন্টস, জুতো, প্রসাধনী সামগ্রী এবং খাবারের দোকান ইত্যাদি।
দ্বিতীয় তলা মহিলা এবং পুরুষের রেডিমেড পোষাক, বিখ্যাত ফ্যাশন হাউজ, শাড়ী, থ্রী পিছ ইত্যাদি।
তৃতীয় তলা মহিলা এবং পুরুষের রেডিমেড পোষাক, বিখ্যাত ফ্যাশন হাউজ, শাড়ী, থ্রী পিছ ইত্যাদি।
চতূর্থ তলা মোবাইল শো-রুম ইত্যাদি।

পণ্যসামগ্রীর মান, মুল্য এবং ক্রেতা

  • এখানে প্রাপ্ত পন্য সামগ্রীর মান ভাল।
  • পন্য সামগ্রী কোন কোন দোকানে একদরে বিক্রয় হয়। আবার কোন কোন দোকানে দর কষাকষি করে ক্রয় করতে হয়।
  • এখানে সাধারনত উচ্চবিত্ত, উচ্চ-মধ্যবিত্ত এবং মধ্যবিত্ত শ্রেনীর ক্রেতাগন কেনাকাটা করতে আসেন।
  • এখানে ক্যাশের সাথে সাথে ক্রেডিট কার্ডে যাবতীয় বিল পরিশোধ করা যায়।

গাড়ি পার্কিং ব্যবস্থা

  • এখানে গাড়ি পার্কিংয়ের নিজস্ব ব্যবস্থা রয়েছে। নিজস্ব পার্কিং ব্যবস্থাপনায় ২০ টি গাড়ি পার্কিং করা যায়।  পার্কিং এর জন্য চার্জ দিতে হয় ।

টয়লেট ব্যবস্থা

  • এখানে প্রত্যেকটি ফ্লোরে পুরুষ এবং মহিলাদের পৃথক টয়লেট ব্যবস্থা রয়েছে।
  • সার্বক্ষনিক টয়লেট পরিচ্ছন্ন রাখা হয়।

নিরাপত্তা ব্যবস্থা

  • সিসিটিভি নেই। তবে এখানে নিজস্ব একদল প্রশিক্ষিত ও চৌকস সিকিউরিটি গার্ড রয়েছে, মার্কেটের সার্বিক নিরাপত্তার দায়িত্ব তারা খু্বই দক্ষতার সাথে পালন করে আসছে।

ওযু এবং নামাজের ব্যবস্থা

  • এখানে ওযু এবং নামাজের ব্যবস্থা রয়েছে।

খোলাবন্ধের সময়

  • সপ্তাহের মঙ্গলবার বন্ধ থাকে। অন্যান্য বারে সকাল ১০.০০ টা থেকে রাত ৮.০০ টা পর্যন্ত খোলা থাকে।

ভিড় এড়াতে চান

  • প্রতিদিনই ভিড় হয়।  সাধারনত সকাল ১১.০০ টা থেকে বেলা ৩.০০ টা পর্যন্ত এবং বিকাল ৪.০০ টা থেকে রাত ৮.০০ পর্যন্ত একটু বেশি ভিড় থাকে।

আতর, তসবি, টুপির মার্কেট

দেশের ধর্মপ্রান মুসল্লীদের আল্লাহর ইবাদাতের জন্য প্রয়োজনীয় উপকরণ সরবরাহের জন্য ঢাকার বায়তুল মোকাররম মসজিদের পাশে বায়তুল মোকাররম মসজিদ মার্কেটে আতর, তসবি, জায়নামাজ, টুপি, বোরখার একটি মার্কেট রয়েছে।

অবস্থান

গুলিস্তান জিরো পয়েন্ট থেকে পূর্বদিকে ৫০ গজ সামনে জিপিও ভবন ও বায়তুল মোকাররম মসজিদের মাঝ দিয়ে পল্টনের দিকে যে রাস্তাটি গিয়েছে সেই সড়কের ডান পাশে জুয়েলার্স শো-রুমগুলোর পিছনে এই মার্কেটটি অবস্থিত।

মার্কেট খোলাবন্ধের সময়সূচী

এই মার্কেটটি সপ্তাহের শুক্রবার ও অন্যান্য সরকারী ছুটির দিনগুলোতে বন্ধ থাকে। এছাড়া সপ্তাহের অন্যান্য দিন সকাল ৯ টা থেকে রাত ৮ টা পর্যন্ত খোলা থাকে।

প্রাপ্ত পণ্যগুলো

আতর, তসবি, জায়নামাজ, টুপি, বোরখা, সুরমা, সুরমা দানি, নামাজের রুমাল, পায়ের মোজা, মিসওয়াক, মহিলাদের নামাজের ওড়না, মহিলাদের মাথার স্কাফ, মহিলাদের মাথার ক্যাপ, কাঠ ও প্লাষ্টিকের রেহেল, কুটি, হজের মালামাল, পাঞ্জাবীর বোতাম, স্কাফের ক্লিপ, বৃদ্ধদের লাঠি, বাতের চেইন।

পণ্য মূল্য

ক) আতর

নাম দেশ পরিমাণ মূল্য (টাকা)
সিলভার সৌদি আরব ৮ মি.লি. ১৫০
হাজরে আসওয়াদ সৌদি আরব ৮ মি. লি. ২৫০
বকুল ফুল —- ৮ মি. লি. ৪০
আলফারেজ সৌদি আরব ৬ মি. লি. ১২০
আলিফ জোহরা সৌদি আরব ১০০ মি. লি. ১,৫০০
দুয়াল জান্নাহ সৌদি আরব ৬ মি. লি. ২০০

খ) তসবি

নাম মান মূল্য (টাকা)
ক্রিস্টল তসবি ভাল ২০০
ক্রিস্টল তসবি সাধারণ ১০০
আকিক তসবি ভাল ১,৮০০
আকিক তসবি সাধারণ ৩০০
ডিজিটাল তসবি —— ৮০
কাউন্টার তসবি —– ২৫০
তসবি ৩৩ দানা ১৫০
তসবি সাধারণ ২০০

গ) জায়নামাজ

নাম দেশ মূল্য (টাকা)
জায়নামাজ চীন ১৫০
জায়নামাজ বাংলাদেশ ৮০
জায়নামাজ পাকিস্তান ৫০০

ঘ) টুপি

নাম দেশ মূল্য (টাকা)
পমিটুপি পাকিস্তান ৪০০
ওমানী টুপি —- ১৫০
পাকিস্তানী টুপি —- ২৫০
জালি টুপি পাকিস্তান ২০০
জালি টুপি বাংলাদেশ ৫০

ঙ) হজ্বের মালামাল

নাম মান মূল্য (টাকা)
কোমরের বেল্ট —- ৯০
গলার বেল্ট ছোট ৪০
মিনা ব্যাগ —- ৮০
জুতার ব্যাগ —- ১৫
পাথরের ব্যাগ
হাওয়ার বালিশ —- ১০৫
এহরামের কাপড় ভাল ৭৫০
এহরামের কাপড় নরমাল ৩৮০

চ) বোরখা

নাম মান মূল্য (টাকা)
ইরানী বোরখা ভাল ৫,০০০
ইরানী বোরখা নরমাল ২,০০০
সৌদি বোরখা —- ১,৫০০
বোরখা বাংলাদেশ ৪৫০

ছ) হাজী রুমাল

নাম মূল্য (টাকা)
কাশ্মিরী রুমাল ৩০০
পাকিস্তানী রুমাল ৩০০
চায়না সাদা রুমাল ৩০০
দেশী রুমাল ২৫০

জ) সুরমা

নাম পরিমাণ/ দেশ মূল্য (টাকা)
সুরমা প্রতি তোলা ৫০
সুরমাদানি ছোট ৫০
সুরমাদানি পাকিস্তানি ৬০০

ঝ) রেহেল

নাম মূল্য (টাকা)
কাঠের রেহেল ৩০০
প্লাষ্টিকের রেহেল ৮০

ঞ) অন্যান্য পণ্য

নাম মান/ দেশ মূল্য (টাকা)
কুটি পাকিস্তান (ভাল) ১,২০০
কুটি নরমাল ৩৫০
পায়ের চামড়ার মোজা ৩০০
মহিলাদের মাথার স্কাফ ১৫০
মহিলাদের টুপি ৫০
পাঞ্জাবীর বোতাম ৪ পিস ২৫০
বাতের চেইন ভাল ৬০০
বাতের চেইন নরমাল ১৫০
স্কাফের ক্লিপ ৪ পিস ৫০
পাগড়ি ১৮০
মিসওয়াক (প্যাকেট) পাকিস্তান ২০
কাঠের লাঠি ২৫০
ষ্টীলের লাঠি ৪০০

পাইকারী বিক্রয়

এই মার্কেটের দোকানগুলোতে খুচরা বিক্রয়ের পাশাপাশি পাইকারী ও বিক্রয় করা হয়। পাইকারী বিক্রয়ের ক্ষেত্রে দাম কিছুটা কম রাখা হয়। যেকোন আইটেম কমপক্ষে ১২ টি ক্রয় করলে পাইকারী দাম রাখা হয়।

পণ্য পরিবর্তন

এই মার্কেটের যে কোন দোকান থেকে ক্রয়কৃত পণ্য প্রয়োজনে পরিবর্তন করা যায়। এজন্য পণ্য ক্রয়ের সর্বোচ্চ ৩ দিনের মধ্যে ক্রয়ের রশিদসহ যে দোকান থেকে ক্রয় করা হয়েছে, সেই দোকানে যোগাযোগ করতে হয়। কোন অবস্থাতেই টাকা ফেরত নেওয়া হয় না।

কয়েকটি দোকানের নাম, ঠিকানা ফোন

  • মা বোরকা হাউস

মোবাইল- ০১৮১৫-১৮৯৩২৩

ক্ষুদ্র দোকান# ৮৯, বায়তুল মোকাররম, ঢাকা- ১০০০

  • জান্নাতী ক্যাপ হাউজ

মোবাইল- ০১৯১৮-৮৪৮২৪৮

ক্ষুদ্র দোকান# ৩৪, বায় তুল মোকাররম মার্কেট, ঢাকা- ১০০০

  • এরাবিয়ান আতর হাউজ

মোবাইল- ০১৮২৪-৫২২৫২৬, ০১৮১১-৮২৬২০৫, ০১৭১৬-৯১২২৬৯

ক্ষুদ্র দোকান# ৫০, বায়তুল মোকাররম মার্কেট, ঢাকা- ১০০০

  • খাঁন বোরকা ষ্টোর

মোবাইল- ০১৭২০-৯৪৮১৬২

ক্ষুদ্র দোকান# ৭১,৭২, বায়তুল মোকাররম মার্কেট, ঢাকা- ১০০০

  • মেসার্স মুন্নী এন্ড রাব্বী ক্লথ ষ্টোর

মোবাইল- ০১৭১৪-৮৭৩৯০২, ০১৮১৩-২৯৮৯৬৬, ০১৭১৪-২১৪২৯১

ক্ষুদ্র দোকান# ৫৯/৬০, বায়তুল মোকাররম মার্কেট, ঢাকা- ১০০০

  • আল মেহেদী পারফিউম

মোবাইল- ০১৯১১-৯৫৩৯৬৪

৫৮, বায়তুল মোকাররম মার্কেট, ঢাকা- ১০০০

  • জেদ্দাহ্ আতর হাউস

মোবাইল- ০১১৯৮-১১৪১৯১

ক্ষুদ্র দোকান# ৬৬, বায়তুল মোকাররম মার্কেট, ঢাকা- ১০০০

  • জম জম আতর হাউজ

মোবাইল- ০১৭১৮-২৯০৭৪৮

ক্ষুদ্র দোকান# ৬৩, বায়তুল মোকাররম মার্কেট, ঢাকা- ১০০০

  • মেসার্স আল হারামাইন আতর হাউজ

মোবাইল- ০১৭১৬-৩৩৫৩৬৪

ক্ষুদ্র দোকান# ৯৩, বাইতুল মোকাররম মার্কেট, ঢাকা- ১০০০

আর কে টাওয়ার শপিং কমপ্লেক্স

২ জসিমউদ্দিন রোড, সেক্টর-৩, উত্তরা, ঢাকা-১২৩০।

শপিং মলটি আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সম্পন্ন, এস্কেলেটর সুবিধা, নিজস্ব স্ট্যান্ডবাই জেনারেটর সুবিধাসহ শীতাতপ নিয়ন্ত্রীত এবং টাইলস সজ্জিত নতুন ভবনে অবস্থিত। এখানে মোট দোকান সংখ্যা ১০০ টি। মালিক কর্তৃপক্ষ কর্তৃক শপিং মলটি পরিচালিত হয়।

লোকেশন

  • উত্তরা সেক্টর ৩ এ জসিমউদ্দিন রোডে ঢুকে ২০ গজ সামনে হাতের ডান দিকে এটি অবস্থিত।

পণ্যসামগ্রীর বিবরন

প্রথম তলা গিফট আইটেম, শো-পিছ ইত্যাদি।
দ্বিতীয় তলা পুরুষদের রেডিমেড পোষাক, শার্ট, প্যান্ট, পাঞ্জাবী, টি-শার্ট, ব্লেজার, স্যুয়েটার, ট্রাউজার ইত্যাদি।
তৃতীয় তলা পুরুষ এবং মহিলাদের রেডিমেড পোষাক ইত্যাদি।
চতূর্থ তলা জুয়েলারী, শাড়ী, কসমেটিক্স, কাপড়ের দোকান ইত্যাদি।
পঞ্চম তলা ফাষ্ট ফুডসহ চাইনীজ খাবারের দোকান। ইত্যাদি।

পণ্যসামগ্রীর মান, মুল্য এবং ক্রেতা

  • এখানে প্রাপ্ত পন্য সামগ্রীর মান ভাল।
  • পন্য সামগ্রী কোন কোন দোকানে একদরে বিক্রয় হয়। আবার কোন কোন দোকানে দর কষাকষি করে ক্রয় করতে হয়।
  • এখানে সাধারনত উচ্চবিত্ত, উচ্চ-মধ্যবিত্ত এবং মধ্যবিত্ত শ্রেনীর ক্রেতাগন কেনাকাটা করতে আসেন।
  • এখানে ক্যাশের সাথে সাথে ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমেও খরচ পরিশোধ করা যায়।

গাড়ী পার্কিং ব্যবস্থা

  • এখানে গাড়ী পার্কিং এর নিজস্ব ব্যবস্থা রয়েছে। নিজস্ব পার্কিং ব্যবস্থাপনায় ৩০ টি এবং সামনের রাস্তায় এবং ফুটপাতে ৩০ টি  গাড়ী পার্কিং করা যায়।  পার্কিং এর জন্য কোন চার্জ দিতে হয় ।

টয়লেট ব্যবস্থা

  • টয়লেট সুবিধা রয়েছে।
  • এখানে প্রত্যেকটি ফ্লোরে পুরুষ এবং মহিলাদের পৃথক টয়লেট ব্যবস্থা রয়েছে।
  • সার্বক্ষনিক টয়লেট পরিচ্ছন্ন রাখা হয়।

নিরাপত্তা ব্যবস্থা

  • সিসিটিভি নেই। তবে এখানে নিজস্ব একদল প্রশিক্ষিত ও চৌকস সিকিউরিটি গার্ড রয়েছে, মার্কেটের সার্বিক নিরাপত্তার দায়িত্ব তারা খু্বই দক্ষতার সাথে পালন করে আসছে।

ওযু এবং নামাজের ব্যবস্থা

  • এখানে ওযু এবং নামাজের ব্যবস্থা আছে।

খোলা/বন্ধের সময়

  • সপ্তাহের বুধবার বন্ধ থাকে। সকাল ১০.০০ টা থেকে রাত ১০.০০ টা পর্যন্ত খোলা থাকে।

ভিড় এড়াতে চান

  • শুক্রবার এবং শনিবার ভিড় হয়।  সাধারনত সকাল ১০.০০ টা থেকে দুপুর ২.০০ টা পর্যন্ত এবং বিকাল ৫.০০ টা থেকে রাত ১০.০০ টা পর্যন্ত একটু বেশী ভিড় থাকে।

ইউ মৈত্রী কমপ্লেক্স

এটি একটি শপিং কমপ্লেক্স। এটি ৩ তলা বিশিষ্ট ভবন। প্রতিষ্ঠিত হয় ১৯৮৬ সালে।

ঠিকানা এবং অবস্থান

ইউ এ ই মৈত্রী কমপ্লেক্স, ৮, কামাল আতাতুর্ক এ্যাভিনিউ, বনানী, ঢাকা।

কাকলী বাসস্ট্যান্ড থেকে গুলশান ২ এর দিকে ২০০ গজ পূর্বে হাতের ডান পাশে এটি অবস্থিত।

মার্কেটের দোকানগুলো

ড্রেসি ডেল, এরাবিয়ানস, মেন্স প্ল্যানেট, মৌমিতা রকমারি, আবুল উলিয়া মিউজিক কালেকশন, ওমেন্স ওয়ার্ল্ড, সানমার ওশিন সিটি, ফাহিম মিউজিক, এসওএফ, ফপস প্রাইভেট লিমিটেড, শ্রদ্ধা, সীল মেন্স ওয়্যার, ক্যামেরা ভিশন এন্ড ল্যাপটপ ক্লিনিক।

 পণ্যসমূহ

পুরুষ, মহিলা এবং শিশুদের দেশী-বিদেশী রেডিমেড পোষাক, দেশী-বিদেশী জুতোর দোকান, পাঞ্জাবী-ফতুয়া-কাবলী স্যূটের দোকান, দেশীয় বিভিন্ন ফ্যাশন হাউজ, শাড়ি, সালোয়ার কামিজ, কসমেটিক্স, লেদার জ্যাকেট, টেইলার্স (পুরুষ এবং মহিলা), গহনা, ফাষ্টফুড, সিডি-ডিভিডি এর দোকান, কম্পিউটার শোরুম, মোবাইলের দোকান, মোবাইল অপারেটর কোম্পানীর আউটলেট, বিউটি পার্লার, জেন্টস পার্লার, জিম, রেন্ট-এ-কার, ট্রাভেল অফিস, মানি এক্সচেঞ্চ।

বিল পরিশোধ

এখানে পণ্যগুলো নির্ধারিত মূল্যে বিক্রয়ের পাশাপাশি দর কষাকষি করে বিক্রয় করা হয়। নগদ টাকায় মূল্য পরিশোধ করা হয়। ক্রেডিট কার্ড, ভিসা কার্ড, এটিম কার্ডে বিল পরিশোধের ব্যবস্থা রয়েছে। মার্কেটের পাশে বিভিন্ন ব্যাংকের শাখা এবং এটিএম বুথ রয়েছে।

ক্রেতাশ্রেনী

এখানে দেশী-বিদেশী ক্রেতারা ভিড় করে থাকে। তবে বিদেশী ক্রেতারা প্রায়সময়ই এখানে কেনাকাটা করতে আসেন। সমাজের উচ্চবিত্ত এবং উচ্চ মধ্যবিত্ত শ্রেণীর ক্রেতাদের এখানে যাতায়াত বেশি।

খোলাবন্ধের সময়সূচী

সোমবার থেকে শনিবার পর্যন্ত মার্কেটটি সকাল ৯টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত খোলা থাকে। রবিবার সাপ্তাহিক বন্ধ।

টয়লেট ব্যবস্থা

এই মার্কেটের নিচতলায় পুরুষ এবং মহিলাদের জন্য পৃথক টয়লেটের ব্যবস্থা রয়েছে। টয়লেট ব্যবহার করতে সার্ভিস চার্জ দিতে হয়।

নিরাপত্তা ব্যবস্থা

মার্কেটের নিরাপত্তা রক্ষার জন্য নিজস্ব সিকিউরিটি গার্ড রয়েছে।

জরুরী বিদ্যুত সরবরাহ ব্যবস্থা

এখানে লোড শেডিংয়ের সময় নিজস্ব জেনারেটরের সাহায্যে জরুরী বিদ্যূৎ সরবরাহের ব্যবস্থা রয়েছে।

শীতাতপ নিয়ন্ত্রন ব্যবস্থা

মার্কেটটি শীতাতপ নিয়ন্ত্রীত নয়। তবে প্রত্যেক দোকানে নিজস্ব এসি রয়েছে।

বিক্রয় ব্যবস্থা

বিক্রিত পণ্য ফেরত নেওয়া হয়না। তবে পণ্য ক্রয়ের ৩দিনের মধ্যে ক্রয় রশিদ নিয়ে গেল পরিবর্তন করা যায়। টাকা ফেরত দেওয়া হয়না।

ইউনিকর্ণ প্লাজা

এটি শীতাতপ নিয়ন্ত্রীত একটি শপিং কমপ্লেক্স। এটি ৭ তলা বিশিষ্ট ভবনের প্রথম এবং দ্বিতীয় তলা জুড়ে শপিং মার্কেটটি গড়ে উঠেছে। এখানে ২টি এস্কেলেটর এবং ১টি লিফট রয়েছে। ২০০৪ সালে এটি প্রতিষ্ঠিত হয়।

ঠিকানা এবং অবস্থান

গুলশান ২ গোল চত্ত্বর থেকে ৩০ গজ পূর্বে হাতের বাম পাশে এবং গুলশান কাঁচা বাজারের উত্তর পাশে এটি অবস্থিত।

ইউনিকর্ণ প্লাজা, ৪০/২ নর্থ গুলশান এ্যভিনিউ, গুলশান ২, ঢাকা-১২১২।

খোলাবন্ধের সময়সূচী

সোমবার থেকে শনিবার সকাল ১০ টা থেকে রাত ৮ টা পর্যন্ত এই মার্কেটটি খোলা থাকে। রবিবার দিন সাপ্তাহিক বন্ধ থাকে। সরকারী ছুটির দিনে এটি বন্ধ থাকে।

যেসকল পণ্য পাওয়া যায়

পুরুষ, মহিলা এবং শিশুদের দেশী-বিদেশী রেডিমেড পোষাক, দেশী-বিদেশী জুতোর দোকান, পাঞ্জাবী-ফতুয়া-কাবলী স্যূটের দোকান, দেশীয় বিভিন্ন ফ্যাশন হাউজ, শাড়ি, সালোয়ার কামিজ, কসমেটিক্স, লেদার জ্যাকেট, টেইলার্স (পুরুষ এবং মহিলা), গহনা, ফাষ্টফুড, সিডি-ডিভিডি এর দোকান, কম্পিউটার শোরুম, মোবাইলের দোকান, মোবাইল অপারেটর কোম্পানীর আউটলেট, বিউটি পার্লার, জেন্টস পার্লার, জিম, রেন্ট-এ-কার, ট্রাভেল অফিস।

মূল্য পরিশোধ পদ্ধতি

এখানে পণ্যগুলো নির্ধারিত মূল্যে বিক্রয়ের পাশাপাশি দর কষাকষি করে বিক্রয় করা হয়। নগদ টাকায় মূল্য পরিশোধ করা হয়। ক্রেডিট কার্ড, ভিসা কার্ড, এটিএম কার্ডে বিল পরিশোধের ব্যবস্থা রয়েছে। মার্কেটের নিচ তলায় ইস্টার্ণ ব্যাংকের এটিএম বুথ রয়েছে।

গাড়ি পার্কিং ব্যবস্থা

মার্কেটের গাড়ি পার্কিংয়ের নিজস্ব পার্কিং প্লেস নেই। সামনের রাস্তায় এবং ফুটপাতে গ্রাহক নিজ দায়িত্বে গাড়ি পার্ক করতে পারেন।

জরুরী বিদ্যুৎ সরবরাহ

এখানে লোডশেডিংয়ের সময় নিজস্ব জেনারেটরের মাধ্যমে জরুরী বিদ্যূৎ সরবরাহ করা হয়। জেনারেটর চলাকালীন এসি সার্ভিস বন্ধ থাকে।

টয়লেট ব্যবস্থা

এখানে পুরুষ এবং মহিলাদের জন্য পৃথক টয়লেট ব্যবস্থা রয়েছে। টয়লেটগুলো মার্কেটের উত্তর পাশে অবস্থিত। টয়লেট ব্যবহার করতে সার্ভিস চার্জ পরিশোধ করতে হয়।

নিরাপত্তা ব্যবস্থা

একদল প্রশিক্ষিত নিরাপত্তা কর্মী (পুরুষ এবং মহিলা) এবং গার্ড রয়েছেন। মার্কেটের ভেতরে সাময়িক বিশৃংখলা তথা ক্রেতাগন যাতে সহজে এবং নিরাপদে পন্য-সামগ্রী ক্রয় করতে পারেন সে ব্যাপরে তারা সচেষ্ট।

ইসমাইল হোসেন সুপার মার্কেট

৩৯১ এলিফ্যান্ট রোড, ঢাকা। শপিং মলটি আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সম্পন্ন, এস্কেলেটর সুবিধা, নিজস্ব স্ট্যান্ডবাই জেনারেটর সুবিধাসহ শীতাতপ নিয়ন্ত্রীত এবং টাইলস সজ্জিত নতুন ভবনে অবস্থিত। এখানে মোট দোকান সংখ্যা ৪৫০ টি। মালিক সমিতি কর্তৃক শপিং মলটি পরিচালিত হয়।

লোকেশন

  • গাউসিয়া মার্কেটের সাথেই এটি অবস্থিত।

পণ্যসামগ্রীর বিবরন

প্রথম তলা বিবাহের সামগ্রী, কসমেটিক্স, বোরকা এবং নাচের সামগ্রী ইত্যাদি।
দ্বিতীয় তলা থ্রীপিস, শাড়ীর জড়ি, পাইর, লেইস ইত্যাদি।
তৃতীয় তলা থ্রীপিস, শাড়ীর জড়ি, পাইর, লেইস ইত্যাদি।

পণ্যসামগ্রীর মান, মুল্য এবং ক্রেতা

  • এখানে প্রাপ্ত পন্য সামগ্রীর মান ভাল।
  • পন্য সামগ্রী কোন কোন দোকানে একদরে বিক্রয় হয়। আবার কোন কোন দোকানে দর কষাকষি করে ক্রয় করতে হয়।
  • এখানে সাধারনত উচ্চবিত্ত, উচ্চ-মধ্যবিত্ত এবং মধ্যবিত্ত শ্রেনীর ক্রেতাগন কেনাকাটা করতে আসেন।
  • এখানে ক্যাশের মাধ্যমে বিল পরিশোধ করতে হয়। ক্রেডিট কার্ডের কোন ব্যবস্থা নেই।

গাড়ী পার্কিং ব্যবস্থা

  • এখানে গাড়ী পার্কিং এর নিজস্ব ব্যবস্থা রয়েছে। নিজস্ব পার্কিং ব্যবস্থাপনায় ৫০ টি গাড়ী পার্কিং করা যায়।  পার্কিং এর জন্য কোন চার্জ দিতে হয়।

টয়লেট ব্যবস্থা

  • টয়লেট সুবিধা রয়েছে।
  • এখানে প্রত্যেকটি ফ্লোরে পুরুষ এবং মহিলাদের পৃথক টয়লেট ব্যবস্থা রয়েছে।
  • সার্বক্ষনিক টয়লেট পরিচ্ছন্ন রাখা হয়।

নিরাপত্তা ব্যবস্থা

  • সিসিটিভি নেই। তবে এখানে নিজস্ব একদল প্রশিক্ষিত ও চৌকস সিকিউরিটি গার্ড রয়েছে, মার্কেটের সার্বিক নিরাপত্তার দায়িত্ব তারা খু্বই দক্ষতার সাথে পালন করে আসছে।

ওযু এবং নামাজের ব্যবস্থা

  • এখানে ওযুর  ব্যবস্থা আছে।
  • এখানে নামাজের ব্যবস্থা নাই।

খোলা/বন্ধের সময়

  • সপ্তাহের মঙ্গলবার বন্ধ থাকে। সকাল ১০.০০ টা থেকে রাত ৮.০০ টা পর্যন্ত খোলা থাকে।

ভিড় এড়াতে চান

  • প্রতিদিনই ভিড় হয়।  সাধারনত দুপুর থেকে রাত পর্যন্ত একটু বেশী ভিড় থাকে।

গাউসিয়া মার্কেট

গাউসিয়া মার্কেট, ঢাকা। শপিং মলটি আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সম্পন্ন, নিজস্ব স্ট্যান্ডবাই জেনারেটর সুবিধাসহ শীতাতপ নিয়ন্ত্রীত এবং টাইলস সজ্জিত নতুন ভবনে অবস্থিত। এখানে মোট দোকান সংখ্যা ১০০০ (+) টি। মালিক সমিতি কর্তৃক শপিং মলটি পরিচালিত হয়।

লোকেশন

  • নিউ মার্কেট এর বিপরীত দিকে এটি অবস্থিত।

পণ্যসামগ্রীর বিবরন

প্রথম তলা মহিলাদের রেডিমেড বিভিন্ন রকমের পোষাক, শাড়ী, থ্রী-পিস, ওড়না, কসমেটিক্স, শাড়ীর জরি, চুমকি, লেইস, জুতো/স্যান্ডেল (মেয়েদের জন্য), ব্যাগ ইত্যাদি।
দ্বিতীয় তলা মহিলাদের রেডিমেড বিভিন্ন রকমের পোষাক, শাড়ী, থ্রী-পিস, ওড়না, কসমেটিক্স, শাড়ীর জরি, চুমকি, লেইস, জুতো/স্যান্ডেল (মেয়েদের জন্য), ব্যাগ, লেডিস টেইলার্স, বুটিক শপ ইত্যাদি।
তৃতীয় তলা শাড়ী এবং থ্রী পিসের পাইকারী দোকান ইত্যাদি।
চতূর্থ তলা বিবাহের সামগ্রী, বুটিক এবং এম্ব্রোয়ডারী শপ ইত্যাদি।

পণ্যসামগ্রীর মান, মুল্য এবং ক্রেতা

  • এখানে প্রাপ্ত পন্য সামগ্রীর মান ভাল।
  • পন্য সামগ্রী কোন কোন দোকানে একদরে বিক্রয় হয়। আবার কোন কোন দোকানে দর কষাকষি করে ক্রয় করতে হয়।
  • এখানে সাধারনত উচ্চবিত্ত, উচ্চ-মধ্যবিত্ত এবং মধ্যবিত্ত শ্রেনীর ক্রেতাগন কেনাকাটা করতে আসেন।
  • এখানে ক্যাশের সাথে সাথে ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমেও খরচ পরিশোধ করা যায়।

গাড়ী পার্কিং ব্যবস্থা

  • এখানে গাড়ী পার্কিং এর নিজস্ব ব্যবস্থা নেই। সামনের রাস্তায় ৪০ টি গাড়ী পার্ক করা যায়।

টয়লেট ব্যবস্থা

  • টয়লেট সুবিধা রয়েছে।
  • এখানে প্রত্যেকটি ফ্লোরে পুরুষ এবং মহিলাদের পৃথক টয়লেট ব্যবস্থা রয়েছে।
  • সার্বক্ষনিক টয়লেট পরিচ্ছন্ন রাখা হয়।

নিরাপত্তা ব্যবস্থা

  • সিসিটিভি নেই। তবে এখানে নিজস্ব একদল প্রশিক্ষিত ও চৌকস সিকিউরিটি গার্ড রয়েছে, মার্কেটের সার্বিক নিরাপত্তার দায়িত্ব তারা খু্বই দক্ষতার সাথে পালন করে আসছে।

ওযু এবং নামাজের ব্যবস্থা

  • এখানে ওযু এবং নামাজের ব্যবস্থা আছে।

খোলা/বন্ধের সময়

  • সপ্তাহের মঙ্গলবার বন্ধ থাকে। সকাল ১০.০০ টা থেকে রাত ৮.০০ টা পর্যন্ত খোলা থাকে।

ভিড় এড়াতে চান

  • প্রতিদিনই ভিড় হয়।  সাধারনত সকাল থেকে রাত পর্যন্ত একটু বেশী ভিড় থাকে।

ক্যাপিটাল টাওয়ার, মিরপুর

ঠিকানা অবস্থান

  • মিরপুর ১নং বাসস্ট্যান্ড, মিরপুর, ঢাকা।
  • ধানমন্ডি থেকে মিরপুর ১ নম্বর যাওয়ার পথে ১ নম্বর বাসস্ট্যান্ড এর বাম পাশে মুক্তিযোদ্ধা মার্কেট সংলগ্ন এই শপিং কমপ্লেক্সটি অবস্থিত।

 ভবনের বিবরণ:

  • ৮ তলা ভবন, প্রতি তলা মোজাইক ও টাইলস সজ্জিত।

পণ্যসামগ্রীর বিবরণ

প্রথম তলা জুতা, তৈরি পোষাক, কসমেটিক্স, গ্রোসারী ইত্যাদি।
দ্বিতীয় তলা তৈরি পোষাক।
তৃতীয় তলা জুয়েলারি ও টেইলার্স শপ।
চতুর্থ তলা তৈরি পোষাক ও ব্রোকার হাউজ।
৫ম – ৮ম তলা পর্যন্ত দারুল ইহসান ইউনিভার্সিটি এনেক্স – ৯।

পণ্যসামগ্রীর মান, মূল্য এবং ক্রেতা

  • এখানে প্রাপ্ত পণ্য সামগ্রীর মান ভাল।
  • পণ্য সামগ্রী কিছু দোকানে একদরে বিক্রয় হয়। আবার কিছু দোকানে দর কষাকষি করে বিক্রয় করা হয়।
  • এখানে সকল শ্রেনীর ক্রেতাগন কেনাকাটা করতে আসেন।
  • এখানে ক্যাশের মাধ্যমে বিল পরিশোধ করতে হয়। ক্রেডিট কার্ডে বিল পরিশোধের কোন ব্যবস্থা নেই।

 গাড়ি পার্কিং ব্যবস্থা

  • শপিং মলটির নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় ৩০ গাড়ি পার্কিং এর ব্যবস্থা রয়েছে। রাস্তায় ও ফুটপাতে ২০ গাড়ি পার্ক করা যায়। গাড়ী পার্কিং এর জন্য কোন চার্জ দিতে হয় না।

টয়লেট ব্যবস্থা

  • পুরুষ এবং মহিলাদের পৃথক টয়লেট ব্যবস্থা রয়েছে।
  • টয়লেট পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখা হয়।

এস্কেলেটর সুবিধা

  • এখানে এস্কেলেটর সুবিধা রয়েছে। এস্কেলেটর এর সংখ্যা ৪ টি।

নিরাপত্তা ব্যবস্থা

  • সিসিটিভি নেই। তবে এখানে নিজস্ব একদল প্রশিক্ষিত ও চৌকস সিকিউরিটি গার্ড রয়েছে।

 খোলাবন্ধের সময়সূচী

  • বৃহস্পতিবার সাপ্তাহিক সাপ্তাহিক বন্ধ। অবশিষ্ট ০৬ (ছয়) দিন সকাল ১০.০০ টা থেকে রাত ০৮.০০ টা পর্যন্ত খোলা থাকে।
  •  ভিড় এড়াতে চান
  • শুক্রবার এবং শনিবার ভিড় বেশি হয়। অন্যান্য দিনে সকাল ১১.০০ টা থেকে দুপুর ০২.০০ টা পর্যন্ত এবং বিকাল ০৪.০০ টা থেকে  রাত ০৮.০০ টা পর্যন্ত ভিড় হয় এছাড়া রাতের বেলা একটু বেশি ভিড় থাকে।

নাহার প্লাজা

শপিং মলটি আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সম্পন্ন, নিজস্ব স্ট্যান্ডবাই জেনারেটর সুবিধা এবং টাইলস সজ্জিত নতুন ভবনে অবস্থিত। এখানে মোট দোকান সংখ্যা ২৪০ টি। মালিক কর্তৃপক্ষ কর্তৃক শপিং মলটি পরিচালিত হয়।

ঠিকানা অবস্থান

  • ২৬, সোনারগাঁও রোড, হাতিরপুল, ঢাকা।
  • কাঁটাবন থেকে হাতিরপুল বাজার পেরিয়ে ইষ্টার্ণ প্লাজার বিপরীত পাশে এটি অবস্থিত।

যোগাযোগ = ফোন: ৯৬১২৪৩৩

পণ্যসামগ্রীর বিবরণ

প্রথম তলা নকিয়া সেলস সেন্টার, ডিপার্টমেন্টাল স্টোর, অডিও ভিডিও সিডি ডিভিডি, সফটওয়্যার সিডি ডিভিডি ইত্যাদি।
দ্বিতীয় তলা মোবাইল শো-রুম ইত্যাদি।
তৃতীয় তলা কম্পিউটার শপ ইত্যাদি।
চতূর্থ তলা থেকে নবম তলা পর্যন্ত বিভিন্ন অফিস

পণ্যসামগ্রীর মান, মুল্য এবং ক্রেতা

  • এখানে প্রাপ্ত পন্য সামগ্রীর মান ভাল।
  • পন্য সামগ্রী কোন কোন দোকানে একদরে বিক্রয় হয়। আবার কোন কোন দোকানে দর কষাকষি করে ক্রয় করতে হয়।
  • এখানে সাধারনত উচ্চবিত্ত, উচ্চ-মধ্যবিত্ত এবং মধ্যবিত্ত শ্রেনীর ক্রেতাগন কেনাকাটা করতে আসেন।
  • এখানে ক্যাশের মাধ্যমে বিল পরিশোধ করতে হয়। ক্রেডিট কার্ডে বিল পরিশোধের কোন ব্যবস্থা নেই।

গাড়ি পার্কিং ব্যবস্থা

  • এখানে গাড়ি পার্কিংয়ের নিজস্ব ব্যবস্থা রয়েছে। নিজস্ব পার্কিং ব্যবস্থাপনায় ২০ টি গাড়ি পার্কিং করা যায়।  পার্কিংয়ের জন্য চার্জ দিতে হয় ।

টয়লেট ব্যবস্থা

  • টয়লেট সুবিধা রয়েছে।
  • সার্বক্ষনিক টয়লেট পরিচ্ছন্ন রাখা হয়।

নিরাপত্তা ব্যবস্থা

  • সিসিটিভি নেই। তবে এখানে নিজস্ব একদল প্রশিক্ষিত ও চৌকস সিকিউরিটি গার্ড রয়েছে, মার্কেটের সার্বিক নিরাপত্তার দায়িত্ব তারা খু্বই দক্ষতার সাথে পালন করে আসছে।

ওযু এবং নামাজের ব্যবস্থা = এখানে ওযু এবং নামাজের ব্যবস্থা রয়েছে।

খোলাবন্ধের সময়সূচী = সপ্তাহের মঙ্গলবার বন্ধ থাকে। সকাল ৯.৩০ টা থেকে রাত ৮.০০ টা পর্যন্ত খোলা থাকে।

ভিড় এড়াতে চান

  • শুক্রবার এবং শনিবার ভিড় হয়।  সাধারনত বিকাল ৩.০০ টা থেকে রাত ৮.০০ টা পর্যন্ত একটু বেশি ভিড় থাকে।

ট্রপিক্যাল আলাউদ্দিন টাওয়ার

আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সম্বলিত এই শপিং মলটি উত্তরাতে অবস্থিত। এখানে এস্কেলেটর সুবিধা, নিজস্ব স্ট্যান্ডবাই জেনারেটর সুবিধাসহ শীতাতপ নিয়ন্ত্রনের ব্যবস্থা রয়েছে। মোট দোকান সংখ্যা ১৮০ টি যা মালিক সমিতি কর্তৃক পরিচালিত হয়।

ঠিকানা: ৫০১ ট্রপিক্যাল আলাউদ্দীন টাওয়ার, রোড- ২, সেক্টর-৩, উত্তরা মডেল টাউন, ঢাকা-১২৩০।

অবস্থান: রাজলক্ষী কমপ্লেক্সের পশ্চিম প্বার্শে এই শপিং সেন্টার টি অবস্থিত।

মার্কেটের বর্ননা: এই শপিং মলটি ১৬ তলা বিশিষ্ট একটি ভবন। তবে ভবনের প্রথম ৬ তলায় এই মার্কেটের অবস্থিত। উপরের দিকে বিভিন্ন অফিস রয়েছে। শপিং মলে ঢোকা এবং বাহির হওয়ার জন্য আলাদা দুটি পথ রয়েছে। শপিং মলটি কেন্দ্রীয় ভাবে শীতাতপ নিয়ন্ত্রীত এবং অগ্নিনির্বাপন ব্যবস্থা রয়েছে।

পন্য সমগ্রীর বিবরন:

১ম তলা কসমেটিক্স, সানগ্লাস, ব্যাগ, ঘড়ি ইত্যাদি
২য়, ৩য়, ৪র্থ তলা রেডিমেন্ট আইটেম, থ্রী-পিস, শাড়ি, থান কাপড়, শার্ট, পান্ট সহ গার্মেন্টস আইটেম।
৫ম তলা জুয়েলারী এবং জুতা
৬ষ্ঠ তলা মোবাইল এবং কম্পিউটার

পণ্যসামগ্রীর মান, মুল্য এবং ক্রেতা:

  • এখানে প্রাপ্ত পন্য সামগ্রীর মান ভাল।
  • পন্য সামগ্রী কোন কোন দোকানে একদরে বিক্রয় হয়। আবার কোন কোন দোকানে দর কষাকষি করে ক্রয় করতে হয়।
  • এখানে সাধারনত উচ্চবিত্ত, উচ্চ-মধ্যবিত্ত এবং মধ্যবিত্ত শ্রেনীর ক্রেতাগন কেনাকাটা করতে আসেন।
  • এখানে ক্যাশের সাথে সাথে ক্রেডিট কার্ডের মাধ্যমেও খরচ পরিশোধ করা যায়।

গাড়ী পার্কিং ব্যবস্থা:

  • এখানে গাড়ী পার্কিং এর নিজস্ব ব্যবস্থা রয়েছে। নিজস্ব পার্কিং ব্যবস্থাপনায় ৪০ টি  গাড়ী পার্কিং করা যায়।  পার্কিং এর জন্য কোন চার্জ দিতে হয় না।

এস্কেলেটর সুবিধা:

  • প্রতি ফ্লোরে ওঠা-নামার জন্য দুইটি করে সর্বমোট বার (১২) এস্কেলেটর রয়েছে।
  • এছাড়া ও মার্কেটের দুই (২) প্বার্শে দুই(২) টি ক্যাপসুল লিফট রয়েছে।

নিরাপত্তা:

  • প্রতি ফ্লোরে ছয় (৬) টি করে সিসি ক্যামেরা রয়েছে।
  • প্রতি ফ্লোরে মার্কেটের নিজেস্ব ২ জন গার্ড থাকে সার্বক্ষনিক ডিউটির জন্য।

নামাজের স্থান:

  • ওজু এবং নামাজের জন্য প্রতি ফ্লোরে নির্দ্রষ্ট যায়গা আছে।

টয়লেট:

  • প্রতি ফ্লোরে মহিলা এবং পুরুশের জন্য আলাদা টয়লেটের ব্যবস্থা রয়েছে।
  • প্রতি ফ্লোরে মহিলাদের জন্য ২ টি এবং পুরুদের জন্য ৬ টি টয়লেটের ব্যবস্থা রয়েছে।
  • কমোড এবং নরমাল উভয় ব্যবস্থা রয়েছে।
  • টয়লেট গুলো সার্বক্ষনিক পরিস্কার পরিচ্ছন্ন থাকে।

খোলা বন্ধের সময় সূচী:

  • এই শপিং মলটি প্রতিদিন সকাল ১০.০০ টায় খোলে এবং ৯.০০ টায় বন্ধ হয়।
  • সপ্তাহে ৭ দিন খোলা থাকে।

ট্রপিক্যাল আলাউদ্দিন টাওয়ার এর দোকানের নাম ঠিকানা সমূহ:

দোকানের নাম দোকানের ঠিকানা ও মোবাইল নম্বর
অঙ্গাসিড়ি দোকান-১২১ (নীচ তলা), মোবা: ০১৮১৭-০৪৩৪৪১।
অপশন দোকান-২২৮ (২য় তলা),মোবা: ০১৬৭৬-২১৫২৩৮।
বেবি পিগ্গি দোকান-২২৫ (২য় তলা), মোবা: ০১৭৩২-৬৮৩১০৬।
লিটল স্টার দোকান-২২৪ (২য় তলা), মোবা: ০১৯১৩-৪৮৬৮৮৮।
হলি ফ্যামাস ফ্যাশন দোকান-২২৩ (২য় তলা), মোবা: ০১৭৪০-৮৭২৯৬৪।
এ্যাঙ্গেল দোকান-২১৮ (২য় তলা), মোবা: ০১৯২০-৫০০৬৮৭।
ফ্যাশন ক্লাব দোকান-২০৪ (২য় তলা), মোবা: ০১৭১৫-৫৮৩৩২০।
ফাতেমা’স ফ্যাশন দোকান-২০৫ (২য় তলা), মোবা: ০১৭৪০-৮৭২৯৬৪।
অরনী ফ্যাশন দোকান-২০৯ (২য় তলা), মোবা: ০১৯১৩-০৬৩৪৯৩।
নাভানা বেইলী স্টার দোকান-২১৩ (২য় তলা), ফোন: ০২-৯৩৫২৬০৮।
ম্যান’স স্টাইল দোকান-২৩১ (২য় তলা), মোবা: ০২-৮৯৩৩১৬৭।
ক্রিডেন্স উইয়ার হাউজ দোকান-২২৯ (২য় তলা), মোবা: ০১৭১০-৮৯৯৮৪৯।
লুক এন্ড লাইক দোকান-৩৩১ (৩য় তলা), মোবা: ০১৬৮০-৬৯৬৯০০।
রোদেলা ফ্যাশন হাউজ লেডিস দোকান-৩১২ (৩য় তলা), মোবা: ০১৮২২-২১৬৯৪৭।
এ এন্ড এম দোকান-৩৪০-৩৪১ (৩য় তলা), মোবা: ০১৯১৭-৮৯৯৮৪৪।
সিটি ম্যান’স দোকান-৩৩৯ (৩য় তলা), মোবা: ০১৯৩৩-০৬৪৭৭৬।
এম চয়েজ দোকান-৩১৫ (৩য় তলা), মোবা: ০১৮১৪-৩৫২৫০৯।
জাহান ফ্যাশন দোকান-৩৩৫ (৩য় তলা), মোবা: ০১৯৭২-২৩৩৬৬৪।
অপশারা বুটিকস দোকান-৩৩০ (৩য় তলা), মোবা: ০১৭১২-২৯০৫৯৫।
মিনি মার্ট উত্তরা দোকান-৩২৮-৩২৯ (৩য় তলা), মোবা: ০১৭১৫-৪০৮০৫৯।
কথা মনি দোকান-৩২৪ (৩য় তলা), মোবা: ০১৭৫৩-৪১৫৪১৩।
স্টিচ আউট উইয়ার দোকান-৩১৫ (৩য় তলা), মোবা: ০১৬৭২-৮৮৯০২৮।
লাম ইয়া ফ্যাশন দোকান-৩১৩ (৩য় তলা), মোবা: ০১৯১২-০১১৮২৫।
ওয়েস্টার্ন কালেকশন দোকান-৩০৫-৩০৯ (৩য় তলা), মোবা: ০১৯১১-০৪৬৯৯২।
জিঞ্জ দোকান-৩২০-২৩ (৩য় তলা), মোবা: ০১৭১৫-৯৮৫৬৭২।
নুরল্যাণ্ড ফ্যাশন দোকান-৩১৬-৩১৭ (৩য় তলা), মোবা: ০১৬১৭-৮৬৪৬৭৭।
গার্লিয়া গুডিস দোকান-৩১৮-৩১৯ (৩য় তলা), মোবা: ০১৭৭৫-৪৬৮৭৮৪।
আডস দোকান-৩০১ (৩য় তলা), মোবা: ০১৭১৫-৭৯৭৬৯২।
এস.এম.ফ্যাশন হাউজ দোকান-৩০৫ (৩য় তলা), মোবা: ০১৮১৮-৯৬৩০০৩।
সামিয়া ফ্যাশন দোকান-৩১০ (৩য় তলা), মোবা: ০১৮১৩-৮২২৬৫৫।
কালার প্লে দোকান-৪২৪ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৯১১-৫৪২০৩১।
নিতিলয় ফ্যাশন দোকান-৪১২ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৭৬০-৬১৮৫৩৯।
রঙ্গন দোকান-৪১৪-৪১৫ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৭২৮-৯৫০৮৬৩।
সিকদার শাড়ি ফ্যাশন দোকান-৪২৬-৪২৭ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৭১২-৭২৩৪৪৬।
সোয়া কালেকশন দোকান-৪১৬-৪১৭ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৭২৭-৫৮৬৮৬৮।
নেইল ফ্যাব্রিক্স দোকান-৪২২-/২৩ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৭১০-৮৮২৮৮৯।
আউটপিটার বুটিকস এণ্ড টেইলার্স দোকান-৪২০/২১ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৭১৫-০৫৬৮৩১।
রেড দোকান-৪৩৭/১৩ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৭৬০-৭৪৮৬৮১।
নিড দোকান-৪৩৬ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৬৮৪-৮৭৯৭৭৪।
এডি টেইলার্স দোকান-৪৩৪ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৯৪২-২০৩৭৮৬।
তারা দোকান-৪৩৩ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৯৩৩-৯৪২০২৮।
ফ্যাশন গ্যালারী দোকান-৪৩১ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৭২০-০১০১৪২।
বিবি আয়েশা বুটিকস দোকান-৪০৫ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৮৩৪-৩৪৬০০৫।
ইরানী বোরকা বাজার দোকান-৪০১ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১১৯৭-৪১৮৬১৬।
চাঁদনী ফেব্রিক্স দোকান-৪০৯ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৯২৬-০৫২০৩৪।
মিথিলা প্লাস দোকান-৪০৮ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৭১২-০৯০৫২১।
ফ্যাশন প্লাস দোকান-৪৩৫ (৪র্থ তলা), মোবা: ০১৯২৪-৯৪২৭৭৬।
আল-আমিন জুয়েলার্স দোকান-৫১৪/১৫ (৫ম তলা), মোবা: ০১৭১২-০৬৪১৮৬।
পার্ল হাউস জুয়েলার্স দোকান-৫০১ (৫ম তলা), মোবা: ০১৭৫৪-০৭৪৭১৮।
ক্রিস্টাল টাচ ফ্যাশন দোকান-৫৩৫ (৫ম তলা), ফোন: ৮৯১৬০৭১।
আনন্দ জুয়েলার্স দোকান-৫০২/০৩ (৫ম তলা), মোবা: ০১৭১৫-০৪১১৭০।
ফোর স্কয়ার দোকান-৫১৭ (৫ম তলা)।
কর্ণফুলি ফ্যাশন দোকান-৫৩৬/৩৭ (৫ম তলা), মোবা: ০১৭৫২-৮০৬৪২৩।
ছোঁয়া জুয়েলার্স দোকান-৫২২ (৫ম তলা), মোবা: ০১৭১৭-২৫৮৫৬৭।
দি শতরূপা জুয়েলার্স দোকান-৫২৫ (৫ম তলা), মোবা: ০১৭২৮-৮১৯৯৮৫।
স্নেহ দোকান-৫৩৯ (৫ম তলা)।
ঝুমা জুয়েলার্স দোকান-৫৩৮ (৫ম তলা), মোবা: ০১৭২১-১২৯২৭৪।
ফ্যামিলী চয়েজ দোকান-৫০৭ (৫ম তলা), মোবা: ০১৭৩১-৮৮০২২৮।
কাশমিয়া সু দোকান-৫২৪ (৫ম তলা), মোবা: ০১৭১৪-৩৬৬৬৫৬।
প্রিতম মিউজিক দোকান-৬১৫ (৬ষ্ঠ তলা), মোবা: ০১৭৬৪-২৯৭৭৭০।
স্কটিয়া  ফ্রাই চিকেন এণ্ড টনডুরী দোকান-৬২৫ (৬ষ্ঠ তলা), মোবা: ০১৭৫৭-০৩৭৪১৮।
মারহাবা টেলিকম দোকান-৬২৪ (৬ষ্ঠ তলা), মোবা: ০১৯২৪-০০৩০৩০।
ওয়েস্টার্ন মোবাইল ফেয়ার দোকান-৬১৪/২৫ (৬ষ্ঠ তলা), মোবা: ০১৮১৬-২১৭৯০৩।
মডার্ন মোবাইল সেন্টার দোকান-৬৩৫ (৬ষ্ঠ তলা), মোবা: ০১৯১৯-৬৯২৪২২।
রোমাউচিয়াহ মোবাইল ডটকম দোকান-৬৩০ (৬ষ্ঠ তলা), মোবা: ০১৯৩১-৬৮২৯৬৩।
নিরব টেলিকম সেন্টার দোকান-৬৩৪ (৬ষ্ঠ তলা), মোবা: ০১৬১৮-৮০৯৩৩৯।
রহমট টেলিকম লি. দোকান-৬৩৭ (৬ষ্ঠ তলা), মোবা: ০১৭১২-৭২৫৫৫৫।
টিচ ভেলী দোকান-৬৩১ (৬ষ্ঠ তলা), মোবা: ০১৭১২-১৩৭৭৪২।
এস.এম. মোবাইল জোন দোকান-৬০৭ (৬ষ্ঠ তলা), মোবা: ০১৯২১-১২৮০৯৫।
সরকার মোবাইল পয়েন্ট দোকান-৬০৪ (৬ষ্ঠ তলা), মোবা: ০১৮১৪-৪৫৭৭৩৪।
ডুবাই টিচ দোকান-৬০৮ (৬ষ্ঠ তলা), মোবা: ০১৮২২-১৭৮২২২।